সম্পাদকীয়

  • বিআরটিসি দিয়ে সড়কের দখল নিন, নৈরাজ্য ধ্বংস করুন

    বিআরটিসি দিয়ে সড়কের দখল নিন, নৈরাজ্য ধ্বংস করুন

  • আজ ২৫ মার্চ : গণহত্যা দিবস

    আজ ২৫ মার্চ : গণহত্যা দিবস

  • ২৫ মার্চের গণহত্যা - ২৬'র সকাল

    ২৫ মার্চের গণহত্যা - ২৬'র সকাল

  • ২৫শে মার্চ গনহত্যা দিবস কিভাবে এল?

    ২৫শে মার্চ গনহত্যা দিবস কিভাবে এল?

  • উপজেলা নির্বাচন অশুভশক্তির পাতানো ফাঁদে--নৌকা প্রত্যাহার হতে পারে উপযুক্ত জবাব

    উপজেলা নির্বাচন অশুভশক্তির পাতানো ফাঁদে--নৌকা প্রত্যাহার হতে পারে উপযুক্ত জবাব

আ. লীগের আপোষকামিতা মানায় না

প্রকাশ: ০৬ নভেম্বর ২০১৮     আপডেট: ০৬ নভেম্বর ২০১৮

আবদুল মালেক, উপ-সম্পাদক, বাংলাদেশ প্রেস

আওয়ামী লীগ ও আপোষকামিতা এ দু'টো এক সাথে চলতে পারে না। তবে তো বাংলাদেশ স্বাধীনই হতো না। আপোষের জৌলুশ ক্ষণস্থায়ী, আদর্শের স্থায়িত্ব যুগ-যুগান্তর। আপোষ করলে বঙ্গবন্ধু হতে পারতেন অখন্ড পাকিস্তানেব অধীশ্বর, বিত্ত-বৈভব আর বিলাস-ব্যসনে কাটতো জীবন। কিন্তু সে পথে যাননি তিনি। না ধর্ম, না রাজনীতি, না দুর্নীতি, বঙ্গবন্ধু কোথাও আপোষকামী হোননি।


দুর্নীতি ও ধর্ম ভিত্তিক রাজনীতির কুফল ভোগ করছে পাকিস্তান। অন্যান্য দেশ সামনে এগুচ্ছে, পাকিস্তান হচ্ছে সন্ত্রাসী রাষ্ট্র। একত্রে জন্ম নেয়া ভারত সফটওয়ার রফতানি করে, পাকিস্তান রফতানি করে জঙ্গি। বিএনপি'র চেহারাটি দেখুন। ধর্মীয় দলগুলোকে কাছে টেনে কি লেজে-গুবরে অবস্থা। বিএনপি ধর্মীয় উগ্রবাদ উসকে দিয়ে নিজেরাই ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে। ধর্মীয় রাজনীতির একই ভুল আ. লীগের জন্য মানানসই হবেনা।


শুভ হোক বা না হোক, আওয়ামী লীগের আগের অসাম্প্রদায়িক চরিত্রটি আর নেই। মোড়ক বদলে একটু একটু করে শাসক জোটের এ দলটি ধর্মীয় খোলসে আবদ্ধ হচ্ছে। এটি বাঙালী জাতি-রাষ্ট্রের জন্য অত্যন্ত বিপজ্জনক। বিশেষত: আওয়ামী লীগের মতে একটি প্রাচীন, অভিজ্ঞ ও পোড় খাওয়া রাজনৈতিক দল শুধুমাত্র ক্ষমতা কেন্দ্রিক রাজনীতি করবে তা হতেই পারে না। ভাবাই যায় না, যে দলটি যুদ্ধাপরাধীর বিচার করছে, সেই তারাই আবার নানা ছদ্মাবরনে জামায়াতের সদস্যদের আওয়ামী লীগে আত্মীকরণ করছে।


