সম্পাদকীয়

একজন নুরু ও তার বৈদেশিক সহযোগিতা কোন দিক অনুসরণ করছে!

প্রকাশ: ০৭ জুলাই ২০২০ |

তৈমুর মল্লিক, উপ-সম্পাদক ■ বাংলাদেশ প্রেস

লাদেন জন্ম নিয়েছিলো সৌদি ধনাঢ্য পরিবারে। সেই লাদেনকে সামনে রেখে মধ্যপ্রাচ্যের টার্গেট করা দেশের পতন ঘটিয়েছে মার্কিনরা। বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত সৌদি আরবের অর্থায়নেই লাদেন পরিচালিত হতো। অনেকে বলে অর্থায়ন হতো সৌদি আরব টু মার্কিন টু লাদেন। নিশ্চিত নই। এই ধরনের অর্থায়নের চক্র বোঝা আমাদের কাজ নয়। 

নিজের দেশের অর্থ সরকারি কোষাগার হতে কোন জিলাপি প্যাচে কোনদিকে যাচ্ছে সেই মাথাই খুঁজে পাইনা সেখানে লাদেনের প্যাচ, অন্যান্য জঙ্গি সংগঠনের প্যাচ বুঝবো কি ভাবে?  

যাইহোক যে বিষয়টা নিয়ে লিখতে চাই - সংবাদে প্রকাশিত নুরু নিজের দলের কাছে আক্রান্ত হয়েছে। দলটি হলো, সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ । এতোদিন যেমন তেমন, এবার তার দলের হাতেই নাজেহাল নুরু। নুরু একজন ছাত্র, তাকে নিয়ে মাতামাতির আসলেই কিছু নেই।  ওর চেয়ে বড় ধোড়া সাপ আছে এই দেশে পথে ঘাটে।  

প্রশ্নটা ভিন্ন স্থানে। পত্রিকায় এসেছে, দায় স্বীকার যে করেছে সে বলেছে -"মধ্যপ্রাচ্য ও ইউরোপ এবং আমেরিকা থেকে ইসলামি আন্দোলন সংগ্রামের আদর্শ ভাবাপন্ন ও আমাদের ছাত্র অধিকার পরিষদের শুভাকাঙ্ক্ষীদের পাঠানো অর্থ সে আত্মসাৎ করেছে। 

কোড- "মধ্যপ্রাচ্য ও ইউরোপ এবং আমেরিকা থেকে ইসলামি আন্দোলন সংগ্রামের আদর্শ ভাবাপন্ন ও আমাদের ছাত্র অধিকার পরিষদের শুভাকাঙ্ক্ষীদের"। 

১। ইসলামি আন্দোলন সংগ্রামের আদর্শ ভাবাপন্ন 

ক। ৯৫ শতাংশ মুসলমানদের দেশে এই ইসলামি আন্দোলন সংগ্রামী কারা?

খ। তাদের এজেন্ডা কি?  

গ। এই দেশে তাদের দলনেতা শাখা প্রশাখার অবস্থান কোথায়?  

ঘ। সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ নামে তারা এই ইসলামি আদর্শ সংগ্রাম এবং সম আদর্শ ভাবাপন্ন দল বা গোষ্ঠীর যুবসমাজে প্রতিষ্ঠিত কি না। 

ঙ। ৯৫ শতাংশ মুসলমানের দেশে আবার কোন ইসলাম প্রতিষ্ঠায় দেশের মধ্যে অর্থায়ন হচ্ছে বা হয়েছে, যার প্রতিষ্ঠায় সাধারণ ছাত্র অধিকার ব্যানার সক্রিয়।


২। "আমাদের ছাত্র অধিকার পরিষদের শুভাকাঙ্ক্ষী" 

ক। কারা এই শুভাকাঙ্ক্ষী? 

খ। ইসলামি আন্দোলন সংগ্রামী দলের সাথে এই শুভাকাঙ্ক্ষীদের সম্পর্ক কি?  

গ। শুভাকাঙ্ক্ষীদের এজেন্ডা কি?  

ঘ। সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের সাথে বাংলাদেশে এই শুভাকাঙ্ক্ষীদের যোগসূত্র কারা?  

মোটামুটি এই কয়েকটি সূত্র খুঁজে বের করতে পারলেই বোঝা যাবে ৯৫ শতাংশ মুসলমানের দেশে আবার কোন ইসলামি আন্দোলন তৈরি হতে নুরু ব্যবহৃত হয়েছে?  

আগেই বলেছি, নুরু কোন ফ্যাক্টর নয়। ফ্যাক্টর হলো সে অর্থায়নের একটি স্টপেজ এবং লবিষ্ট হিসাবে কাজ করেছে সেটা বলাই যায়।  

কি সেই লবিষ্ট, রাস্তাগুলো কিসের, কোন এজেন্ডা বাস্তবায়নে  ৯৫ শতাংশ মুসলমানের দেশে ইসলামি আন্দোলনের মেঘ জমা হচ্ছে বিষয়গুলোই ফ্যাক্ট।  সেই দিক থেকে নুরুকে ছোট করে দেখার কোন অবকাশ নেই। ভুল করে হোক আর মুখ ফসকে হোক ক্লু সামনে এসে গেছে। বাকি দায়িত্ব সরকারের এবং আইনের।  

কোন অবস্থাতেই দেশে অস্থিতিশীল অবস্থা কাম্য নয়।  এই দেশে বাংলা ভাই, সানি এরাও ইসলামি আন্দোলন চেয়েছিলো। অর্থায়ন হয়েছিলো দেশের বাইরে থেকে। এরপরে হাজারো উদাহরণ আছে। তাই বিষয়টি অতি গুরুত্বপূর্ণ।  

এরপর সে টাকা আত্মসাৎ করেছে কি না, ইত্যাদি ইত্যাদি বিষয়।  

যাইহোক নুরু আসিফ নজরুল, ড. কামাল গং, বিএনপি, পিনাকি এদের অনেক প্রিয়ভাজন।  তাদের দোয়া ভাজন।  মাঝখান থেকে ছেলেটার ভবিষ্যত অনিশ্চিত বলেই মনে হয়।