রাজনীতি

  • আজও পলাশীর পদধ্বনী শোনা যাচ্ছে : মোস্তফা

    আজও পলাশীর পদধ্বনী শোনা যাচ্ছে : মোস্তফা

  • মোংলায় আওয়ামী লীগের ৬৮তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপিত

    মোংলায় আওয়ামী লীগের ৬৮তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপিত

  • নড়াইলে স্বেচ্ছাসেবক লীগের কর্মিসভা অনুষ্ঠিত

    নড়াইলে স্বেচ্ছাসেবক লীগের কর্মিসভা অনুষ্ঠিত

  • নড়াইলে আওয়ামী লীগের ৬৯ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে নানা কর্মসূচির আয়োজন

    নড়াইলে আওয়ামী লীগের ৬৯ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে নানা কর্মসূচির আয়োজন

  • আওয়ামী লীগের নিজস্ব ভবন উদ্বোধন করেছেন  শেখ হাসিনা

    আওয়ামী লীগের নিজস্ব ভবন উদ্বোধন করেছেন শেখ হাসিনা

৫ নেতাকে লন্ডনে ডেকেছেন তারেক যে কারণে

প্রকাশ: ১০ মার্চ ২০১৮

বাংলাদেশ প্রেস ডেস্ক

বেগম জিয়া দণ্ডপ্রাপ্ত হয়ে কারাগারে যাবার পর বিএনপির জন্য সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে পড়েছে দলীয় ভাঙন ঠেকানো, জোট টিকিয়ে রাখা এবং খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে নির্বাচনে অংশগ্রহণ। দিন যতই গড়াচ্ছে চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় বিএনপির ব্যর্থতা ততই স্পষ্ট হতে শুরু করেছে। তাই অনেকেই বলতে শুরু করেছেন নির্বাচন ও আন্দোলন প্রশ্নেই বিভক্ত হচ্ছে বিএনপি ও জোট এবং খালেদা জিয়াকে ছাড়াই নির্বাচনে যাচ্ছে বিএনপির একপক্ষ।


মূলত বাস্তবতার খাতিরে শেখ হাসিনার অধীনে ও আইনগত কারণে বেগম জিয়াকে ছাড়াই নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে হলেও বিএনপির একটি পক্ষ যেকোন মূল্যে ২০১৪ সালের মতো ভুল না করে এবার অবশ্যই নির্বাচনে অংশগ্রহণ করার প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে জানা গেছে। আরেকটি পক্ষ সেই পুরনো সুরেই গান গাইছেন এখনো। তারা শেখ হাসিনার অধীনে এবং খালেদা জিয়াকে ছাড়া নির্বাচনে না যাওয়ার ব্যাপারে দৃঢ় প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। প্রয়োজনে যারা বেগম জিয়াকে ছাড়া এবং শেখ হাসিনার অধীনে নির্বাচনে যাবে তাদের দলে অবাঞ্ছিত এমনকি বহিস্কারের সিদ্ধান্তও গৃহীত হয়েছে বলে একটি গোপন সূত্র নিশ্চিত করেছে। জানা যায়, রিজভীর নেতৃত্বে এই গ্রুপটির প্রতি তারেক রহমানের পূর্ণ সমর্থন রয়েছে। তাই নির্বাচনের আগেই বিএনপি বিভক্ত হবার বিষয়টি প্রায় নিশ্চিতই বলা যায়।


অন্যদিকে, ভোটের মাঠে ২০ দলীয় জোট থাকবে না, তাও প্রায় নিশ্চিত। নানারকম হিসেব-নিকেশে জোটের মেরুকরণও কিছুটা জটিল হয়ে পড়েছে। ২০ দলে জামায়াত থাকায় একদিকে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সমর্থন না পাওয়া ও অন্যদিকে নাগরিক ঐক্য, গণফোরাম, বিকল্পধারা, এলডিপি ও জাসদসহ বামমোর্চার দলগুলোর ২০ দলে অন্তর্ভুক্ত হতে রাজি না থাকায় জামায়াতকে আলাদা রেখেই অন্য আরেকটি জোট গঠন অনেক দূর এগিয়ে গেছে। তাই জামায়াতের নির্বাচনী জোটে না থাকার বিষয়টি প্রায় চূড়ান্ত।


