জেলা সংবাদ

  • বড়াইগ্রামে আমন চাল সংগ্রহ শুরু

    বড়াইগ্রামে আমন চাল সংগ্রহ শুরু

  • আজ উল্লাপাড়া মুক্ত দিবস

    আজ উল্লাপাড়া মুক্ত দিবস

  • রূপগঞ্জ থানার ওসি মনির প্রত্যাহার

    রূপগঞ্জ থানার ওসি মনির প্রত্যাহার

  • ময়মনসিংহে সড়কে প্রাণ গেলো তিনজনের

    ময়মনসিংহে সড়কে প্রাণ গেলো তিনজনের

  • মোংলায় আবারো গ্রীল ভেঙ্গে দুর্ধর্ষ চুরি

    মোংলায় আবারো গ্রীল ভেঙ্গে দুর্ধর্ষ চুরি

চট্টগ্রামের জলাবদ্ধতা নিরসনে সাড়ে ৫ হাজার কোটি টাকার কাজ শুরু

প্রকাশ: ১২ মার্চ ২০১৮

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি

আগামী বর্ষা মৌসুমে নগরীর জলাবদ্ধতাকে কমিয়ে আনার লক্ষ্যে নগরির বিদ্যমান ৩৭টি খালের মধ্যে ১৬টি খালকে খনন, পুনঃখনন ও সংস্কারের কাজ অগ্রাধিকার ভিত্তিতে শুরু করা হবে। প্রাথমিক পর্যায়ে এই খাল গুলো সম্পূর্ণ পরিষ্কার করার পাশাপাশি ৫টি সুইস গেইট নির্মানের কাজ শুরু করা হতে যাচ্ছে। বাংলাদেশ সেনাবাহিনী এই মেগা প্রকল্প বাস্তবায়ন করবে। 


আজ চট্টগ্রাম উন্নয়ন কতৃপক্ষের সভাকক্ষে চট্টগ্রামের জলাবদ্ধতা নিরসনকল্পে খাল পুনঃখনন, সম্প্রসারণ, সংস্কার ও উন্নয়ন প্রকল্পের ৫৬১৬ কোটি টাকার এই মেগা প্রকল্প বাস্তবায়নে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে গঠিত এই মনিটরিং কমিটির সভায় এই স্বিদ্ধান্ত গৃহিত হয়।


গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশারফ হোসেনের সভাপতিত্বে মনিটরিং কমিটির সভায় গৃহায়ন ও গণপূর্ত সচিব মোঃ শহীদ উল্লা খন্দকার, সিডিএ'র চেয়ারম্যান আব্দুচ ছালাম, সেবা বাহিনীর ইঞ্জিনিয়ারিং কোর, চট্টগ্রাম ওয়াসা, চট্টগ্রাম বন্দর কতৃপক্ষ, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন, চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ এবং পানি উন্নয়ন বোর্ডের উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তাগন উপস্থিত ছিলেন।


সভায় গৃহায়ন ও গনপূর্তি মন্ত্রি বলেন, চট্টগ্রাম বাসিকে জলাবদ্ধতা থেকে মুক্তিদিনে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী অগ্রাধিকার ভিত্তিতে দেয়া ৫৬০৬ কোটি টাকার এই মেগা পরিকল্পনা বাস্তবায়ন হলে আগামীতে চট্টগ্রাম নগরি জলাবদ্ধতা থেকে মুক্তি পাবে।


চলতি বর্ষা মৌসুমে নগরির জলাবদ্ধতা হ্রাসে দ্রুত কার্যকর পদক্ষেপ নেয়ার লক্ষ্যে সম্মিলিত ভাবে কাজ করার স্বিদ্ধান্ত গৃহিত হয়। সেই সাথে নগরির পাহাড় কাটা বন্ধ ও খালে ময়লা ফেলা বন্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের পরামর্শ দেয়া। পর্যায়ক্রমে নগরির সব গুলো খালকে অবৈধ দখল মুক্ত করতে দ্রুত কার্যকরি ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে বলে মনিটরিং সভায় স্বিদ্ধান্ত গৃহিত হয়।


মনিটরিং কমিটির সভায় গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী বলন, ইতিপূর্বে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন ভেকু দিয়ে নাম মাত্র খাল থেকে মাটি অপসারণের চিত্র গনমাধ্যমে প্রচার করে নগরবাসিকে দেখানো হয়েছি।  প্রকৃত খাল খনন ও খাল রক্ষায় এখন পর্যন টেকসই কোন কাজ করা হয়নি। সিডিএ'র বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ আছে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, নগরিতে যত্রতত্র অননুমদিত ভবন নির্মিত হলেও সিডিএ'র কার্যকর কোন উদ্যেগ নেই। সেই সাথে নগরির পাহাড় কাটা বন্ধে সিডিএ'র কোন ভূমিকা না থাকার সমালোচনা করেন মন্ত্রী।  এসময় মন্ত্রী সিডিএ'র প্রধান পরিকল্পনাবিদের কাজে জানতে চান, নতুন ভবন নির্মানের ক্ষেত্রে ফুটপাথ থেকে কতটুকু জায়গা খালি রাখার বিধান আছে? প্রধান পরিকল্পনাবিদ জানান, ফুটপাথ থেকে নুন্যতম ৫ফুট জায়গা ছেড়ে ভবন নির্মানের বিধান রয়েছে। এসময় মন্ত্রী পালটা প্রশ্ন করেন, নগরিতে ফুটপাথ থেকে ৫ফুট ছেড়ে আদৌ কয়টি ভবন নির্মিত। এই প্রশ্নের জবাবে নগর পরিকল্পনাবিদ জানান, ইতিমধ্যে নগরির সড়ক গুলোকে প্রসস্থ করতে ভবন মালিকদের কাছ থেকে জমি নেয়া হয়েছে। এরপর যদি আবারো তাদের ৫ ফুট জায়গা ছাড়ার জন্য বলা হয় তাহলে সেটা কেউ মানতে চাইবে না। 


