• নাইকো মামলার ইতিবৃত্ত

    নাইকো মামলার ইতিবৃত্ত

  • ড. কামাল নাকি জোবায়দা: কে হচ্ছেন বিএনপি’র নতুন চেয়ারপারসন?

    ড. কামাল নাকি জোবায়দা: কে হচ্ছেন বিএনপি’র নতুন চেয়ারপারসন?

  • বিএনপি জামায়াতের আমলনামাঃ পর্ব ২- প্রফেসর ইউনুস হত্যাকাণ্ড

    বিএনপি জামায়াতের আমলনামাঃ পর্ব ২- প্রফেসর ইউনুস হত্যাকাণ্ড

  • সেই দলছুট ভাইবার মান্না এখন…

    সেই দলছুট ভাইবার মান্না এখন…

  • বিএনপি-জামায়াতের আমলনামাঃ পর্ব ১- অধ্যক্ষ গোপাল কৃষ্ণ মুহুরী হত্যাকাণ্ড।

    বিএনপি-জামায়াতের আমলনামাঃ পর্ব ১- অধ্যক্ষ গোপাল কৃষ্ণ মুহুরী হত্যাকাণ্ড।

দশ ট্রাক অস্ত্র মামলা ও উলফাকে সহযোগিতায় ধরাশায়ী বিএনপি

প্রকাশ: ১১ জুলাই ২০১৮

বাংলাদেশ প্রেস

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জয়ী হওয়ার লক্ষ্যে সম্প্রতি বিএনপি নেতাদের ভারত সফর ব্যর্থ হয়েছে। জানা গেছে, বিএনপি-ভারত সম্পর্ক তৈরির পেছনে প্রধান অন্তরায় হয়ে দেখা দিয়েছে বিএনপির শাসন আমলে চট্টগ্রামের দশ ট্রাক অস্ত্রের চালান ধরা পড়া। যা তারেক রহমান ও জামায়াতে ইসলামীর ছত্রছায়ায় সংঘটিত হয়েছিলো।


সূত্র জানায়, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জয়ী হওয়ার লক্ষ্যে বিএনপি ভারতকে পক্ষে নেয়ার জন্য সর্বাত্মক চেষ্টা চালায়। কিন্তু বিএনপির শাসনামলে চট্টগ্রামে সংঘটিত দশ ট্রাক অবৈধ অস্ত্রের ঘটনায় ভারত বিএনপির উপর আস্থা হারায় বিএনপি। যার ফলে ভারত বিএনপিকে কোনরূপে সহযোগিতা করার জন্য আশ্বস্ত করেনি। এমনকি চট্টগ্রামে উক্ত অস্ত্র নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন উলফাকে দেয়ার ব্যাপারেও বিএনপি ও জামায়াতের সহযোগিতা ও সম্পৃক্ততার প্রমাণ মিলে। ফলে বিএনপির মতো একটি সন্ত্রাসী সংগঠনকে সহযোগিতার বিষয়ে ভারত কোনো ঝুঁকি নিতে চায়নি।


এদিকে সম্প্রতি ভারত সফরে ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল বিজেপি এবং বিরোধী রাজনৈতিক দল কংগ্রেসের দায়িত্বশীল নেতাদের সঙ্গেও সাক্ষাৎ করেছেন বিএনপির তিন নেতা- আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, আব্দুল আউয়াল মিন্টু এবং ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের উপদেষ্টা হুমায়ুন কবির। বিএনপি নেতারা প্রত্যেক স্তরেই ব্যর্থ হয়ে ফিরেছেন। প্রত্যেক স্তরেই নেতার জামায়াতে ইসলামীর সঙ্গে সম্পর্ক, উলফাকে অস্ত্রের সরবরাহ ও বিএনপির আমলে তাদের সদস্যদের বাংলাদেশে আশ্রয় দেয়ার বিষয় অন্তরায় হয়ে দাঁড়ায়।


সূত্র বলছে, ভারতের ক্ষমতাসীন বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ’র পক্ষ থেকে বিএনপি নেতাদের সঙ্গে অনির্বাণ গাঙ্গুলি বৈঠক করেছিলেন। এছাড়া বিজেপি এবং কংগ্রেস বিএনপিকে ভারতীয় জনগণের আস্থায় আনার জন্য জামায়াতে ইসলামীর সঙ্গ ত্যাগের পরামর্শ দিয়েছে। তবে ভারতের প্রধান প্রধান দলগুলো বিএনপির প্রায় সব অনুরোধ সরাসরি প্রত্যাখ্যান করেছে বলে জানা যায়।


এমতাবস্থায় সব কূল হারিয়ে বিএনপি ‘কুলনাশা সংগঠনে’ পরিণত হয়ে ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে উপনীত হয়েছে বলে মনে করছেন শীর্ষ রাজনীতিকরা।

আরও পড়ুন

দ্বিতীয় দিনে বিএনপির মনোনয়ন বিক্রি ১২১৩

দ্বিতীয় দিনে বিএনপির মনোনয়ন বিক্রি ১২১৩

দলীয় মনোনয়ন বিক্রিকে কেন্দ্র করে মিছিলে-স্লোগানে দিনভরমুখর ছিল নয়াপল্টনের বিএনপির ...

প্রধানমন্ত্রীর কাছে বিএনপির ৩৬ হাজার ‘গায়েবি’ মামলা

প্রধানমন্ত্রীর কাছে বিএনপির ৩৬ হাজার ‘গায়েবি’ মামলা

নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে ৩৬ হাজার ‘গায়েবি’ মামলার তালিকা প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে জমা ...

খালেদা জিয়াকে হাইকোর্টে হাজির করে শারীরিক অবস্থা দেখুন

খালেদা জিয়াকে হাইকোর্টে হাজির করে শারীরিক অবস্থা দেখুন

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) ...

দ্বিতীয় দফায় সহস্রাধিক মামলার তালিকা দিল বিএনপি

দ্বিতীয় দফায় সহস্রাধিক মামলার তালিকা দিল বিএনপি

দলের বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে সহস্রাধিক 'মিথ্যা ও গায়েবি' মামলার ...

প্রতিটি আসনেই জাতীয় পার্টির রিজার্ভ ভোট আছে: জিএম কাদের

প্রতিটি আসনেই জাতীয় পার্টির রিজার্ভ ভোট আছে: জিএম কাদের

জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের বলেছেন, প্রতিটি আসনেই জাতীয় পার্টির ...

নয়াপল্টনে সারাদিন বিএনপির শোডাউন

নয়াপল্টনে সারাদিন বিএনপির শোডাউন

মনোনয়নপত্র বিক্রির দ্বিতীয় দিনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কর্যালয় নয়াপল্টন এলাকায় দলটির ...

সরকারের কথায় নির্বাচনের তারিখ পেছানো হয়েছে : কাদের সিদ্দিকী

সরকারের কথায় নির্বাচনের তারিখ পেছানো হয়েছে : কাদের সিদ্দিকী

সরকারের কথায় নির্বাচনের তারিখ পেছানো হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন কৃষক-শ্রমিক-জনতা ...

শোডাউন বন্ধে ইসির নির্দেশ

শোডাউন বন্ধে ইসির নির্দেশ

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে নির্বাচনী আচরণবিধি প্রতিপালনে নির্বাহী ...