শিল্প ও সাহিত্য

  • স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত নৃত্যগুরু বাদল না ফেরার দেশে

    স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত নৃত্যগুরু বাদল না ফেরার দেশে

  • জন্মদিনে নাট্যাচার্য সেলিম আল দীন  স্মরণে নানা আয়োজন

    জন্মদিনে নাট্যাচার্য সেলিম আল দীন স্মরণে নানা আয়োজন

  • জাতীয় জাদুঘরে ‘বঙ্গবন্ধু :নারী জাগরণ ও ক্ষমতায়ন’ শীর্ষক সেমিনার আয়োজন

    জাতীয় জাদুঘরে ‘বঙ্গবন্ধু :নারী জাগরণ ও ক্ষমতায়ন’ শীর্ষক সেমিনার আয়োজন

  • বরেণ্য শিল্পী মুর্তজা বশীরের ৮৭ তম জন্মদিন পালন

    বরেণ্য শিল্পী মুর্তজা বশীরের ৮৭ তম জন্মদিন পালন

  • মঞ্চের আলোয় চার দ্রৌপদী

    মঞ্চের আলোয় চার দ্রৌপদী

একক বক্তৃতায় শাহরিয়ার কবির

‘বঙ্গবন্ধুর ধর্মনিরপেক্ষতার ধারণা ছিল স্বতন্ত্র’

প্রকাশ: ১০ আগস্ট ২০১৮

সাংস্কৃতিক প্রতিবেদক , বাংলাদেশ প্রেস

একাত্তরের ঘাতক-দালাল নির্মূল কমিটির সভাপতি শাহরিয়ার কবির বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর ধর্মনিরপেক্ষতার ধারণা ছিল স্বতন্ত্র। যেখানে রাষ্ট্রধর্মের ক্ষেত্রে কোন বৈষম্য করবে না, সকল ধর্মকে সমান মর্যাদা দেয়া হবে। মুসলিম বিশ্বে ধর্মনিরপেক্ষতা বলতে পশ্চিমা জগৎ কামাল আতাতুর্কের (আধুনিক তুরস্কের প্রতিষ্ঠাতা) কট্টর মতবাদ সম্পর্কে যতটা জানে, বঙ্গবন্ধুর উদার মতবাদ সম্পর্কে কিছুই জানে না। জামায়াত যেমন ধর্মনিরপেক্ষতা মানে ধর্মহীনতা, আমেরিকার স্টেট ডিপার্টমেন্টে জামায়াতের সুহৃদরাও বাংলাদেশের ক্ষেত্রে তাই মনে করে।

 

জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে শুক্রবার বিকেলে ‘বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা’ শিরোনামের একক বক্তৃত্বায় তিনি এ মন্তব্য করেন। জাতীয় জাদুঘরের কবি সুফিয়া কামাল মিলনায়তনে বাংলাদেশ ইতিহাস সম্মিলনী এ একক বক্তৃতার আয়োজন করে। সভাপতিত্ব করেন শিক্ষাবিদ ড. বোরহানউদ্দিন খান জাহাঙ্গীর। স্বাগত বক্তব্য দেন ইতিহাস সম্মিলনী’র সাধারণ সম্পাদক ড. মাহবুবুর রহমান।

 

শাহরিয়ার কবির বলেন, পঁচাত্তরে বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতাকে হত্যার মধ্য দিয়ে জেনারেল জিয়া সংবিধান থেকে ধর্মনিরপেক্ষতা ও বাঙালি জাতীয়তাবাদ মুছে ফেলেছিলেন। সে সঙ্গে ধর্মভিত্তিক রাজনৈতিক দল গঠনের উপর নিষেধাজ্ঞা তুলে নিয়ে আলোকাভিসারী একটি জাতিকে মধ্যযুগীয় তামসিকতার কৃষ্ণগহ্বরে নিক্ষেপ করেছিলেন। এর ফলে বাংলাদেশে পাকিস্তানি ধারায় সাম্প্রদায়িক ও মৌলবাদী রাজনীতির ক্ষেত্র তৈরি করেছেন। আত্মগোপনকারী মৌলবাদী সাম্প্রদায়িক জামায়াতীরা আবার মাথাচাড়া দেয়ার সুযোগ পেয়েছে। বঙ্গবন্ধু হত্যা না করলে বাংলাদেশের সমাজ ও রাজনীতির এই তথাকথিত ‘ইসলামিকরণ’ বা ‘পাকিস্তানিকরণ’ সম্ভব হতো না।

 

