আন্তর্জাতিক

কুর্দিরা অস্ত্র সমর্পণ করলেই অভিযান বন্ধ হবে: এরদোগান

প্রকাশ: ১৭ অক্টোবর ২০১৯

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ■ বাংলাদেশ প্রেস

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান বলেছেন, কুর্দিশ যোদ্ধারা যদি অস্ত্র ত্যাগ করেন এবং পরিকল্পিত নিরাপদ অঞ্চল থেকে সরে যাওয়ার ঘোষণা দেন, তবেই উত্তর সিরিয়ায় তুর্কি বাহিনীর অভিযান বন্ধ করা হবে।

এছাড়া কোনো শক্তিই এ অভিযান বন্ধ করতে পারবে না বলে হুশিয়ারি দেন তুরস্কের এই নেতা। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে এমন তথ্য জানা গেছে।

তিনি বলেন, সবচেয়ে দ্রুত সমাধান হচ্ছে, জঙ্গিরা তাদের অস্ত্র সমর্পণ করবেন এবং বুধবার সন্ধ্যার মধ্যে ওই এলাকা থেকে সরে যাবেন। নিরাপদ অঞ্চল প্রতিষ্ঠার পরেই অভিযান স্থগিত করা হবে।

এ নিয়ে আলোচনা উন্মুক্ত নয় বলেও তিনি জানিয়েছেন।

এদিকে সিরিয়ায় কুর্দিবিরোধী অভিযানে কারণে পাকিস্তান সফর স্থগিত করেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান।

আগামী ২৩ ও ২৪ অক্টোবর তার দক্ষিণ এশিয়ার পরমাণু শক্তির দেশটিতে সফর করার কথা ছিল।


পাকিস্তানের দ্য নিউজ ইন্টারন্যাশনালের খবরে বলা হয়েছে, এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ সফর হওয়ার কথা ছিল। যাতে দুই দেশের মধ্যে একটি অর্থনৈতিক অবকাঠামো চুক্তি সই হতে পারতো।


উত্তর সিরিয়ায় তুর্কিদের ওই অভিযান এখন আন্তর্জাতিক আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে।


অভিযান বন্ধ করে একটি অস্ত্রবিরতি চুক্তি সইয়ে রাজি করাতে মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্স ও পররাষ্ট্র মন্ত্রী মাইক পম্পেও ইতিমধ্যে তুরস্কের উদ্দেশে রওনা দিয়েছেন।


কুর্দিবিরোধী অভিযানে সমর্থন দিয়ে পাকিস্তান বলছে, এতে সিরিয়ার সঙ্গে তুরস্কের সীমান্তে স্থিতিশীলতা ফিরবে।