রাজনীতি

খুনিদের পুনর্বাসন প্রকল্প নিয়েছে বিএনপি

প্রকাশ: ০৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯     আপডেট: ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯

নিজস্ব প্রতিনিধি ■ বাংলাদেশ প্রেস

হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদের মৃত্যুর পর শূন্য ঘোষিত রংপুর-৩ আসনের উপনির্বাচনে বিএনপি’র মনোনয়ন দেওয়া নিয়ে আবার বিতর্ক শুরু হয়েছে। যাকে বিএনপি থেকে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে সেই রিটা রহমান হলেন বঙ্গবন্ধু ও জেল হত্যা মামলার অন্যতম আসামি খায়রুজ্জামানের স্ত্রী। ফলে সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড় উঠেছে। বলা হচ্ছে যে, বিএনপি আবার প্রমাণ করলো যে তারা খুনিদের দল, তারা বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতার হত্যাকারীদের পুনর্বাসনে এখনো সক্রিয়। লন্ডনে বসে তারেক রহমান সাহেব মোটা অংকের টাকায় ধানের শীষ প্রতীক বরাদ্দের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতার খুনিদের পোশাক বদল বা চেহারা বদলের সুযোগ করে দিচ্ছেন।     

রংপুর আসনের উপনির্বাচন বিএনপি'র মনোনয়ন নিয়ে সোশ্যাল ও ইলেক্ট্রনিকস মিডিয়ায় একটি কথা ভেসে বেড়াচ্ছে যে বঙ্গবন্ধুর খুনি আনোয়ার পাশার স্ত্রী রিটা রহমানকে বিএনপি প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দিয়েছে। বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলায় লে.ক. আজিজ পাশা নামে একজন আসামি ছিল। যিনি পলাতক অবস্থায় জিম্বাবুয়ে মারা গেছে বলে জানা যায়। আনোয়ার পাশা নামে কোন ব্যক্তি বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার আসামী নয়। আলোচিত রিটা রহমান হলেন বঙ্গবন্ধু ও জেল হত্যা মামলার অন্যতম আসামি খায়রুজ্জামানের স্ত্রী। তিনি রাজাকার ও জিয়াউর রহমানের মন্ত্রীসভার সিনিয়র সদস্য মশিউর রহমান যাদু মিয়ার কন্যা। 

হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদের মৃত্যুর পর শূন্য ঘোষিত রংপুর-৩ আসনের উপনির্বাচনে ২০-দলীয় জোটের শরিক বাংলাদেশ পিপলস পার্টির চেয়ারম্যান রিটা রহমানকে ধানের শীষের মনোনয়ন দিয়েছে বিএনপি। গত রবিবার বেলা ১১টার দিকে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ ব্রিফিংয়ে দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী এ তথ্য জানান। গত শনিবার বিএনপির সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী ফোরাম এ বিষয়ে চূড়ান্ত বৈঠক করে। তবে রিটার মনোনয়নের বিষয়টি গণমাধ্যমকে জানালেন রিজভী আহমেদ। সংবাদ সম্মেলনে রিজভী বলেন, গুলশানে স্থায়ী কমিটির বৈঠক হয়েছে। সেখানে রিটা রহমানকে প্রার্থী করার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত হয়েছে। বৈঠকে লন্ডন থেকে তারেক রহমানও যুক্ত ছিলেন। তফসিল অনুযায়ী, রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়া যাবে ৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত, তা বাছাই হবে ১১ সেপ্টেম্বর, মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ সময় ১৬ সেপ্টেম্বর। এরপর আগামী ৫ অক্টোবর ভোট গ্রহণ করা হবে। 

এদিকে মনোনয়ন পাবার পরে জিয়াউর রহমানের মন্ত্রীসভার সিনিয়র সদস্য ও কুখ্যাত রাজাকার, চৈনিক বাম মসিউর রহমান যাদু মিয়ার বড় মেয়ে রিটা রহমান তার নিজের দল বাংলাদেশ পিপলস পার্টি বিলুপ্ত করে বিএনপিতে যোগ দিয়েছেন। রোববার বাংলাদেশ পিপলস পার্টি এক সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় বলে নিশ্চিত করেছেন রিটা রহমান নিজেই। অবস্থা দেখে অনেকেই বলছেন যে তারেক রহমান ও বিএনপি বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতার খুনিদের পুনর্বাসন প্রকল্প হাতে নিয়ে খুব ঠাণ্ডা মাথায় কাজ করে যাচ্ছেন।