তিনি আরও বলেন, বাহাত্তরের সংবিধান কার্যকর থাকলে বাংলাদেশে আজ ধর্মের নামে এত নির্যাতন, হানাহানি, সন্ত্রাস, বোমাবাজি, রক্তপাত হতো না। বাংলাদেশের ৪৭ বছর ও পাকিস্তানের ৭১ বছরের ইতিহাস পর্যালোচনা করলে দেখা যাবে, যাবতীয় গণহত্যা, নির্যাতন ও ধ্বংসের জন্য দায়ী জামায়াতে ইসলামী এবং তাদের সমগোত্রীয় মৌলবাদী ও সাম্প্রদায়িক দলগুলো, যা তারা করছে ইসলামের দোহাই দিয়ে।

 

শাহরিয়ার কবির বলেন, বাংলাদেশ যদি একটি আধুনিক ও সভ্য রাষ্ট্র হিসেবে বিশ্বের মানচিত্রে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে চায়, যদি আর্থ-সামাজিক অগ্রগতি নিশ্চিত করতে চায়, যদি যুদ্ধ-জেহাদ বিধ্বস্ত বিশ্বে মানবকল্যাণ ও শান্তির আলোকবর্তিকা জ্বালাতে চায় তাহলে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ দৃঢ়ভাবে অনুসরণ ছাড়া কোন পথ খোলা নেই।

 

‘বঙ্গবন্ধু যা চাননি, সেই না চাওয়াটার দিকেই কেন আমরা বারবার যাচ্ছি?’-এমন প্রশ্ন রেখে সভাপতির বক্তব্যে বোরহানউদ্দিন খান জাহাঙ্গীর বলেন, বঙ্গবন্ধুকে অস্বীকার করে কোনভাবেই বেঁচে থাকা সম্ভব না। বঙ্গবন্ধুকে বাদ দিয়ে কোন কিছু কি বলা সম্ভব ? সম্ভব না। কিন্তু কিছু লোক আছে এটাই করার চেষ্টা করে আসছে! আমি আপনাদের সবার কাছে বিনিত প্রার্থনা-যারা বাংলাদেশকে নষ্ট করার জন্য উঠে পড়ে লেগেছে, তাদের কাছ থেকে আমাদের দূরে সরে যেতে হবে। তাদের কোন জায়গা এই বাংলাদেশে নেই।

পরবর্তী খবর পড়ুন : রুদ্র’র কবিতার সন্ধ্যা


আরও পড়ুন

দেশে তত্ত্বাবধায়ক সরকার আর কোনো দিন আসবে না

দেশে তত্ত্বাবধায়ক সরকার আর কোনো দিন আসবে না

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ উপদেষ্টা পরিষদের নেতা এবং বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ ...

দুঃশাসনের যাঁতাকলে পিষ্ট হয়ে মানুষের ঈদের আনন্দ মলিন: রিজভী

দুঃশাসনের যাঁতাকলে পিষ্ট হয়ে মানুষের ঈদের আনন্দ মলিন: রিজভী

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, দেশে যে ...

জামিন মেলেনি অভিনেত্রী কাজী নওশাবা আহমেদের

জামিন মেলেনি অভিনেত্রী কাজী নওশাবা আহমেদের

‘নিরাপদ সড়ক’র দাবিতে আন্দোলন ঘিরে তথ্যপ্রযুক্তি আইনে একটি মামলায় অভিনেত্রী ...

সিএনজি ফিলিং স্টেশন ২৪ ঘণ্টা খোলা

সিএনজি ফিলিং স্টেশন ২৪ ঘণ্টা খোলা

পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে সারা দেশে ঈদের আগে ও পরে ...

সরকারি কর্মীদের গ্রেপ্তারে অনুমতি লাগবে

সরকারি কর্মীদের গ্রেপ্তারে অনুমতি লাগবে

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভার বৈঠকে ফৌজদারি মামলায় কোনো সরকারি ...

রক্তাক্ত পাহাড়; সড়ক অবরোধ, তদন্ত কমিটি গঠন

রক্তাক্ত পাহাড়; সড়ক অবরোধ, তদন্ত কমিটি গঠন

নানিয়ারচরে ব্রাশ ফায়ারে ৬জন নিহত হওয়ার ক্ষত এখনো শুকায়নি। আর ...

প্রধানমন্ত্রী রোহিঙ্গাদের ঈদের কথা ভুলেনি , কেনা হচ্ছে ১০ হাজার কোরবানির পশু

প্রধানমন্ত্রী রোহিঙ্গাদের ঈদের কথা ভুলেনি , কেনা হচ্ছে ১০ হাজার কোরবানির পশু

কক্সবাজারের উখিয়া ও টেকনাফের ৩০টি আশ্রয়শিবিরের রোহিঙ্গাদের জন্য ১০ হাজার ...

কোরবানির পশুবাহী ট্রাকে বাধা দিলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি :পুলিশের মহাপরিদর্শক

কোরবানির পশুবাহী ট্রাকে বাধা দিলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি :পুলিশের মহাপরিদর্শক

ঈদুল আযহার বাকী আর মাত্র কদিন। এরই মধ্যে রাজধানীর হাটগুলোতে ...