আসন্ন বর্ষা মৌসুমে অগ্রাধির ভিত্তিতে চিহ্নিত ১৬টি খাল খনন, সংস্কারের বিষয়ে স্বিদ্ধান্ত নিতে সিডিএ চেয়ারম্যান সভায় প্রস্তাব উত্থাপন করলেও প্রকল্প বাস্তবায়নকারী সংস্থা সেনাবাহিনীর কর্মকর্তারা এখনই সেই ১৬টি খালের বিষয়ে স্বিদ্ধান্ত জানাতে অপারগতা প্রকাশ করেন। তাঁর মতে, প্রকল্পের পরামর্শক প্রতিষ্ঠানের মতামত এবং পরামর্শের ওপর ভিত্তি করে যত দ্রুত সম্ভব নগরির জলাবদ্ধতা নিরসনে কাজ শুরু করা হবে। সেক্ষেত্রে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে কতটি খাল খনন ও সংস্কার করা হবে সেটা পরবর্তিতে জানা যাবে। সভায় ওয়াসা চেয়ারম্যান জানান, ইতিমধ্যে ওয়াসার উদ্যেগে নগরির সকল খালের যাবতীয় সার্ভে সম্পন্ন করা হয়েছে। এবং জলাবদ্ধতা নিরসনে মাস্টার প্ল্যান বাওওয়াস্তবায়ন করার প্রতি জোর দেন।সিটি কর্পোরেশনের প্রধান প্রকৌশলী চাক্তাই, মহেশখাল, সাবেরিয়া সহ কয়েকটি খালের খননের কাজ ৫০% সম্পন্ন হয়েছে বলে দাবী করেন। বন্দর কতৃপক্ষ কর্ণফুলী নদীর ক্যাপিটাল ড্রেজিং এর কাজ অচিরেই বাস্তবায়ন করা হবে বলে সভাকে অবহিত করেন। সে ক্ষেত্রে খালের আবর্জনা সরাসরি নদীতে পড়া বন্ধে খালের মুখে নেট দেয়ার অনুরোধ করেন।

আরও পড়ুন

টেলিভিশন পর্দায় দেখতে পাবেন ‘হাসিনা: অ্যা ডটারটস টেল’

টেলিভিশন পর্দায় দেখতে পাবেন ‘হাসিনা: অ্যা ডটারটস টেল’

পিতা নেই, কিন্তু পাহাড় সমান পিতার স্বপ্ন আগলে রেখেছেন পরম ...

নির্বাচনী দায়িত্বে থাকবেন ১২৯২ ম্যাজিস্ট্রেট

নির্বাচনী দায়িত্বে থাকবেন ১২৯২ ম্যাজিস্ট্রেট

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সুষ্ঠু ও অবাধ-নিরপেক্ষ করতে নির্বাচন সংশ্লিষ্ট ...

আধুনিক বাংলাদেশের ‘জনক’ শেখ হাসিনা

আধুনিক বাংলাদেশের ‘জনক’ শেখ হাসিনা

গর্বের সাথে এমন একটি লাইন আমাকে লিখতেই হলো। আমি জানি ...

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ জিতবে ১১ কারণে

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ জিতবে ১১ কারণে

বাংলাদেশের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন আগামী ৩০ ডিসেম্বর ২০১৮ তারিখে। ...

নৌকার গণজোয়ার আছড়ে পড়ছে : কাদের

নৌকার গণজোয়ার আছড়ে পড়ছে : কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক পরিবহন সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের ...

বিএনপির আড়াই লাখ নেতাকর্মী গ্রেফতারের শঙ্কা রিজভীর

বিএনপির আড়াই লাখ নেতাকর্মী গ্রেফতারের শঙ্কা রিজভীর

বিএনপির আড়াই লাখ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা হতে পারে বলে শঙ্কা ...

অবৈধ স্বর্ণ বৈধ করার সুযোগ

অবৈধ স্বর্ণ বৈধ করার সুযোগ

ট্যাক্স দিয়ে তারা অবৈধ স্বর্ণ বৈধ করতে পারবেন  দেশের স্বর্ণ ব্যবসায়ীরা। একাদশ ...

নির্বাচনী প্রচারণায় অসুস্থ ডা. জাফরুল্লাহ

নির্বাচনী প্রচারণায় অসুস্থ ডা. জাফরুল্লাহ

সিলেটে নির্বাচনী প্রচারণায় গিয়ে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েছেন গণস্বাস্থ্যের প্রতিষ্ঠাতা ...