আন্তর্জাতিক

  • হোয়াইট হাউজের কাছে গোলাগুলিতে একজন নিহত, আহত ৫

    হোয়াইট হাউজের কাছে গোলাগুলিতে একজন নিহত, আহত ৫

  • সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল ‘ডাইনোসর মাছ’!

    সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল ‘ডাইনোসর মাছ’!

  • ফেসবুক ভেঙে দিতে ট্রাম্পের প্রস্তাবে জাকারবার্গের জবাব

    ফেসবুক ভেঙে দিতে ট্রাম্পের প্রস্তাবে জাকারবার্গের জবাব

  • আফগানিস্তানে ফসলি মাঠে মার্কিন-সমর্থিত ড্রোন হামলায় নিহত ৩০

    আফগানিস্তানে ফসলি মাঠে মার্কিন-সমর্থিত ড্রোন হামলায় নিহত ৩০

  • মাদ্রাসার ২৭ শিশু আগুনে পুড়ে মরল লাইবেরিয়ায়

    মাদ্রাসার ২৭ শিশু আগুনে পুড়ে মরল লাইবেরিয়ায়

কিম জং-উনকে আনুষ্ঠানিকভাবে দেশটির রাষ্ট্রপ্রধান এবং সেনাপ্রধান ঘোষণা

প্রকাশ: ১২ জুলাই ২০১৯

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ■ বাংলাদেশ প্রেস

উত্তর কোরিয়ার শীর্ষ নেতা কিম জং-উনকে আনুষ্ঠানিকভাবে দেশটির রাষ্ট্রপ্রধান এবং সেনাপ্রধান ঘোষণা করা হয়েছে। এমনিতে তিনি তার দেশের সর্বময় ক্ষমতার অধিকারী। তার ভেতর দুটি গুরুত্বপূর্ণ পদে তার আসীন হওয়ার কিছু কারণ আছে।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম রয়টার্স বলছে, নতুন সংবিধানে কিমের এমন পদবি মূলত যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে শান্তিচুক্তির প্রস্তুতি।

আমেরিকার সঙ্গে সেই ১৯৫০-১৯৫৩ সাল থেকে শান্তি চুক্তি নিয়ে আলোচনা চলছে উত্তর কোরিয়ার।

নতুন সংবিধান সে দেশের নেনারা স্টেট পোর্টাল সাইটে প্রকাশ করা হয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে কিম স্টেট অ্যাফেয়ার্স কমিশনের (এসএসি) চেয়ারম্যান। পরিচালনা পর্ষদের এই শীর্ষ পদটি ২০১৬ সালে সৃষ্টি হয়। যাকে বলা হয়, সমস্ত কোরিয়ানের সর্বোচ্চ প্রতিনিধি, অর্থাৎ রাষ্ট্রের প্রধান এবং সেনাপ্রধান।

আগের সংবিধানে কিম জং-উনকে সাধারণভাবে ‘শীর্ষ নেতা’ বলা হতো।

সিউলের ক্যুংনাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার ইস্ট ইনস্টিটিউটের অধ্যাপক কিম ডং-ইয়াপ বলেন, উত্তর কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট হওয়ার স্বপ্ন দেখেছিলেন কিম। সেই স্বপ্ন তিনি সত্যি করেই ছেড়েছেন।

কিম গত বছর থেকে অর্থনীতিকে প্রাধান্য দিচ্ছেন। যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে পারমাণবিক বিষয়ে আলোচনায় বসেছেন। দক্ষিণ কোরিয়া, চীন এবং রাশিয়ার সঙ্গে বৈঠকে অংশ নিয়ে নিজেকে বিশ্বনেতা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে চাইছেন।

এখন সংবিধান সংশোধনের মাধ্যমে শান্তিচুক্তিতে স্বাক্ষর করার মর্যাদা অর্জন করলেন।

পরবর্তী খবর পড়ুন : চিকিৎসকের অবহেলায় শিশু মৃত্যু


আরও পড়ুন

হোয়াইট হাউজের কাছে গোলাগুলিতে একজন নিহত, আহত ৫

হোয়াইট হাউজের কাছে গোলাগুলিতে একজন নিহত, আহত ৫

এবার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রপতির দপ্তর ও বাসভবন হোয়াইট হাউজের কাছে ...

দুই লাখ পিস ইয়াবাসহ মিয়ানমারের আট নাগরিক আটক

দুই লাখ পিস ইয়াবাসহ মিয়ানমারের আট নাগরিক আটক

কক্সবাজারের টেকনাফের অদূরে সেন্ট মার্টিন্সের গভীর সমুদ্রে দুই লাখ পিস ...

শেখ হাসিনার নির্দেশে দলের বিভিন্ন পর্যায়ে চলছে শুদ্ধি অভিযান

শেখ হাসিনার নির্দেশে দলের বিভিন্ন পর্যায়ে চলছে শুদ্ধি অভিযান

আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার নির্দেশে দলের বিভিন্ন পর্যায়ে চলছে ...

ফেসবুক ভেঙে দিতে ট্রাম্পের প্রস্তাবে জাকারবার্গের জবাব

ফেসবুক ভেঙে দিতে ট্রাম্পের প্রস্তাবে জাকারবার্গের জবাব

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও কংগ্রেসের কয়েকজন সদস্যের সঙ্গে সাক্ষাৎ ...

নয়নের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক-বিয়ে সবই স্বীকার মিন্নির

নয়নের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক-বিয়ে সবই স্বীকার মিন্নির

বরগুনায় আলোচিত রিফাত হত্যায় মামলায় তার স্ত্রী আয়শা সিদ্দিকা মিন্নিকে ...

ঢাকার ক্যাসিনো সাম্রাজ্যের বিস্তার যে নেপালিদের হাত ধরে

ঢাকার ক্যাসিনো সাম্রাজ্যের বিস্তার যে নেপালিদের হাত ধরে

ঝকঝকে আলোকচ্ছটায় রমরমা জুয়ার আড্ডায় প্রতিদিন উড়ত কোটি কোটি টাকা। ...

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের 'ইউনিট-২' এর ভর্তি পরীক্ষা শুরু

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের 'ইউনিট-২' এর ভর্তি পরীক্ষা শুরু

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) ২০১৯-২০২০ শিক্ষাবর্ষের চার বছর মেয়াদি স্নাতক (সম্মান) ...

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘ক’ ইউনিটের ভর্তিযুদ্ধ শুরু

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘ক’ ইউনিটের ভর্তিযুদ্ধ শুরু

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০১৯-২০২০ শিক্ষাবর্ষে বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ক’ ইউনিটের (বিজ্ঞান অনুষদ) ...