শিল্প ও সাহিত্য

  • স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত নৃত্যগুরু বাদল না ফেরার দেশে

    স্বাধীনতা পদকপ্রাপ্ত নৃত্যগুরু বাদল না ফেরার দেশে

  • জন্মদিনে নাট্যাচার্য সেলিম আল দীন  স্মরণে নানা আয়োজন

    জন্মদিনে নাট্যাচার্য সেলিম আল দীন স্মরণে নানা আয়োজন

  • জাতীয় জাদুঘরে ‘বঙ্গবন্ধু :নারী জাগরণ ও ক্ষমতায়ন’ শীর্ষক সেমিনার আয়োজন

    জাতীয় জাদুঘরে ‘বঙ্গবন্ধু :নারী জাগরণ ও ক্ষমতায়ন’ শীর্ষক সেমিনার আয়োজন

  • বরেণ্য শিল্পী মুর্তজা বশীরের ৮৭ তম জন্মদিন পালন

    বরেণ্য শিল্পী মুর্তজা বশীরের ৮৭ তম জন্মদিন পালন

  • মঞ্চের আলোয় চার দ্রৌপদী

    মঞ্চের আলোয় চার দ্রৌপদী

মুস্তাফা নূরউল ইসলামের নাগরিক শোকসভা

‘তিনি ছিলেন কালের সাক্ষী’

প্রকাশ: ১৫ মে ২০১৮

বাংলাদেশ প্রেস

জাতীয় অধ্যাপক মুস্তাফা নূরউল ইসলাম স্মরণে গতকাল সোমবার অনুষ্ঠিত হলো নাগরিক শোকসভা। সোমবার বিকেলে বাংলা একাডেমির আয়োজনে একাডেমির আবদুল করিম সাহিত্যবিশারদ মিলনায়তনে এ শোকসভা অনুষ্ঠিত হয়। ইমেরিটাস অধ্যাপক আনিসুজ্জামানের সভাপতিত্বে শোকসভায় তার জীবন ও কর্ম সম্পর্কে আলোচনা করেন ইমেরিটাস অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম, বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক শামসুজ্জামান খান, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব রামেন্দু মজুমদার, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি গোলাম কুদ্দুছ, কবি আজিজুর রহমান আজিজ, মুক্তিযুদ্ধ একাডেমির সভাপতি আবুল আজাদ প্রমুখ। পরিবারের পক্ষে কথা বলেন তার বড় ছেলে মুস্তাফ ইমরুল কায়েস ও বোন শামীম শবনম দীপ্তি। অনুষ্ঠানের শুরুতেই তার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে রবীন্দ্রসঙ্গীত পরিবেশন করেন শিল্পী ফাহিম হোসেন চৌধুরী।

মুস্তাফা নূরউল ইসলামের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নীরবতা পালনের মধ্যে দিয়ে শুরু হয় এই আয়োজন। এরপর শুরু হয় নাগরিক শোকসভার আলোচনা অনুষ্ঠান। এতে দেশের বিশিষ্টজনরা বলেন, মুস্তাফা নূরউল ইসলাম এদেশের প্রগতিশীল সাংস্কৃতিক ও বুদ্ধিবৃত্তিক সংগ্রামের এক অগ্রণী মানুষ, কালের সাক্ষী। তিনি ছিলেন বাংলা ও বাঙালিত্বের পূঁজারী। তার গবেষণাকর্ম আমাদের সাহিত্যক্ষেত্রে যোগ করেছে বুদ্ধিবৃত্তিকতার নবতর মাত্রা। তার জীবন কেবল সময়ের দিক থেকে দীর্ঘ নয়; উল্লেখযোগ্য কর্মের অর্জনেও বিশিষ্ট।

আনিসুজ্জামান বলেন, মুস্তাফা নূরউল ইসলামের জীবন বর্ণাঢ্য। তিনি শিক্ষকতা, প্রতিষ্ঠান পরিচালনা, সাময়িকপত্র সম্পাদনা, গবেষণা এবং টেলিভিশন অনুষ্ঠান পরিচালনার পাশাপাশি এক সময়ে নাট্যান্দোলনেও যুক্ত ছিলেন। তার ব্যক্তিত্বের দৃঢ়তার সঙ্গে যুক্ত হয়েছিল অসাধারণ রসবোধের গুণ। এদেশের প্রগতিশীল সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক অভিযাত্রায় মুস্তাফা নূরউল ইসলামের অবদান বিশেষভাবে স্মরণীয় হয়ে থাকবে।

মুস্তাফা ইমরুল কায়েস বলেন, বাবা হারানো সবার জন্যই বেদনার। বাবা আমাদের কাছে বন্ধুর মতো ছিল। তার পরামর্শ নিয়েই আমরা পথ চলি। তিনি বলতেন, কখনই পিছনে ফিরে তাকাবে না, সামনের দিকে তাকাবে।