এছাড়া মহাজোট থেকে বেরিয়ে জাতীয় পার্টির নেতৃত্বে নতুন নির্বাচনী জোট আত্মপ্রকাশের প্রস্তুতি চলছে। এ কারণেই হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদকে ইদানিং সরকারের সমালোচনায় সরব হতে দেখা যাচ্ছে। এরশাদ আগামী নির্বাচনে ইসলামপন্থী দলগুলোর নেতৃত্ব দেবে- এটা প্রায় নিশ্চিত। ২০ দলীয় জোট থেকে খেলাফত আন্দোলনসহ অন্তত সাতটি ইসলামী দল বেরিয়ে যাওয়ার কথা রয়েছে। জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান জি এম কাদের বলেছেন, ‘আগামী নির্বাচনে জাতীয় পার্টির নেতৃত্বে জোট হবে সবচেয়ে বড় চমক। এই জোট হবে ইসলামী আশা-আকাঙ্ক্ষার ফসল। জি এম কাদের আশা করছেন হেফাজতে ইসলামও তাদের জোটে যোগ দেবে।


নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক বিএনপি নেতা বলেন, ‘জোট ভাঙা, বিএনপি ভাঙা এবং বেগম জিয়াকে ছাড়া নির্বাচনে যাওয়া–  একই সূত্রে গাঁথা এবং বিএনপির এই পক্ষই বিজয়ী হতে যাচ্ছে। খালেদা জিয়া নির্বাচন করতে পারছেন না বিষয়টি প্রায় নিশ্চিত। সে কারণে তাকে ছাড়াই বিএনপিতে নির্বাচনের প্রস্তুতি শুরু হয়ে গেছে। সঙ্গে শুরু হয়েছে জামায়াতবিহীন জোট মেরুকরণের প্রক্রিয়াও।

আরও পড়ুন

ঝিনাইদহে ভুমি দস্যুরা বেপরোয়া জাল পরচা তৈরী করে কোটি টাকার জমি রেজিষ্ট্রি খুনোখুনির আশংকা

ঝিনাইদহে ভুমি দস্যুরা বেপরোয়া জাল পরচা তৈরী করে কোটি টাকার জমি রেজিষ্ট্রি খুনোখুনির আশংকা

অসৎ উদ্দেশ্যে সরকার নির্ধারিত হারের চেয়ে উচ্চ মুল্যে জমি রেজিষ্ট্রির ...

যশোরে সন্ত্রাসীদের বোমা হামলায়  যুবলীগ নেতা  আরাফাত রহমান লিটন নিহত

যশোরে সন্ত্রাসীদের বোমা হামলায় যুবলীগ নেতা আরাফাত রহমান লিটন নিহত

যশোরে সন্ত্রাসীদের বোমা হামলায় ও ছুরিকাঘাতে আরাফাত রহমান লিটন (৩২) ...

কক্সবাজার সৈকতে আরাফাত'র অকাল মৃত্যু : একটি দূর্ঘটনা সারা জীবনের কান্না

কক্সবাজার সৈকতে আরাফাত'র অকাল মৃত্যু : একটি দূর্ঘটনা সারা জীবনের কান্না

আমেরিকান প্রবাসী মোহাম্মদ আলী আরাফাত সদ্য স্কলারশীপ শেষ করে মা ...

চুক্তি হওয়ার পরও উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ বাড়াল আমেরিকা

চুক্তি হওয়ার পরও উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ বাড়াল আমেরিকা

উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উনের সঙ্গে সাক্ষাৎ ও চুক্তি সই ...

বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে রাজধানীর ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে জাতির জনক ...

পার্কে শিক্ষার্থী গণধর্ষণের ঘটনায় ৩জনের স্বীকারোক্তি; ৭দিনের রিমান্ড আবেদন

পার্কে শিক্ষার্থী গণধর্ষণের ঘটনায় ৩জনের স্বীকারোক্তি; ৭দিনের রিমান্ড আবেদন

খাগড়াছড়িতে জেলা হর্টিকালচার পার্কে স্কুল শিক্ষার্থীকে গণধর্ষণের ঘটনায় আটক ৫জনের ...

সড়ক দুর্ঘটনায় ৩৫ জন নিহত-আট জেলায়

সড়ক দুর্ঘটনায় ৩৫ জন নিহত-আট জেলায়

দেশের বিভিন্ন স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় ৩৫ জন নিহত হয়েছেন। এতে আহত হয়েছেন ...

সেলফি তুলতে গিয়ে হাতিয়ার চেয়ারম্যান ঘাটের পন্টুন থেকে পড়ে এক কলেজ শিক্ষার্থীর মৃত্যু

সেলফি তুলতে গিয়ে হাতিয়ার চেয়ারম্যান ঘাটের পন্টুন থেকে পড়ে এক কলেজ শিক্ষার্থীর মৃত্যু

নোয়াখালীর হাতিয়ায় বেড়াতে গিয়ে পন্টুনে দাঁড়িয়ে সেলফি তোলার সময় মেঘনা নদীতে ...