শিরোনাম:

Fri 08 December 2017 - 12:02am

জমি দখলে আ.লীগ নেতাকে ভাড়া করে হামলা, অভিযোগের অপেক্ষায় পুলিশ

Published by: নিউজ রুম এডিটর, বাংলাদেশ প্রেস

5c636c53ae664ef01f18efb5e6d8ca2b.jpg

রাকিব হোসেন আপ্র, লক্ষ্মীপুর: লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার মান্দারীর গরু বাজারে ২০১৩ সালে সাড়ে তিন লাখ টাকা দিয়ে এক শতাংশ জমি কিনেন মো. কাজী সেলিম ও সজিব। তারা বটতলী গ্রামের আবদুল রাজ্জাকের ছেলে। এরপর থেকে সেখানে দোকান ঘর নির্মাণ করে ব্যবসা-প্রতিষ্ঠান করা হয়। স্থানীয় খোরশেদ আলম ও হালিমা বেগমের কাছ থেকে জমিটি কিনলেও স্থানীয় সুদকারবারী হিসেবে পরিচিত বটতলী গ্রামের মাওলানা বাড়ির বজরুল করিমের ছেলে আবু তৈয়র ফিরোজ জমিটির মালিকানা দাবি করেন। 

এনিয়ে তিনি লক্ষ্মীপুর আদালত ও থানায় একাধিক মামলা করলেও জমির মালিকানার কোন কাগজপত্র দেখাতে পারেনি। এতে মামলাটি খারিজ করে দেয় আদালত। এতে আরো ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন আবু তৈয়ব। তিনি একাধিকবার জমিটি দখলের পাঁয়তারা করে। এতে বাধ্য হয়েই কাজী সেলিম জেলা আদালতে আবু তৈয়বের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। মিমাংসায় যেতে চাইলে একাধিকবার সময় চেয়ে টালবাহানা করে আবু তৈয়ব।

এরপর বৃহস্পতিবার (৭ ডিসেম্বর) সকালে আওয়ামী লীগ নেতাসহ ভাড়াটিয়া ২০-২৫জনকে নিয়ে দোকানটি দখলের চেষ্টা চালায়। এসময় ওই দোকানে থাকা নারীসহ ৫ জনকে বেদম পিটিয়ে আহত করেছে।

এ ঘটনায় নারী-শিশুসহ ৫ জন আহত হয়। তাদেরকে সদর হাসপাতাল ও স্থানীয় ক্লিনিকে নেওয়া হয়েছে। 

অভিযোগ রয়েছে, কথিত মালিক দাবিদার আবু তৈয়ব ফিরোজের পক্ষ হয়ে মান্দারী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ওহিদুজ্জামান বেগ বাবলু অনুসারীদের নিয়ে এ দখলের চেষ্টা ও হামলা করে। আহতরা হলেন মোঃ হাছান, তার স্ত্রী শিল্পী আক্তার, শিশু কন্যা সুমাইয়া, হাছানের ভাই শাকিল ও আবদুল রাজ্জাক।

এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানায় ভুক্তভোগী পরিবার।

এ ব্যাপারে আবু তৈয়ব ফিরোজ এর সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করে মোবাইল ফোন বন্ধ থাকায় বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

মান্দারী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ওহিদুজ্জামান বেগ বাবলু বলেন, জমি সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে তাদের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনায় উভয় পক্ষকে সমাধানের চেষ্টা করেছি।

চন্দ্রগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এস আই) ফেরদোসী বেগম বলেন খবর পেয়ে ঘনাস্থল পরিদর্শন করেছি। এঘটনায় কেউ থানা লিখিত অভিযোগ করেনি। 


Facebook

মন্ত্যব্য করুন