আন্তর্জাতিক

সিয়াচেনে তুষার ধসে নিহত ৬

প্রকাশ: ১৯ নভেম্বর ২০১৯

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ■ বাংলাদেশ প্রেস

বিশ্বের সবচেয়ে দুর্গম যুদ্ধক্ষেত্র সিয়াচেনে তুষার ধসে ভারতের চার সেনাসহ ৬ জন নিহত হয়েছেন। সোমবার সিয়াচেনে ১৮ হাজার ফুট উচ্চতায় নর্দার্ন গ্লেসিয়ারে ধস নামে। এসময় আট ভারতীয় সেনা নিখোঁজ হন। দীর্ঘ সময় উদ্ধার তৎপরতার পর ছয় জনের মৃতদেহ ও দুইজনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়।

সোমবার ওই এলাকায় প্যাট্রলিংয়ে ছিলেন ভারতীয় সেনারা। এসময় বরফ ধস নামলে তারা সেখানে আটকে পড়েন। তারপরই তাদের দ্রুত উদ্ধার করতে অভিযান পরিচালনা করা হয়।

এর আগে ২০১৬ সালে তুষার ধসে সিয়াচেনে দশ ভারতীয় সেনা নিখোঁজ হন। হিমবাহের উত্তর অংশে তুষার ধস ঘটার পরে অনুমান করা হয় ওই দলটি ৬০০ মিটার উঁচু এবং ১ কিলোমিটার প্রশস্ত এক বরফ-প্রাচীরের অন্তরালে আটকে পড়েছিল। সেই ঘটনায় সবাই নিহত হন।

ওই ঘটনার পর সিয়াচেন থেকে সেনা সরানোর উদ্যোগ নিয়েছিলেন ভারতের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং। কিন্তু ভারতের দাবি ছিল, বর্তমানে অবস্থান অনুযায়ী ম্যাপ বা স্যাটেলাইট ডকুমেন্টেশন-এ রাজি হয়নি পাকিস্তান। ফলে সিয়াচেন থেকে ভারতীয় সেনাও সরেনি।

এখন পর্যন্ত সিয়াচেনে প্রায় ৯০০ ভারতীয় সেনার মৃত্যু হয়েছে। কিন্তু একবার পাকিস্তান সিয়াচেনের দখল নিলে তার পুনর্দখল নিতে ২-৩ হাজার ভারতীয় সেনার মৃত্যু হতে পারে বলে আশঙ্কা ভারতের। এই এলাকায় বিরোধী পক্ষের সেনাদের চেয়ে সবচেয়ে বড় শত্রু বরফ ও ঠান্ডা।