রাজনীতি

  • খালেদা জিয়ার হাঁটু ও পায়ের ব্যথা বেড়েছে : রিজভী

    খালেদা জিয়ার হাঁটু ও পায়ের ব্যথা বেড়েছে : রিজভী

  • 'গভীর রাতে ছাত্রীদের হল থেকে বের করে দেওয়া ন্যাক্কারজনক'

    'গভীর রাতে ছাত্রীদের হল থেকে বের করে দেওয়া ন্যাক্কারজনক'

  • ছাত্রলীগকে নতুন করে সাজানো হবে: সেতুমন্ত্রী

    ছাত্রলীগকে নতুন করে সাজানো হবে: সেতুমন্ত্রী

  • দুই সিটিতে ২০ দলের নির্বাচন সমন্বয় কমিটি গঠন

    দুই সিটিতে ২০ দলের নির্বাচন সমন্বয় কমিটি গঠন

  • রনিকে ছাত্রলীগ থেকে অব্যাহতি

    রনিকে ছাত্রলীগ থেকে অব্যাহতি

'নির্বাচন কমিশনের সেনাবাহিনী নিয়োগের কোন ক্ষমতা নেই'

প্রকাশ: ০৮ এপ্রিল ২০১৮     আপডেট: ০৮ এপ্রিল ২০১৮

বাংলাদেশ প্রেস ডেস্ক

আগামী জাতীয় নির্বাচনে সেনা মোতায়েনের পক্ষে নিজের অবস্থান জানালেও এ বিষয়ে নির্বাচন কমিশনের হাত নেই বলে মন্তব্য করেছেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।


রোববার রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে এক আলোচনা অনুষ্ঠান শেষে আগামী জাতীয় নির্বাচনে সেনা মোতায়েনের বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়ার ভার পুরো নির্বাচন কমিশনের বলে মন্তব্য করেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশন কে এম নূরুল হুদা। এর কয়েক ঘন্টা পর রাজধানীর রমনার ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউট মিলনায়তনে এক সেমিনারে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন ওবায়দুল কাদের।


তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশনের দায়িত্ব আর সরকারের দায়িত্বটা সংবিধান ঠিক করে রেখেছে। আমাদের সংবিধানে সব আছে। এখানে সংবিধান বহির্ভুত কিছু কারার সুযোগ নেই। নির্বাচন কালীল সময়ে নির্বাচন কমিশন দায়িত্ব পালন করবে, তখন আইনপ্রয়োগকারী সংস্থা নির্বাচন কমিশনের অধিনে চলে যাবে। কিন্তু সেনাবাহিনী প্রতিরক্ষা মন্ত্রনালয়ের অধিনে থাকবে। সেনাবাহিনী কিন্তু নির্বাচন কমিশনের অধিনে যাবে না। নির্বাচন কমিশন যদি প্রয়োজন মনে করে আইনপ্রয়োগকারী সংস্থা নির্বাচনে দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ যদি হয়, সে অবস্থায়  নির্বাচন কমিশন সরকারকে অনুরোধ করতে পারে।

তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশনের সেনাবাহিনী নিয়োগের কোন ক্ষমতা নেই। তারা অনুরোধ করতে পারবেন সরকার বাস্তবতা যেটা আছে, বাস্তব বা প্রয়োজন এবং অবস্থা অনুযায়ী সেনাবাহিনী অনেক সময় স্টাইকিং ফোর্স হিসেবে কাজ করে। যদি প্রয়োজন হয় তারা স্টাইকিং ফোর্স হিসেবে কাজ করতে পারে এখানে ম্যাজিস্ট্রেসি পাওয়ার দেওয়া হবে কি না এটা নির্ধারণ করবে সরকার বাস্তব পরিস্থিতির প্রয়োজনে।

বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার চিকিৎসার নামে সরকার নাটক করছে বিএনপির এমন অভিযোগের জবাবে কাদের বলেন, তাকে বঙ্গবন্ধু মেডিকেলে জোর করে নিয়ে আসার কি প্রয়োজন? এতে অনেক আইন প্রয়োগকারী সংস্থার লোকদের মুভ করতে হয়। এখানে হ্যাসেলেরও সম্ভাবনা থাকে। বিএনপির নেতাকর্মীরা তো হ্যাসেল একটা করতে চায়, তারা জানান দিতে চায় আমরা মাঠে আছি।

তিনি বলেন, নিশ্চই চিকিৎসকরা প্রয়োজন মনে করেছেন এবং সেখানে তার ব্যক্তিগত চিকিৎসকরা তাকে দেখেছেন। এখন যদি এটা না করতো। তাহলে যদি এর জন্য বেগম জিয়ার শারিরিক অবস্থার অবনতি হতো, তখন কি হতো বলেন?  এখন এটা করলেও দোষ ওটা করলেও দোষ এখানে একটা ভালোই হলো তারা যেসব খুঁজখবর দিচ্ছিলেন। জেলে যাওয়ার সময় তিনি যেমন ছিলেন তার থেকে এখন ভালই তো দেখাচ্ছিল। এটাও একটা ভালো, দেশের মানুষ দেখলো। তিনি সুস্থ আছেন ভালো আছেন। ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন এটা আমরাও চাই। 

