জেলা সংবাদ

কর্ণফুলীতে বসতবাড়িতে হামলা

৯৯৯-এ কল; ভাঙচুরের অভিযোগে থানায় এজাহার!

প্রকাশ: ১৩ আগস্ট ২০১৯

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি ■ বাংলাদেশ প্রেস

চট্টগ্রাম কর্ণফুলী উপজেলার শিকলবাহা ইউনিয়নের চরহাজারী গ্রামে দীর্ঘদিন যাবত আপন ভাইদের মধ্যে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে মো. নুরুল আমিন নামের এক ব্যক্তির বসত বাড়িতে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে।

গত ১১ আগষ্ট দুপুর ২টা ৩০ মিনিটের সময় উপজেলার শিকলবাহা ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের হাজী সাহেব মিয়ার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় বাড়ির মালিক মো. নুরুল আমিন (৫৫) বাদি হয়ে ৩১ জনের নাম উল্লেখ করে তাদের বিরুদ্ধে কর্ণফুলী থানায় একটি এজাহার দায়ের করেছেন বলে জানা যায়।

এজাহারে পাওয়া বিবাদীগণ হলেন-নুরুল কাদের, নুর মোহাম্মদ, ইমন, রাশেদ, কামরুন নেছা ববি, বেলাল, লোকমান, জালাল, সোলমান, ফোরকান, মহি উদ্দীন, আবু তাহের, আবু জাহের, আঙ্গুর, আবু বক্কর, সোহেল, আরিফ, ইমরান, মুজিব, রাজু, সাজ্জাদ হোসেন, হৃদয়, সেলিম, দিদারুল আলম, ইকবাল, জুয়েল, আজগর আলী, জহিরুল ইসলাম, আমজাদ, ইনচান ও আলমগীর।

থানায় দায়ের করা এজাহার সূত্রে জানা যায়, মো. নুরুল আমিনের সাথে একই এলাকার নুরুল কাদের ও নুরুল হকের সাথে পারিবারিক মৌরশী পাওয়া পৈত্রিক সম্পত্তি নিয়ে এক বছর যাবত বিরোধ চলে আসছিল। সম্পর্কে যদিও তারা একে অপরের ভাই হন। 

কিন্তু গত ১১ আগষ্ট (রবিবার) দুপুর বেলা ৩০/৪০ জন মতো লোক বিভিন্ন ধরনের অস্ত্র শস্ত্রে সজ্জিত হয়ে নুরুল আমিনের বসতবাড়ি ঘেরাও করে ঘরের জানালা, লাইট, পানির ট্যাংকি ও সিঁিড়র উপরে থাকা টিনের ছাদ ভাঙচুর করে। 

ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের সদস্যরা জানায়, এ সময় তারা উপায় না দেখে ৯৯৯ এ কল করে পুলিশের সহযোগিতা চাইলে কর্ণফুলী থানার ওসির নিদের্শে দ্রুত গতিতে এস.আই সতেজ বড়–য়া ও সঙ্গীয় ফোর্স ঘটনাস্থলে গিয়ে বাড়ির লোকদের উদ্ধার করে। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছলে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। 

কর্ণফুলী থানার এস.আই সতেজ বড়–য়া জানান, ‘শিকলবাহা বসত বাড়িতে হামলার ঘটনাটি তদন্ত করা হচ্ছে জড়িত অপরাধীদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’