শামসুজ্জামান খান বলেন, তিনি ছিলেন একজন জনপ্রিয় মানুষ। প্রথম জীবনে ‘অগত্যা’ পত্রিকার মধ্য দিয়ে কট্টর পাকিস্তানি শাসকের বিরুদ্ধে তীর্যকভাবে আক্রমণ করেছিলেন। তিনি বাংলা একাডেমিতে কিছুদিন কাজ করার পর নানা চক্রান্তের শিকার হন। কিন্তু তারপরও তাকে দমিয়ে রাখা যায়নি। তিনি সারাজীবন যে কাজই করেছেন, সেখানেই বাঙালি জাতিসত্ত্বার উন্মেষে কাজ করেছেন।

রামেন্দু মজুমদার বলেন, তার জীবনের দুইটি দিক বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য। একটি তার সাহিত্য সাময়িকী সম্পাদনা; ‘অগত্যা’, ‘পূর্বমেঘ’, ‘সুন্দরম’- এ তিন সাহিত্য সাময়িকীর প্রতিটিই খুব গুছিয়ে, দায়িত্ব নিয়ে কাজ করেছেন। দ্বিতীয় বিষয়টি হচ্ছে, তার বাচনভঙ্গী ও উপস্থাপনা। ‘মুক্তধারা’, ‘কথামালা’ অনুষ্ঠানগুলোতে তিনি বিচিত্র বিষয় নিয়ে আলোচনা করতেন।

গোলাম কুদ্দুছ বলেন, তিনি ছিলেন একজন পূর্ণাঙ্গ মানুষ। তিনি বহুমাত্রিক কাজের মধ্য দিয়ে দেশের শিক্ষা, সংস্কৃতির প্রগতির চেষ্টা করেছেন। তিনি ছিলেন কালের সাক্ষী ও পথ প্রদর্শক। ভাষা আন্দোলন থেকে শুরু জাতীয় যেকোন গুরুত্বপূর্ণ আন্দোলনে তার বলিষ্ঠ ভূমিকা ছিল।

শামীম শবনম দীপ্তি বলেন, আমি ১১ ভাই-বোনের মধ্যে সবার ছোট, তিনি ছিলেন সবার বড়। তার আদর-মমতায় বড় হয়েছি। তিনি কখনও হার মানতেন না।

গত ৯ মে ৯২ বছর বয়সে নিজ বাসভবনে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন জাতীয় অধ্যাপক মুস্তাফা নূরুল ইসলাম। পর দিন ১০ মে কেন্দ্রীয় শহিদ মিনার ও জাহাঙ্গীনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে সর্বস্তরের শ্রদ্ধাজ্ঞাপন শেষে তাকে মিরপুর শহিদ বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে তাকে সমাহিত করা হয়।

আরও পড়ুন

দেশে তত্ত্বাবধায়ক সরকার আর কোনো দিন আসবে না

দেশে তত্ত্বাবধায়ক সরকার আর কোনো দিন আসবে না

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ উপদেষ্টা পরিষদের নেতা এবং বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ ...

দুঃশাসনের যাঁতাকলে পিষ্ট হয়ে মানুষের ঈদের আনন্দ মলিন: রিজভী

দুঃশাসনের যাঁতাকলে পিষ্ট হয়ে মানুষের ঈদের আনন্দ মলিন: রিজভী

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, দেশে যে ...

জামিন মেলেনি অভিনেত্রী কাজী নওশাবা আহমেদের

জামিন মেলেনি অভিনেত্রী কাজী নওশাবা আহমেদের

‘নিরাপদ সড়ক’র দাবিতে আন্দোলন ঘিরে তথ্যপ্রযুক্তি আইনে একটি মামলায় অভিনেত্রী ...

সিএনজি ফিলিং স্টেশন ২৪ ঘণ্টা খোলা

সিএনজি ফিলিং স্টেশন ২৪ ঘণ্টা খোলা

পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে সারা দেশে ঈদের আগে ও পরে ...

সরকারি কর্মীদের গ্রেপ্তারে অনুমতি লাগবে

সরকারি কর্মীদের গ্রেপ্তারে অনুমতি লাগবে

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভার বৈঠকে ফৌজদারি মামলায় কোনো সরকারি ...

রক্তাক্ত পাহাড়; সড়ক অবরোধ, তদন্ত কমিটি গঠন

রক্তাক্ত পাহাড়; সড়ক অবরোধ, তদন্ত কমিটি গঠন

নানিয়ারচরে ব্রাশ ফায়ারে ৬জন নিহত হওয়ার ক্ষত এখনো শুকায়নি। আর ...

প্রধানমন্ত্রী রোহিঙ্গাদের ঈদের কথা ভুলেনি , কেনা হচ্ছে ১০ হাজার কোরবানির পশু

প্রধানমন্ত্রী রোহিঙ্গাদের ঈদের কথা ভুলেনি , কেনা হচ্ছে ১০ হাজার কোরবানির পশু

কক্সবাজারের উখিয়া ও টেকনাফের ৩০টি আশ্রয়শিবিরের রোহিঙ্গাদের জন্য ১০ হাজার ...

কোরবানির পশুবাহী ট্রাকে বাধা দিলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি :পুলিশের মহাপরিদর্শক

কোরবানির পশুবাহী ট্রাকে বাধা দিলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি :পুলিশের মহাপরিদর্শক

ঈদুল আযহার বাকী আর মাত্র কদিন। এরই মধ্যে রাজধানীর হাটগুলোতে ...