পাশের দেশ ভারতের সাথে তুলনা করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, তাদের দেশে বিধান সভার নির্বাচনের প্রধানমন্ত্রী প্রচারে নামতে পারলে আমরা কেন পারবো না, এ বিষয় নিয়ে ইসির সাথে কথা আছে।

স্থানীয় নির্বাচনেও মন্ত্রী এমপিরা যাতে ক্যম্পেইন করতে পারে এর জন্য অতিশিগ্রই ইসির সাথে বৈঠকে বসবে আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতারা।

এ বিষয়ে আওয়ামী রীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, পাশের দেশ ভারতে বিধান সভার নির্বাচনের সময় সে দেশের প্রধানমন্ত্রী ক্যাম্পেইনে অংশ নিতে পারে। আমাদের প্রধানমন্ত্রী, এমপিরা কেন স্থানীয় সরকারের নির্বাচনে ক্যম্পেইন করতে পারবে না। এ বিষয়ে নির্বাচন কমিশনের সাথে কথা আছে। এমন কি অসুবিধা যে, এমপিরা স্থানীয় সরকার নির্বাচনেও ক্যম্পেইন করতে পারবে না। এ বিষয়ে ইসির সাথে সিরয়িাসলি আলোচনা করতে চাই। আমাদের কথা গুলো তাকে জানাবো। খুব শিগ্গিরই আওয়ামী লীগের একটা প্রতিনিধি দল নির্বাচন কমিশনে  যাবে, কথা বলতে।

সাবেক রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ জমিরের সভাপতিত্বে আওয়ামী লীগের আন্তর্জাতিক বিষয়ক উপ-কমিটির সভায় বক্তব্য রাখেন দলের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য খারুক খান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক দীপু মনি, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক শাম্মী আহম্মেদ প্রমুখ।


আরও পড়ুন

ইউপিডিএফ এর হুমকিতে উদ্বাস্তু ৩৮ পরিবার, প্রশাসনের ত্রাণ বিতরণ

ইউপিডিএফ এর হুমকিতে উদ্বাস্তু ৩৮ পরিবার, প্রশাসনের ত্রাণ বিতরণ

ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ প্রসীত গ্রুপ) এর নির্যাতন ও ...

মোংলা বন্দরে অবস্থানরত বিদেশী জাহাজে বিশুদ্ধ খাবার পানি সরবরাহে চরম সংকট

মোংলা বন্দরে অবস্থানরত বিদেশী জাহাজে বিশুদ্ধ খাবার পানি সরবরাহে চরম সংকট

মোংলা বন্দরে অবস্থানরত বিদেশী বাণিজ্যিক জাহাজে বিশুদ্ধ খাবার পানি সরবরাহে ...

থাইল্যান্ডে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৬

থাইল্যান্ডে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৬

থাইল্যান্ডের পূর্বাঞ্চলীয় সা কায়ো প্রদেশে একটি পিক-আপ ট্রাক রাস্তার পাশে ...

খালেদা জিয়ার হাঁটু ও পায়ের ব্যথা বেড়েছে : রিজভী

খালেদা জিয়ার হাঁটু ও পায়ের ব্যথা বেড়েছে : রিজভী

'কারাগারে খালেদা জিয়ার হাঁটু ও পায়ের ব্যথা আরও বেড়ে গেছে। ...

'ফেসবুকে অপতথ্য প্রচার করায় ৩ ছাত্রীকে অভিভাবকদের হাতে দেয়া হয়'

'ফেসবুকে অপতথ্য প্রচার করায় ৩ ছাত্রীকে অভিভাবকদের হাতে দেয়া হয়'

ফেসবুকে অপতথ্য প্রচার করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়কে (ঢাবি) অস্থিতিশীল করার চেষ্টা ...

নেপালে এবার রানওয়ে থেকে ছিটকে পড়ল মালয়েশীয় বিমান

নেপালে এবার রানওয়ে থেকে ছিটকে পড়ল মালয়েশীয় বিমান

নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এবার ছিটকে পড়লো মালয়েশিয়ার ...

'গভীর রাতে ছাত্রীদের হল থেকে বের করে দেওয়া ন্যাক্কারজনক'

'গভীর রাতে ছাত্রীদের হল থেকে বের করে দেওয়া ন্যাক্কারজনক'

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ছাত্রীদেরকে গভীর রাতে হল থেকে বের করে ...

কিউবার নতুন প্রেসিডেন্ট দিয়াস-কানেলের শপথ গ্রহণ

কিউবার নতুন প্রেসিডেন্ট দিয়াস-কানেলের শপথ গ্রহণ

কিউবার নতুন প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নিয়েছেন মিগেল দিয়াস-কানেল। রাউল ক্যাস্ত্রোর ...