নির্বাচন

আ’লীগ প্রার্থীর সাথে হিন্দু সম্প্রদায় সাক্ষাত করতে আসলে পুলিশের লাঠিচার্জ ইউএনও’র হুশিয়ারীঃ ওসি প্রত্যাহার

প্রকাশ: ১৩ জুন ২০১৯     আপডেট: ১৩ জুন ২০১৯

কে.এম রিয়াজুল ইসলাম ,বরগুনা প্রতিনিধি ■ বাংলাদেশ প্রেস

বরগুনার তালতলীতে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আ’লীগ প্রার্থীর কাছে সাক্ষাত করতে আসলে পথে মোবাইল কোর্টের পরিচালিত পুলিশের লাঠিচার্জের শিকার হন প্রত্যন্ত অঞ্চলের সংখ্যালগু হিন্দু সম্প্রদায়ের মহিলা কর্মীরা। মঙ্গলবার উপজেলা শহরের বটতলা নামক স্থানে রাত সাড়ে আটটার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে রাত সাড়ে দশটার দিকে তালতলী সরকারি মডেল মাধ্যমিক  বিদ্যালয় অফিস কক্ষে এক বৈঠকে আওয়ামীলীগ প্রার্থীকে কঠোর হুশিয়ারী করেছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার দীপায়ন দাশ শুভ। 

জানা গেছে, উপজেলার আঙ্গারপাড়া এলাকার হিন্দু সম্প্রাদায়ের মহিলা কর্মীরা অটোবাইক ও মটরসাইকেল যোগে ২০-২৫জন আওয়ামীলীগ সমর্থিত প্রার্থী রেজবি-উল কবির জোমাদ্দারের সাথে সাক্ষাত করতে আসার সময় তালতলী বটতলা নামক স্থানে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা কারী নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ইয়ানুর রহমানের সামনে পরে। এ সময় তার সাথে থাকা পুলিশ ওই হিন্দু মহিলা কর্মীদের উপর লাঠি চার্জ করেন। এতে ২জন মহিলাসহ ৫জন আহত হয়েছে। এ ঘটনায় স্থানীয় আওয়ামীলীগ কর্মীদের তোপের মুখে পরে পুলিশ সদস্যদের রেখেই দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন ওই নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ইয়ানুর রহমান। পরে রাত সাড়ে দশটার দিকে তালতলী সরকারি মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয় অফিস কক্ষে এক বৈঠকে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আওয়ামীলীগ সমর্থিত প্রার্থী রেজবি-উল কবির জোমাদ্দারকে কঠোর হুশিয়ারী করে দিয়েছেন। 

আওয়ামীলীগ সমর্থিত প্রার্থী রেজবি-উল কবির জোমাদ্দার বলেন, কর্মী ও সমর্থকদের আচরন বিধি লঙ্ঘনের বিষয়টি তিনি জানেন না। আমার সাথে দেখা দিতে আসা মহিলা হিন্দু কর্মী ও সমর্থকদের উপর পুলিশের লাঠিচার্জের ঘটনাটি অত্যন্ত দুঃখজনক। 

উপজেলা নির্বাহী অফিসার দীপায়ন দাশ শুভ বলেন, আচরনবিধি লঙ্ঘন করে মিছিল করার সময় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটের সাথে খারাপ আচরন করার অভিযোগ রয়েছে নৌকা সমর্থিত প্রার্থীর কর্মী ও সমর্থকদের বিরুদ্ধে। কর্মী সমর্থকরা অতি উৎসাহী হয়ে সরকারের সুনাম ক্ষুন্ন হয় এমন কর্মকান্ড ও আচরনবিধি লঙ্ঘন করলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। উল্লেখ্য, আগামী ১৮জুন তালতলী উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

তালতলীর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগে তালতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা পুলক চন্দ্র রায়কে প্রত্যাহার করা হয়েছে। জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ের এক আদেশে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তাকে প্রত্যাহার করা হয়। 

জানা যায়, আগামী ১৮ জুন তালতলী উপজেলা পরিষদ নির্বাচন। নির্বাচন শুরুর পর থেকেই তালতলী থানার ওসি এক স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর পক্ষপাতিত্ব করার অভিযোগ ওঠে। এমন অভিযোগ এনে গত মে মাসের ২৭ তারিখে আ’লীগ মনোনীত প্রার্থী রেজবি-উল-কবির জোমাদ্দার বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ে আবেদন করেন। ওই অভিযোগের ভিত্তিতে ওসি পুলক চন্দ্র রায়কে মঙ্গলবার রাতে প্রত্যাহার করে জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে সংযুক্ত করা হয়েছে।