রাজনীতিতে ধর্মকে হাতিয়ার বানানো বিপদজ্জনক' এই চরম সত্য বঙ্গবন্ধু উপলব্ধি করেছিলেন বলেই স্বাধীনতার পর ধর্মীয় রাজনীতি নিষিদ্ধ করেছিলেন। বঙ্গবন্ধুর সেই আওয়ামী লীগে চলছে ধর্মীয় আপোষকামিতা। কখনো যুগপৎ আন্দোলনের নামে, কখনো হেফাজতের আন্দোলন থামাতে। সাম্প্রদায়িক শক্তির সাথে যুগলে পথচলার পরিণতি খুব শুভ হবে বলে মনে হয় না।


জাতীয় নির্বাচন সন্নিকটে। প্রতিটি রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহণে নির্বাচন চায় শাসক দল। সেক্ষেত্রে দলগুলোর আমলনামা যাচাই-বাছাই করবেন ভোটারগণ এটাই স্বাভাবিক। আওয়ামী লীগ প্রার্থীদের আমলনামাও দেখবে। টাকা-পয়সা এবং এলাকায় অনৈতিক আধিপত্য আছে এমন কেউ যেন মনোনয়ন না পায় সেদিকটি অবশ্যই দেখতে হবে।

পরবর্তী খবর পড়ুন : সিলিন্ডার বিস্ফোরণ, বাবা ও মায়ের পর ছেলেও চলে গেল


আরও পড়ুন

কালীগঞ্জে স্বামীর এলোপাতাড়ি মারে  স্ত্রী নিহত

কালীগঞ্জে স্বামীর এলোপাতাড়ি মারে স্ত্রী নিহত

গাজীপুরের কালীগঞ্জ উপজেলায় এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে তাঁর স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যার ...

অনুষ্ঠান চলাকালেই ভেঙ্গে পড়লো স্মৃতিসৌধের ডিসপ্লে বোর্ড

অনুষ্ঠান চলাকালেই ভেঙ্গে পড়লো স্মৃতিসৌধের ডিসপ্লে বোর্ড

সাভারের জাতীয় স্মৃতিসৌধের চত্বরে স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠান চলাকালে মঞ্চের পাশের ...

উত্তরায় শিশু গৃহকর্মীর লাশ উদ্ধার, এলাকাবাসীর বিক্ষোভ

উত্তরায় শিশু গৃহকর্মীর লাশ উদ্ধার, এলাকাবাসীর বিক্ষোভ

রাজধানীর উত্তরায় এক শিশু গৃহকর্মীর লাশ উদ্ধার হয়েছে। শিশুটিকে হত্যার ...

বুধবার গাজীপুরে শুরু হচ্ছে দ্বিতীয় চারুকলা উৎসব

বুধবার গাজীপুরে শুরু হচ্ছে দ্বিতীয় চারুকলা উৎসব

সৃষ্টিশীল শিল্পকলা চর্চার মাধ্যমে রুচিশীল সংস্কৃতিমনস্ক মানবিক প্রজন্ম গড়ে তোলা ...

বিক্রমপুরের নূরুলকে নিয়ে অনলাইন দুনিয়ায় আলোচনার ঝড়

বিক্রমপুরের নূরুলকে নিয়ে অনলাইন দুনিয়ায় আলোচনার ঝড়

বিশ্বজুড়ে অনলাইনে ঝড় তুলেছে বাংলাদেশি এক প্রবাসী নির্মাণ শ্রমিক। সোশ্যাল ...

গোদাগাড়ীতে পদ্মা নদীতে নৌকা ডুবিতে একজন নিখোঁজ

গোদাগাড়ীতে পদ্মা নদীতে নৌকা ডুবিতে একজন নিখোঁজ

রাজশাহীর গোদাগাড়ী পদ্মা নদীতে ইঞ্জিন চালিত নৌকা ডুবিতে একজন নিখোঁজ ...

'দেয়ালিকায় ভাসে স্বাধীনতার ছবি'

'দেয়ালিকায় ভাসে স্বাধীনতার ছবি'

স্বাধীনতা! শুধু একটি শব্দ বা কতগুলো অক্ষরের সমষ্টি নয়। এ ...

সকল তথ্য রাখা যাবে ডিএনএর মধ্যে

সকল তথ্য রাখা যাবে ডিএনএর মধ্যে

ডিএনএর মধ্যে তথ্য সংরক্ষণ করে পরে তা পুনরুদ্ধার করা যাবে। ...