• হারিয়ে যাচ্ছে গ্রামবাংলার ঐতিহ্যবাহী খেলাধুলা

    হারিয়ে যাচ্ছে গ্রামবাংলার ঐতিহ্যবাহী খেলাধুলা

  • ইন্টারভিউয়ের আতঙ্ক কাটাতে যা করবেন

    ইন্টারভিউয়ের আতঙ্ক কাটাতে যা করবেন

  • ঈদ আনন্দে মেতে উঠুন শেরপুরের সোনাঝুড়িতে

    ঈদ আনন্দে মেতে উঠুন শেরপুরের সোনাঝুড়িতে

  • ফরমালিন মেশানো আম চিনবেন কী করে?

    ফরমালিন মেশানো আম চিনবেন কী করে?

  • দাঁড়িয়ে থাকলেই কমবে ভুঁড়ি!

    দাঁড়িয়ে থাকলেই কমবে ভুঁড়ি!

কমে গেছে বাড়িতে হাতে মুড়ি ভাজার রেওয়াজ

প্রকাশ: ১৩ জুন ২০১৮     আপডেট: ১৩ জুন ২০১৮

বাংলাদেশ প্রেস

বাড়িতে হাতে মুড়ি ভাজার রেওয়াজ

আগের মতো বাড়ি বাড়ি মুড়ি ভাজার ধুম পড়ে না। নানা কারণে এখন বাড়িতে এসব ঝামেলা করতে চান না অনেকে বাজার থেকে কেনা মুড়িতেই ইফতার করা সহজ।

গত কয়েকদিন দিন উপজেলার পূর্ব ভালুকা, মিরকা, মেদিলা, খারুয়ালীসহ বেশ কয়েকটি গ্রাম ঘুরে লোকজনের সঙ্গে কথা বলে তাঁরাই এসব কথা জানান। পূর্ব ভালুকা কোনাপাড়ার বাসিন্দা সুলতানা বেগম (৪০) বলেন, আগে রোজা শুরু হওয়ার মাস খানেক আগে থেকেই ইফতারির অন্যতম উপাদান মুড়ি ভাজার প্রস্তুতি শুরু করতে হতো।


মুড়ি ভাজার জন্য আলাদা করে রাখা ধান সিদ্ধ করে শুকিয়ে ঢেঁকিতে ছেঁটে চাল তৈরি করে রাখা হতো। তারপর বাড়ির বউ-ঝি মিলে সারা দিন ধরে চলত শুধু মুড়ি ভাজা। সবাই মিলে মুড়ি ভাজা আর ইফতারের সময় সেই মুড়ি খাওয়ার আনন্দই ছিল আলাদা। আরেক বাসিন্দা ফাতেমা আক্তার বলেন, মুড়ি ভাজা খুব কষ্টের বলে এখনকার বউ-ঝিরা আর ওই ঝামেলায় যেতে চান না। এখন বাজারের মুড়িই ভরসা। পূর্ব ভালুকা এলাকার আব্দুল মজিদ মাস্টার বলেন, এক কেজি মুড়ির চাল বাজার থেকে ৫০-৬০ টাকায় কিনতে হয়। এরপর আছে খড়ি-শোলা আর মুড়ি ভাজার লোকের মজুরি। এত ঝামেলা না করে বাজার থেকে কেনা মুড়িতেই ইফতার করা সহজ। তাছারা এখনকার বেশির ভাগ বউ-ঝি মুড়ি ভাজতে পারেন না। ফলে মুড়ি ভাজায় দক্ষ মানুষ ডাকতে হয়। এলাকার প্রবীণ রাহেলা বেগম বলেন, কিছুদিন পর আর মুড়ি ভাজার লোকও খুঁজে পাওয়া যাবে না। কষ্টকর কাজ বলে কেউ এসব শিখতে চান না। ব্যস্ততাসহ বিভিন্ন কারণে বাঙালির বিভিন্ন ঐতিহ্য হারিয়ে যাচ্ছে বলে আক্ষেপ করেন তিনি।


আরও পড়ুন

নির্বাচন থেকে সরে যেতে পারেন হাসান উদ্দিন সরকার

নির্বাচন থেকে সরে যেতে পারেন হাসান উদ্দিন সরকার

অনেক প্রতীক্ষার অবসান শেষে আগামী ২৬ জুন সংগঠিত হতে যাচ্ছে ...

শেষ পর্যন্ত ম্যাচটা জার্মানি ২-১ গোলে  জিতেছে

শেষ পর্যন্ত ম্যাচটা জার্মানি ২-১ গোলে জিতেছে

সুইডেনের সঙ্গে প্রথমার্ধ শেষে পিঠ দেয়ালে ঠেকে আছে জার্মানির। সুইডেন ...

৯২৫  কিলোমিটার  অংশ খননরে উদ্যোগ নয়িছেে পানি উন্নয়ন র্বোড

৯২৫ কিলোমিটার অংশ খননরে উদ্যোগ নয়িছেে পানি উন্নয়ন র্বোড

সুনামগঞ্জের হাওরবাসীর সুবিধার স্বার্থে ১১টি উপেজলায় দুই হাজার কােটি টাকা ...

দোষ স্বীকার করায় রিজভীকে তেড়ে গেলেন নেতারা

দোষ স্বীকার করায় রিজভীকে তেড়ে গেলেন নেতারা

বিএনপি যে পরনির্ভরশীল দল তা নিজ মুখেই স্বীকার করে নিলেন ...

রাণীনগরে গৃহবধুকে হত্যার উদ্দেশ্যে বস্তাবন্দি করে পুকুরে নিক্ষেপ

রাণীনগরে গৃহবধুকে হত্যার উদ্দেশ্যে বস্তাবন্দি করে পুকুরে নিক্ষেপ

নওগাঁর রাণীনগরে অন্তসত্তা গৃহবধুকে স্বামীর স্বজনরা বেধর মারপিট করে অচেতন ...

মিয়ানমারকে আল্টিমেটাম দিল হেগের আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত

মিয়ানমারকে আল্টিমেটাম দিল হেগের আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত

আইসিসি'র এই কৌসূলী প্রায় তিন মাস আগে আট লাখের বেশি ...

জনসভায় গ্রেনেড হামলার

জনসভায় গ্রেনেড হামলার

ইথিওপিয়ার নতুন সংস্কারপন্থী প্রধানমন্ত্রী আবি আহমেদের একটি জনসভায় গ্রেনেড হামলার ...

‘জনপ্রিয়তা-তৃণমূলের মূল্যায়ন বিবেচনায় মনোনয়ন’

‘জনপ্রিয়তা-তৃণমূলের মূল্যায়ন বিবেচনায় মনোনয়ন’

প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, জনগণের ভোটের ...