রাজনীতি

  • রাজ্জাক পদত্যাগ করায় ‘ব্যথিত ও মর্মাহত’ বাংলাদেশ জামায়াত

    রাজ্জাক পদত্যাগ করায় ‘ব্যথিত ও মর্মাহত’ বাংলাদেশ জামায়াত

  • নির্বাচনে কারচুপি হলে কেন প্রতিহত করলেন না : বিএনপিকে নাসিম

    নির্বাচনে কারচুপি হলে কেন প্রতিহত করলেন না : বিএনপিকে নাসিম

  • যে কারণে জামায়াত ছাড়লেন ব্যারিস্টার রাজ্জাক

    যে কারণে জামায়াত ছাড়লেন ব্যারিস্টার রাজ্জাক

  • জামায়াত বিলুপ্তির পরামর্শ দিয়ে ব্যারিস্টার রাজ্জাকের পদত্যাগ

    জামায়াত বিলুপ্তির পরামর্শ দিয়ে ব্যারিস্টার রাজ্জাকের পদত্যাগ

  • ব্যক্তিগত চিকিৎসক দিয়ে চিকিৎসার আবেদন

    ব্যক্তিগত চিকিৎসক দিয়ে চিকিৎসার আবেদন

শান্তি-সম্প্রীতি-শিক্ষা-সংস্কৃতি-বেকারমুক্ত কর্মমুখর ও সমৃদ্ধ মহানগর গড়ে তুলবো: নির্বাচনী ইশতেহারে লিটন

প্রকাশ: ১১ জুলাই ২০১৮     আপডেট: ১১ জুলাই ২০১৮

শাহিনুর রহমান সোনা, রাজশাহী জেলা প্রতিনিধি

১০ জানুয়ারি মঙ্গলবার দুপুরে রাজশাহী মহানগর আওয়ামীলীগ অফিসে আওয়ালীগের মেয়রপ্রার্থী ও সাবেক মেয়র এ.এইচ.এম খাইরুজ্জান লিটন আসন্ন ৩০ জুলাই রাসিক নির্বাচনের নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন। 


নির্বচনী ইশতেহার ঘোষণার আগে লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, "আগামী ৩০ জুলাই ২০১৮ রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন নির্বচনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ মনোনীত ও ১৪ দল এবং মহাজোট সমর্থিত একজন মেয়র পদপ্রার্থী হিসেবে বাংলা ও বাঙ্গালীর স্বাধীনতা ও মুক্তির নৌকা প্রতীক নিয়ে আজ আমি আপনাদের সামনে দাঁড়িয়েছি। প্রথমেই আমি আপনাদের সনিষ্ঠ ও স্বতঃস্ফূর্ত উপস্থিতির জন্য আন্তরিক ধন্যবাদ জানাচ্ছি।
তিরিশ লক্ষ প্রাণ ও লক্ষ লক্ষ মা বোনের সম্ভ্রমের বিনিময়ে অর্জিত আমাদের বাংলাদেশের শান্তি স্থিতিশীলতা ও অগ্রগতির একমাত্র ঠিকানা বিশ্বমানবতার জননী প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ সর্বক্ষেত্রে এগিয়ে যাচ্ছে। অগ্রগতির সর্বসূচকে এগিয়ে যাওয়া বাংলাদেশ বিশ্ব দরবারে আজ উন্নয়নের রোল মডেল। এ আমাদের গর্ব ও অহংকার। উন্নয়ন ও অগ্রগতির এ ধারাবাহিকতায় রাজশাহীকে যুক্ত করা ছাড়া রাজশাহীবাসীর আর কোন বিকল্প নেই। 
২০০৮-২০১৩ মেয়াদে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র হিসেবে আপনাদের সবার সহযোগিতায় নানা কারণে উত্তরাঞ্চলের অবহেলিত অথচ গুরুত্বপূর্ণ এ নগরীর সকল সূচকে উন্নয়ন ও অগ্রগতির যে গৌরব অর্জন করেছিলাম তা আজ প্রায় শুন্যের কোঠায়। বাংলাদেশসহ পৃথিবীর বুকে যে শহর শান্তি সম্প্রীতি সমৃদ্ধি এবং পরিস্কার পরিচ্ছন্ন শ্যামল সবুজে বসবাসযোগ্য নগরীর মর্যাদায় অধিষ্ঠিত হয়েছিল। তাকে আজ পুনরুদ্ধার করতে হবে।
আমার পিতা আপনাদের প্রিয় হেনা ভাই। তিনি তাঁর প্রিয় শহর হযরত শাহ্ মখদুম রুপোশ(রহ.) এর পবিত্র মাটিতে ঠাঁই নিয়েছেন। স্বামীহারা আমার দুখিনি মা জাহানারা জামানও আমার পিতার পাশে শায়িত আছেন। পিতৃ মাতৃহীন একজন এতিম সন্তান হিসেবে আপনারা রাজশাহীবাসীই আমার অভিভাবক।
মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার স্নেহচ্ছায়া এবং আপনাদের পিতৃমাতৃতুল্য অভিভাবকত্ব ছাড়া আজ আমার কোনো অবলম্বন নেই। আপনাদের স্নেহচ্ছায়া এবং পিতৃমাতৃতুল্য অভিভাবকত্বই আমার জীবনে পাথেয়। আগামী নির্বাচনে আমি আপনাদের প্রত্যেকের দোয়া ও আশীর্বাদ প্রার্থী। আমার পিতা,পিতামহ এবং প্রপিতামহের মত আমিও আপনাদের সুখদুঃখের সঙ্গে ছিলাম, আছি এবং চিরজীবন থাকবো। আপনাদের সহানুভূতি সহমর্মিতা ও আন্তরিক সহযোগিতায় আমি রাজশাহীকে উত্তরাঞ্চল তথা সমগ্র দেশের মধ্যে শান্তি ও সম্প্রীতি, শিক্ষা ও সংস্কৃতি, বেকারমুক্ত কর্মমুখরতার উজ্জীবনে উন্নত ও সমৃদ্ধ আধুনিক মহানগরী হিসেবে গড়ে তুলবো ইনশাআল্লাহ্। এ আমার অঙ্গীকার। "

