আন্তর্জাতিক

ইতালিতে ২৪ ঘন্টায় ৬৬২ জনের মৃত্যু, ৬ কোটি ঘরবন্দী

প্রকাশ: ২৭ মার্চ ২০২০ |

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ■ বাংলাদেশ প্রেস

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের আঘাতে লণ্ডভণ্ড ইতালি। কফিনের দেশে পরিণত হয়েছে দেশটি। প্রতিদিন মৃত্যুর মিছিল দীর্ঘ হচ্ছে। সবার মনে আতঙ্ক চরম সীমা অতিক্রম করেছে।

করোনাঝুঁকি এড়াতে বন্দিজীবনে প্রায় ৬ কোটি মানুষ। এর মধ্যে বাংলাদেশিরাও হোম কোয়ারেন্টিনে রয়েছেন।বৃহস্পতিবার ২৪ ঘণ্টায় ৬৬২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৮ হাজার ১৬৫ জনে। একদিনে নতুন আক্রান্ত ৬ হাজার ১৫৩ জন। দেশটিতে গুরুতর অসুস্থ রোগীর সংখ্যা ৩ হাজার ৬১২ জন। চিকিৎসা শেষে মোট সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১০ হাজার ৩৬১ জন। সব মিলিয়ে মোটা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৮০ হাজার ৫৩৯। চিকিৎসাধীন ৬২ হাজার ১৩ জন।

অন্যদিকে চীন ও ইতালির পর মৃতুর লাইন লম্বা হচ্ছে স্পেনেও। সেখানে একদিনে করোনায় কেড়ে নেয় ৪ হাজার ৯৮ প্রাণ। এ নিয়ে মোট মৃত্যুর সংখ্যা ৪ হাজারেরও বেশি। আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা মোটা ৫৬ হাজার ১৯৭ জন। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৭ হাজার ১৫ জন। বৃহস্পতিবার একদিনে ৬ হাজার ৬৮২ জন।

সরকার নানা পদক্ষেপ নেয়ার পরও মৃত্যু যেন কমছে না। স্পেনে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকা বাংলাদেশিরা ভালো নেই। স্পেনের টেনেরিফ দক্ষিণ দ্বীপে বাস করেন মুহাম্মদ ফরিদ হাসান।

তিনি বলেন, আমাদের দ্বীপে বাংলাদেশি তেমন একটা নেই বললেই চলে। পর্যটক বেশি আসে। কিন্তু দ্বীপটিতে ইতালিয়ান এক পর্যটক করোনায় পজিটিভ ধরা পড়েছে। এর পর আস্তে আস্তে করোনায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বাড়তে থাকে। তবে সরকারের নানা রকম পদক্ষেপের ফলে দ্বীপে আমরা বাংলাদেশিরা ভালো আছি। এর পরও একটু আতঙ্ক এমনি চলে আসে। সবাই আমরা হোম কোয়ারেন্টিনে আছি।

এদিকে ইতালিতে করোনা মোকাবেলায় জনগণের জন্য বিভিন্ন ভালো পদক্ষেপ অব্যাহত রেখেছেন প্রধানমন্ত্রী কন্তে। চলাফেরা অনেক সীমিত করা হয়েছে। প্রশাসনের নজরও বাড়ছে। সরকারের পক্ষ থেকে জনগণের জীবন রক্ষা করতে একের পর এক পদক্ষেপের কমতি নেই সরকারের।

অন্যদিকে রোমের পৌর মেয়র রাজ্জি সমস্যা সমাধানে সবাইকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়েছেন। সবাইকে বাসায় থাকতে নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। ইতালির মাস্ক সমস্যাও অনেকটা সমাধানে কাজ করছে তার সরকার। খুব প্রয়োজনীয় ফ্যাক্টরি ছাড়া সবই বন্ধ রাখা হয়েছে। স্কুল, বিশ্ববিদ্যালয়, বার ও পাবসহ সব প্রকার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এবং ব্যবসাবাণিজ্য বন্ধ রাখা হয়েছে।