জেলা সংবাদ

উলিপুরে গ্রাম পুলিশের বাড়ি থেকে ত্রানের ২১ বস্তা চাল উদ্ধার

প্রকাশ: ২৫ মে ২০২০     আপডেট: ২৫ মে ২০২০ |

চন্দন কুমার সরকার, কুড়িগ্রাম জেলা প্রতিনিধি ■ বাংলাদেশ প্রেস

কুড়িগ্রামের উলিপুরে গ্রাম পুলিশের বাড়ি থেকে ত্রানের ২১ বস্তা (২৬ মন ২৫ কেজি) চাল উদ্ধার করেছে পুলিশ। চাল উদ্ধারের ঘটনাটি ঘটেছে রোববার (২৪ মে) সন্ধ্যায় বজরা ইউনিয়ন পরিষদ সংলগ্ন এক গ্রাম পুলিশের শয়ন কক্ষ থেকে। ত্রানের চাল উদ্ধার করা হলেও রহস্যজনক কারনে কাউকে আটক করা হয়নি। এ ব্যাপারে এলাকায় বিরুপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। 

জানা গেছে, উপজেলার বজরা ইউনিয়নে ঈদ উপলক্ষ্যে দুঃস্থদের মাঝে সরকারের দেয়া ত্রানের চাল বিতরন না করে পরিষদের গুদাম সংলগ্ন গ্রাম পুলিশ বিপুল মিয়ার বাড়িতে গোপনে তা মজুদ করা হয়। রোববার সন্ধ্যায় স্থানীয় জনগন তা জানতে পেরে ইউনিয়ন পরিষদসহ ওই গ্রাম পুলিশের বাড়ি ঘিরে রেখে প্রশাসনকে খবর দেন। পরে রাত আটটার দিকে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে গ্রাম পুলিশ বিপুলের বাড়ির শয়ন কক্ষের মেঝেতে খোলা অবস্থায় চাল গুলো পড়ে থাকতে দেখেন। সেখান থেকে ২১ বস্তা (২৬ মন ২৫ কেজি) চাল উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসলেও রহস্যজনক কারনে কাউকে আটক করেনি পুলিশ। চাল উদ্ধারের ঘটনার সময় ওই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পরিষদ কার্যালয়ে অবস্থান করেছিলেন বলে স্থানীয়রা জানান। এদিকে ত্রানের চাল উদ্ধার করা হলেও এ ঘটনায় কাউকে আটক না করায় এলাকায় বিরুপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। পরে রাত ৯টার দিকে দোষীদের আটকের দাবীতে ইউপি কার্যালয়ের সামনে স্থানীয়রা বিক্ষোভ মিছিল করেন। 

বজরা ইউনিয়নের দায়িত্বরত ট্যাগ অফিসার ও উপ সহকারী কৃষি অফিসার মাহমুদুল হাসান রানু জানান, ত্রানের চাল উদ্ধারের ঘটনায় ইউএনও স্যারের নির্দেশে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। 

বজরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রেজাউল করিম আমিন বলেন, গ্রাম পুলিশের বাড়ি থেকে উদ্ধারকৃত চালগুলি ত্রানের নয়, ওগুলো ভিজিডির চাল হতে পারে। 

উলিপুর থানার অফিসার ইনর্চাজ মোয়াজ্জেম হোসেন চাল উদ্ধারের ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এ ব্যাপারে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। 

উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুল কাদের মুঠোফোনে জানান, সরকারি চাল উদ্ধারের ঘটনায় ওই ইউনিয়নের দায়িত্বরত ট্যাগ অফিসারকে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার জন্য বলা হয়েছে।