অন্যান্য

  • জনতা শুনতে চায় গান-সংলাপ, নায়িকা দিলেন ভাষণ

    জনতা শুনতে চায় গান-সংলাপ, নায়িকা দিলেন ভাষণ

  • কষ্ট তাকে দমাতে পারেনি, ট্যলেন্টপুলে বৃত্তি পেলো ক্ষুদে মেধাবী: সাহিল

    কষ্ট তাকে দমাতে পারেনি, ট্যলেন্টপুলে বৃত্তি পেলো ক্ষুদে মেধাবী: সাহিল

  • সিরাজুম মুনিরা গুরুতর অসুস্থ

    সিরাজুম মুনিরা গুরুতর অসুস্থ

  • হারিয়ে যাওয়া ফোন উদ্ধার করলেন সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার

    হারিয়ে যাওয়া ফোন উদ্ধার করলেন সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার

  • এভারেস্টে পাওয়া যাচ্ছে একের পর এক মৃতদেহ

    এভারেস্টে পাওয়া যাচ্ছে একের পর এক মৃতদেহ

শিশু ও মাদক

প্রকাশ: ০৯ জুন ২০১৮     আপডেট: ০৯ জুন ২০১৮

আসমাউল মুত্তাকিন, দিনাজপুর প্রতিনিধি

বাংলাদেশ একটি জনবহুল দেশ।এই জনবহুল দেশে উল্লেখ্যযোগ্য একটা অংশ শিশু।পরিসংখ্যা বলতেছে শিশু বাংলাদেশে প্রায় ২ কোটি (অনুমানিক)।এই ২ কোটির মধ্যে আবার ৭ লাখ সুবিধাবঞ্চিত শিশু রয়েছে।এদেরকে পথশিশু বলা হয়।কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য এ ৭ লাখ পথশিশু বিভিন্নভাবে মাদকাসক্ত। বাংলাদেশ শিশু অধিকার ফোরামের তথ্য মতে পথশিশুদের ৮৫ ভাগই কোনো না কোনোভাবে মাদক সেবন করে।এদের মধ্যে ১৯ শতাংশ হেরোইন,৪৪ শতাংশ ধুমপান,২৮ শতাংশ বিভিন্ন ট্যাবলেট ও ৮ শতাংশ ইনজেকশনের মধ্যমে নেশা করে।

জাতীয় মানসিক স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউশনের পরিসংখ্যা মতে,বাংলাদেশের সকল বিভাগে প্রায় ৩০ শতাংশ ছেলে এবং ১৭ শতাংশ মেয়ে মাদক সেবন করে।এই সব শিশুদের অধিকাংশে বয়স ১০ থেকে ১৭ বছর। এ শিশুদের অধিকাংশ দেখা মেলে নগরী বিভিন্ন বস্তি ও রেললাইনসহ বিভিন্ন পরিত্যাগ স্থানে।




বিশেষ করে নগরীর রেলওয়ে স্টেশনে এলাকায় দিনরাত বেশিরভাগ সময় অসংখ্য পথশিশু নেশায় ডুবে থাকে।এদের থাকার কোন স্থান নেই।সারাদিন রেলস্টেশনে থাকে।কাগজ বা কোনখানে শ্রমদিয়ে যা পারিশ্রমিক পায় তা দিয়ে মাদক কিনে সেবন করে।বর্তমানে এসব শিশুদের সংখ্যা দিন দিন বেড়ে চলতেছে।


এভাবে অল্পবয়সে তারা বিভিন্ন অপরাধ,অশীলকর্মকান্ডে লিপ্ত হচ্ছে ও মাদক সেবন করতেছে।ফলে শিশুদের অল্পবয়সে তাদের সুন্দর ভবিষ্যৎ নস্ট হচ্ছে।


এইসব শিশুদের মাদক থেকে মুক্ত করতে হলে অবশ্যই পথশিশুদের মাদকের কুফল এবং বাংলাদেশে মাদক সেবন করলে যে আইনে কঠোর শাস্তি দেওয়া হয় তা শিশুদের বোঝাতে হবে।সর্বোপরি শিশু সামনে কোনো মাদক খাওয়া যাবে না।আর হে,নিজে মাদক সেবন করব না এবং অন্যকেও করতে দিব না।তাইলে ইনশাআল্লাহ পথশিশুরা মাদকের হাত থেকে বেচে যাবে।


পরবর্তী খবর পড়ুন : সাতক্ষীরায় পুলিশের সাজানো বন্দুকযুদ্ধে স্বামীর হত্যার বিচার চেয়ে স্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন


শার্শায় পা হারানো নিপা পেল ট্যালেন্টপুলে বৃত্তি

শার্শায় পা হারানো নিপা পেল ট্যালেন্টপুলে বৃত্তি

হাসপাতালের কষ্টের বিছানায় মেয়ের পাশে নিরবে বসেছিলেন বাকরূদ্ধ বাবা-মা। এর ...

পিরোজপুরে স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

পিরোজপুরে স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলা নির্বাচনী সংহিসতায় হলতা-গুলিশাখালী ইউনিয়নের জনি তালকুদার নামে ...

উপজেলা নির্বাচন আগের তুলনায় অনেক ভালো হয়েছে: হাছান মাহমুদ

উপজেলা নির্বাচন আগের তুলনায় অনেক ভালো হয়েছে: হাছান মাহমুদ

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, এবারের উপজেলা নির্বাচন আগের তুলনায় ...

মৌলভীবাজারে একই পরিবারের ৫ জনের ইসলাম গ্রহণ

মৌলভীবাজারে একই পরিবারের ৫ জনের ইসলাম গ্রহণ

মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার হিন্দু ধর্মাবলম্বী একই পরিবারের ৫ জন ইসলাম ...

টেকনাফে রোহিঙ্গা শিবিরের চেয়ারম্যানকে গুলি করলো দুর্বৃত্তরা

টেকনাফে রোহিঙ্গা শিবিরের চেয়ারম্যানকে গুলি করলো দুর্বৃত্তরা

কক্সবাজারের সীমান্ত উপজেলা টেকনাফের লেদা রোহিঙ্গা শিবিরের ডেভেলপমেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান ...

দুই দেশের সম্প্রীতির সাইকেল শোভাযাত্রার দল বাংলাদেশে

দুই দেশের সম্প্রীতির সাইকেল শোভাযাত্রার দল বাংলাদেশে

মাদকমুক্ত সমাজ গড়ার প্রত্যয় নিয়ে ভারত-বাংলাদেশ ওয়াল্টন সম্প্রীতির সাইকেল শোভাযাত্রা ...

হাসপাতালের শুয়েই কোচিং শিক্ষকের অপর্কমের ফিরিস্তি দিলো সেই ছাত্রী!

হাসপাতালের শুয়েই কোচিং শিক্ষকের অপর্কমের ফিরিস্তি দিলো সেই ছাত্রী!

হাত-পায়ের ব্যান্ডেজ নিয়ে হাসপাতালের বিছানায় শুয়ে যন্ত্রণায় কাতরাচ্ছে ১৩ বছরের ...

ভূরুঙ্গামারীর ৩ লাখ লোকের জন্য মাত্র ৩ জন চিকিৎসক

ভূরুঙ্গামারীর ৩ লাখ লোকের জন্য মাত্র ৩ জন চিকিৎসক

কুড়িগ্রামের ভূরুঙ্গামারীতে ৩ লাখ লোকের চিকিৎসা চলছে মাত্র তিনজন চিকিৎসক ...