জেলা সংবাদ

সীতাকুণ্ডে সর্দিজ্বর-কাশিতে নারীর মৃত্যু, স্থানীয়দের সন্দেহ ‘করোনা’

প্রকাশ: ২৫ মার্চ ২০২০ |

নিজস্ব প্রতিনিধি ■ বাংলাদেশ প্রেস

 চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড উপজেলায় সর্দিজ্বর-কাশিতে আক্রান্ত হয়ে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। এলাকাবাসীর সন্দেহ, ওই নারী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন। এ নিয়ে এলাকাবাসীর মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে।

মারা যাওয়া রেনু বেগম পৌরসভার শেখপাড়া এলাকায় কামাল উদ্দিনের স্ত্রী।এলাকাবাসী জানান, ওই নারী গত এক সপ্তাহ ধরে বাপের বাড়ি কুমিরায় জ্বর-কাশিতে আক্রান্ত হয়ে অসুস্থ ছিলেন।

মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে একটি প্রাইভেট গাড়িতে অসুস্থ অবস্থায় তাকে সীতাকুণ্ড পৌরসদরে স্বামীর বাড়িতে নিয়ে আসা হয়। বাড়িতে আসার প্রায় ২ ঘণ্টা পর তিনি মারা যান।

ওই নারীর মৃত্যুর খবর পেয়ে এলাকাবাসী আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। করোনাভাইরাস আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে, এমন সন্দেহে কেউ তার বাড়ির আশপাশেও যাচ্ছেন না।

ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নুর উদ্দিন জানান, নিহত নারীর বাপের বাড়ি উপজেলার কুমিরা ইউনিয়নের কাজিপাড়ায়।

দুই সপ্তাহ আগে তার মা জ্বর, সর্দি ও কাশিতে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। এর পর রেনু বেগম জ্বর, সর্দি-কাশিতে আক্রান্ত হন। এর পর বাপের বাড়িতেই স্থানীয়ভাবে তার চিকিৎসা চলে।

এর মধ্যে তার অবস্থা সংকটাপন্ন হয়ে পড়লে তাকে সীতাকুণ্ডে স্বামীর বাড়িতে নিয়ে আসা হয়। ২ ঘণ্টা পর ওই নারী মারা যান।

পৌরসভার ওই ওয়ার্ডেও কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়র হারাধন চৌধুরী বাবু জানান, মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে রেনু বেগম স্ট্রোক করে মারা যান। বুধবার সকাল ১০টায় তার মরদেহ দাফন করা হয়।

নিহত নারীর বাড়িতে করোনাভাইরাস আতঙ্কে কেউ যাচ্ছে না। তবে দীর্ঘদিন ধরে জ্বর-কাশিতে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে বলে নিহতের স্বামী স্বীকার করেছেন।

বিষয়টি নিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মিল্টন রায় জানান, ওই নারী করোনা আক্রান্ত ছিলেন না। তবে তার মৃত্যু ঘিরে এ নিয়ে এলাকায় আতঙ্ক বিরাজ করছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার-কল্যাণ কর্মকর্তা নুর উদ্দীন রাশেদ বলেন, এটি স্বাভাবিক মৃত্যু। করোনার কোনো লক্ষণ ছিল না।