সম্পাদকীয়

বানিজ্যমন্ত্রী কখন জানলেন চামড়ার দরপতনে ব্যবসায়ীগণ দায়ী??

প্রকাশ: ১৪ আগস্ট ২০১৯

মোঃ তৈমুর মল্লিক ভূঁইয়া, উপ-সম্পাদক ■ বাংলাদেশ প্রেস

বাংলাদেশের মাননীয় বানিজ্য মন্ত্রী টিপু মুনশি অবশেষে জানালেন চামড়া শিল্প ধ্বংসের জন্য ভয়ংকর যে সিন্ডিকেট কাজ করেছে তারা আর কেউ নয়, চামড়া নিয়ে ব্যবসায়ী মহল। 

বড্ড জানতে ইচ্ছে করে মাননীয় মন্ত্রী, এই মূহুর্তে যদি আপনার নামে আদালতে মামলা হয় যে, আপনি যে বক্তব্য ঈদের ২ দিন পরে দিলেন তার সবটাই আপনি জানতেন এবং জেনে শুনে বিষয়টি গোপন করেছেন। কিন্তু আপনি আত্মপক্ষ সমর্থনের জন্য যথারীতি কাটগড়ায় দাঁড়ালেন এবং উকিল আপনাকে প্রশ্ন করলেন যে, "আপনি কখন জেনেছেন, চামড়ার দাম কমে যাবার পিছনে ব্যবসায়ী মহল দায়ী "? 

আপনার উত্তর কি হবে জানিনা, তবে সম্ভাব্য উত্তর হবে - আপনি একটু আগে জেনেছেন। কারণ আপনি যদি ভুলেও বলে বসেন, বিষয়টি সম্পর্কে আপনি ঈদের আগেই কোন এক সময় জেনেছেন তাহলে আপনি জিলিপির আড়াই প্যাঁচে পড়ে যাবেন।  

সম্ভাব্য প্যাঁচঃ 

১। আপনি জানার পর কি ব্যবস্থা গ্রহণ করেছিলেন? 

২। আপনি কি বিষয়টি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টিতে লিখিত আকারে এনেছিলেন?  

৩। আপনি কোন মাধ্যমে জেনেছেন?  

৪। বানিজ্য মন্ত্রনালয়ের প্রধান ব্যক্তি হিসাবে আপনি জনস্বার্থে জনগণের কান পর্যন্ত বিষয়টি মিডিয়ার মাধ্যমে কি জানিয়েছিলেন?  

৫। আপনি কি চামড়া ব্যবসায়ীদের উদ্দেশ্যে কোন বার্তা দিয়েছিলেন?  

৬। যদি দিয়ে থাকেন তাহলে সেখানে কি বলেছিলেন? 

৭। যদি না বলে থাকেন তাহলে যে বিষয়ের অবতারণা হলো এবং তার জন্য আপনি নিজেকে দায়ী মনে করেন কি না? 

মাননীয় বানিজ্য মন্ত্রী আপনি যদি বিষয়টি এইমাত্র বা আপনার বক্তব্য প্রদানের কিছু আগে জেনে থাকেন তাহলে সাধারণ জনগণ যদি জিজ্ঞাসা করে, চামড়ার মতো গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে আপনি নিজ দায়িত্বে সম্পূর্ণ ব্যার্থ কি না?  

তাহলে আপনার উত্তর কি হবে জানার খুব ইচ্ছা হয়। জনগণ যদি এটাও বলে, আপনি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর চাপে যখন দৌড়াতে শুরু করেছেন কি না! বা চামড়া শিল্প ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে এনে আপিনি নিজের দায়মুক্তির জন্য ব্যবসায়ীদের কাঁধে সব দায় তুলে দিচ্ছেন কি না!  তাহলে আপনার উত্তর কি হবে?  

রুগী মৃত হবার পর আপনাদের এই ধরনের বক্তব্য যে প্রধানমন্ত্রীকে প্রশ্নবিদ্ধ করে সেটা কি একবারও ভেবে দেখেছেন? জনগণের প্রশ্ন জন্ম নিতে শুরু করেছে, ঘটনা ঘটে যাবার পরে আপনারা তখন সব জানেন এমন মন্তব্য শুধুমাত্র মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে প্রশ্নবিদ্ধ করার জন্য নয়তো?  

যাইহোক, যখন আপনি অকপটে বলেছেন, চামড়ার দাম কমার জন্য ব্যবসায়ী মহল দায়ী, তাহলে আপনি নিশ্চই সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে যথার্থ আইন প্রয়োগ করবেন।

যদিও জনগন জানে আপনি এসব কিছুই করবেন না। যদি কিছু করার থাকে তাহলে সেটা করবে সেই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী।  

অনেক হয়েছে, এবার অন্তত একটু জেগে উঠুন। ঘটনা ঘটার আগেই যেন বিষয়ের সমাধান হয় এমন ব্যবস্থা গ্রহন করুন।  আরতো নেয়া যাচ্ছে না আপনাদের অতি কথন। 

আমরা যতদুর জানি ক্যাবিনেটে আরাম করতে যাননি, আপনারা মঞ্চের ভাষনে অবশ্য এমন কথা নিজেরাই বলেন।  তাহলে এবার অন্তত প্রমান দিন, আপনারা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ডান হাত হয়ে কাজ করছেন। না হলে যে সব চেষ্টা মাটি হয়ে যাবে।।