অনুষ্ঠানে নির্বাচনী ইশতেহার পাঠ করেন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ, রাজশাহী বিশ্ব বিদ্যলয়ের সাবেক ভিসি প্রফেসর আবদুল খালেক। ১৫ দফা ইশতেহারের মধ্যে কর্মসংস্থান, শিক্ষা,স্বাস্থ্য,আবাসন, অবকাঠামো,পরিবেশ, যোগাযোগ, ক্রীড়া সংস্কৃতি ও নাগরিক কেন্দ্র, নারী উন্নয়ন,প্রবীণ নাগরিক, প্রতিবন্ধী উন্নয়ন, মুক্তিযুদ্ধ ও ঐতিহ্য সংরক্ষণ, স্বনির্ভর সিটি কর্পোরেশন ও হোল্ডিং ট্যাক্স কমানোসহ বিভিন্ন দফা বিশদভাবে আলোচনা করেন তিনি।

এসময় বিভিন্ন মিডিয়ার প্রায় দুইশতাধিক সাংবাদিকসহ ভাষাসৈনিক মোশারফ আকুঞ্জী,আবুল হোসেন,মুক্তিযোদ্ধা রুহুল আমিন প্রামানিক,সাবেক ভিসি সাইদুর রহমান,মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার ও বিভিন্ন সামাজিক -রাজনৈতিক-সাংস্কৃতিক নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন

ইয়াবাকারবারিদের আত্মসমর্পণ: সাড়ে তিন লাখ ইয়াবা ও ৩০ অস্ত্র জমা

ইয়াবাকারবারিদের আত্মসমর্পণ: সাড়ে তিন লাখ ইয়াবা ও ৩০ অস্ত্র জমা

আত্মসমর্পণ করেছেন টেকনাফের ১০২ জন ইয়াবাকারবারি। শনিবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ...

পায়রায় ৩৬০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপনে সিমেন্সের সঙ্গে চুক্তি

পায়রায় ৩৬০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপনে সিমেন্সের সঙ্গে চুক্তি

জার্মানিতে সিমেন্স এজির সঙ্গে যৌথ উন্নয়ন চুক্তি স্বাক্ষর করেছে নর্থ ...

আখেরি মোনাজাতে শেষ হলো যোবায়েরপন্থিদের ইজতেমা

আখেরি মোনাজাতে শেষ হলো যোবায়েরপন্থিদের ইজতেমা

টুঙ্গীর তুরাগ নদীর তীরে আখেরি মোনাজাতে দেশ ও জাতির কল্যাণ ...

প্রধানমন্ত্রীকে ৯৮ দেশের সরকার ও রাষ্ট্রপ্রধান, আন্তর্জাতিক সংস্থার অভিনন্দন

প্রধানমন্ত্রীকে ৯৮ দেশের সরকার ও রাষ্ট্রপ্রধান, আন্তর্জাতিক সংস্থার অভিনন্দন

৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিপুল বিজয় অর্জনের ...

মুজিব বর্ষ উদযাপন কমিটিতে সালাউদ্দিন-মাশরাফি

মুজিব বর্ষ উদযাপন কমিটিতে সালাউদ্দিন-মাশরাফি

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন জাতীয় কমিটিতে ডাক পেয়েছেন ...

ড. ওয়াজেদ মিয়ার জন্মবার্ষিকী আজ

ড. ওয়াজেদ মিয়ার জন্মবার্ষিকী আজ

বঙ্গবন্ধুর জ্যেষ্ঠ জামাতা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বামী পরমাণু বিজ্ঞানী ...

থেমে গেল অবিনশ্বর কবিকণ্ঠ

থেমে গেল অবিনশ্বর কবিকণ্ঠ

'কবিতা তো কৈশোরের স্মৃতি। সেতো ভেসে ওঠা ম্লান/ আমার মায়ের ...

দেশে ফিরে আসার শর্তে শিক্ষাবৃত্তি দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

দেশে ফিরে আসার শর্তে শিক্ষাবৃত্তি দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার “প্রধানমন্ত্রী ফেলোশিপ ২০১৯” ঘোষণা করেছে যার আওতায় ...