• ভালোবাসা দিবস হোক অন্যায়-অসত্যের বিরুদ্ধে সেতুবন্ধন

    ভালোবাসা দিবস হোক অন্যায়-অসত্যের বিরুদ্ধে সেতুবন্ধন

  • বনবিভাগের মালি  শত কোটি টাকার মালিক!

    বনবিভাগের মালি শত কোটি টাকার মালিক!

  • মন্ত্রিসভায় নতুন মুখ যোগ হওয়ার আলোচনা চলছে

    মন্ত্রিসভায় নতুন মুখ যোগ হওয়ার আলোচনা চলছে

  • যেভাবে পাকিস্তানের অর্থনীতিকে পেছনে ফেলে এগিয়ে চলেছে বাংলাদেশ

    যেভাবে পাকিস্তানের অর্থনীতিকে পেছনে ফেলে এগিয়ে চলেছে বাংলাদেশ

  • 'তবুও আপনি খাবেন না'

    'তবুও আপনি খাবেন না'

ভারতকে কাছে চায় বিএনপি, দূরত্ব বজায় রাখছে ভারত

প্রকাশ: ১২ জুলাই ২০১৮

রাজনৈতিক বিশ্লেষক, বাংলাদেশপ্রেস

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জয়ী হওয়ার জন্য প্রতিবেশী দেশ ভারতের সহযোগিতা চায় বিএনপি।জনবিচ্ছিন্নবিএনপির বহিঃশক্তির উপর ভর করে ক্ষমতায় আসার অপপ্রয়াস অনেক পুরনো।শক্তিধর দেশগুলোর দারস্থ হয়ে দেশের স্বার্থবিরোধী বিভিন্ন  সুবিধা দানের আশ্বাস দিয়ে তাদের পক্ষে নিতে চেষ্টার ঘটনা কারোরই অজানা নয়।


এরই ধারাবাহিকতায় বিএনপি আপ্রাণ চেষ্টা চালাচ্ছে প্রতিবেশী দেশ ভারতের সমর্থন আদায়ের।এরই মাঝে বিএনপির সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারণী ফোরাম জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরীর নেতৃত্বে দলের ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল আউয়াল মিন্টু এবং আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক হুমায়ুন কবির ভারত সফরে করেছেন। তারা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিশেষ বার্তা নিয়েই এ সফর করেছেন বলে স্বীকার করেছেন একটি দায়িত্বশীল সূত্র।পাকিস্তানপন্থী এদলটির ভারত সফর নিয়ে সাধারণ মানুষের মাঝে কৌতুহলের সৃষ্টি হয়েছে। ভারত সফরে বিএনপির প্রতিনিধি দল সে দেশের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী এম জে আকবর, বিজেপি সমর্থক ‘শ্যামাপ্রসাদ মুখার্জি ফাউন্ডেশনের’ অধিকর্তা অনির্বাণ গাঙ্গুলির সঙ্গে বৈঠক করেছেন। ভারতের ক্ষমতাসীন বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ’র পক্ষ থেকে বিএনপি নেতাদের সঙ্গে অনির্বাণ গাঙ্গুলি বৈঠক করেছেন বলে জানা গেছে।


কিন্তু বিএনপি -ভারত সম্পর্ক তৈরির পেছনে প্রধান অন্তরায় হয়ে দেখা দিয়েছে বিএনপির শাসন আমলে চট্টগ্রামের দশ ট্রাক অস্ত্রের চালান ধরা পড়া। যা তারেক রহমান ও জামায়াতে ইসলামীর ছত্রছায়ায় সংঘটিত হয়েছিলো।যার ফলে ভারত বিএনপিকে কোনরূপে সহযোগিতা করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে।  এমনকি চট্টগ্রামে উক্ত অস্ত্র নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন উলফাকে দেয়ার ব্যাপারেও বিএনপি ও জামায়াতের সহযোগিতা ও সম্পৃক্ততার প্রমাণমেলে। ফলে বিএনপির মতো একটি সন্ত্রাসী সংগঠনকে সহযোগিতার বিষয়ে ভারত কোনো ঝুঁকি নিতে চায়না।তাছাড়া উলফাকে অস্ত্রের সরবরাহ ও বিএনপির আমলে তাদের সদস্যদের বাংলাদেশে আশ্রয় দেয়ার বিষয়টিও উঠে এসেছে। ভারত বিএনপিকে জামায়াতে ইসলামীর সঙ্গ ত্যাগেরও পরামর্শ দিয়েছে।


জনবিচ্ছিন্ন হয়ে ও সব কূল হারিয়ে বিএনপি এখন ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে আছে  বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

আরও পড়ুন

ইয়াবাকারবারিদের আত্মসমর্পণ: সাড়ে তিন লাখ ইয়াবা ও ৩০ অস্ত্র জমা

ইয়াবাকারবারিদের আত্মসমর্পণ: সাড়ে তিন লাখ ইয়াবা ও ৩০ অস্ত্র জমা

আত্মসমর্পণ করেছেন টেকনাফের ১০২ জন ইয়াবাকারবারি। শনিবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ...

পায়রায় ৩৬০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপনে সিমেন্সের সঙ্গে চুক্তি

পায়রায় ৩৬০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপনে সিমেন্সের সঙ্গে চুক্তি

জার্মানিতে সিমেন্স এজির সঙ্গে যৌথ উন্নয়ন চুক্তি স্বাক্ষর করেছে নর্থ ...

আখেরি মোনাজাতে শেষ হলো যোবায়েরপন্থিদের ইজতেমা

আখেরি মোনাজাতে শেষ হলো যোবায়েরপন্থিদের ইজতেমা

টুঙ্গীর তুরাগ নদীর তীরে আখেরি মোনাজাতে দেশ ও জাতির কল্যাণ ...

প্রধানমন্ত্রীকে ৯৮ দেশের সরকার ও রাষ্ট্রপ্রধান, আন্তর্জাতিক সংস্থার অভিনন্দন

প্রধানমন্ত্রীকে ৯৮ দেশের সরকার ও রাষ্ট্রপ্রধান, আন্তর্জাতিক সংস্থার অভিনন্দন

৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিপুল বিজয় অর্জনের ...

মুজিব বর্ষ উদযাপন কমিটিতে সালাউদ্দিন-মাশরাফি

মুজিব বর্ষ উদযাপন কমিটিতে সালাউদ্দিন-মাশরাফি

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন জাতীয় কমিটিতে ডাক পেয়েছেন ...

ড. ওয়াজেদ মিয়ার জন্মবার্ষিকী আজ

ড. ওয়াজেদ মিয়ার জন্মবার্ষিকী আজ

বঙ্গবন্ধুর জ্যেষ্ঠ জামাতা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বামী পরমাণু বিজ্ঞানী ...

থেমে গেল অবিনশ্বর কবিকণ্ঠ

থেমে গেল অবিনশ্বর কবিকণ্ঠ

'কবিতা তো কৈশোরের স্মৃতি। সেতো ভেসে ওঠা ম্লান/ আমার মায়ের ...

দেশে ফিরে আসার শর্তে শিক্ষাবৃত্তি দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

দেশে ফিরে আসার শর্তে শিক্ষাবৃত্তি দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার “প্রধানমন্ত্রী ফেলোশিপ ২০১৯” ঘোষণা করেছে যার আওতায় ...