বাংলাদেশের বিপক্ষে যেই ম্যাচে লজ্জায় হেলমেট পরেননি কোহলি

প্রকাশ: ২৯ জুলাই ২০২০     আপডেট: ২৯ জুলাই ২০২০ |

নিজস্ব প্রতিনিধি ■ বাংলাদেশ প্রেস

২০১৫ সালের ভারত-বাংলাদেশ সিরিজটি স্মরণীয় হয়ে থাকবে ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলির। যদিও ওই সময় ভারত দলের দায়িত্ব ছিল মাহেন্দ্র সিং ধোনির কাঁধে।

ওই সিরিজে কাটার মাস্টার মোস্তাফিজুর রহমানের দুর্দান্ত বোলিংয়ে বাংলাদেশের কাছে ২-১ ব্যবধানে হেরে যায় ভারত।

তবে কোহলি সিরিজটি মনে ধরে রাখবেন অন্য একটি কারণে। তাহলো সিরিজের একটি ম্যাচে বেশ কয়েক ওভার কিপিং করেছিলেন কোহলি।

আর কিপিংয়ের সময় মাথায় বা নাকে বলের আঘাত লাগার দুশ্চিন্তা করলেও লজ্জায় হেলমেট পরেননি তিনি।

সম্প্রতি ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে সতীর্থ মায়াঙ্ক আগারওয়ালের সঙ্গে আড্ডা জমান কোহলি।

একপর্যায়ে সেই ম্যাচের স্মৃতি রোমন্থন করতে গিয়ে এমনটাই জানালেন কোহলি।

কোহলি বলেন, ‌‘কখনও মাহি (ধোনি) ভাইকে জিজ্ঞেস করে দেখো, কেন আমি ওর জায়গায় কিপিং করেছিলাম। মাহি ভাই এসে বলে-ইয়ার, দু’তিন ওভার একটু কিপিং করে দে। আমি কিপিং করার পাশাপাশি ফিল্ডিংও সাজিয়েছিলাম। তখন বুঝেছিলাম, মাহি ভাইকে কত কী করতে হয়!’

এরপর কোহলি বলেন, ৪৩ ওভারে কিপিং গ্লাভস নিয়েছিলাম আমি। তখন দ্রুত গতির বোলার উমেশ (যাদব) বোলিং করছিল। আর বল ছিল পুরোনো। খেলা হচ্ছিল ফ্লাড লাইটে। বল দেখা আমার জন্য খুব কঠিন হয়ে পড়েছিল। আমার ভয় লাগছিল, এখনই বল না এসে আমার নাকে লাগে! তখন ইচ্ছা করছিল, হেলমেট পরে কিপিং করি। কিন্তু এত পেছনে দাঁড়িয়ে হেলমেট পরে কিপিং করলে লজ্জা পেতে হতো। ভাবলাম, লোকজন হাসবে। বলবে পেসারের বল দেখেই হেলমেট চেয়ে নিল। তাই হেলমেট না নিয়ে গভীর মনোযোগ দিতে হয়েছিল আমাকে। অবশ্য ভিন্ন কিছু করতে পারা দারুণ ছিল।

প্রসঙ্গত ওই সিরিজে প্রথম দুই ওয়ানডেতে দাপটের সঙ্গে জিতেছিল বাংলাদেশ। মিরপুরে প্রথম ওয়ানডেতে ৭৯ রান এবং দ্বিতীয়টিতে ৬ উইকেটের সহজ জয় পায় টাইগাররা। তবে তৃতীয় ম্যাচে ৭৭ রানে হেরে হোয়াইটওয়াশ করা হয়নি আর ভারতকে।