সম্পাদকীয়

  • সৃজনশীল আইডিয়ার লাভ-ক্ষতির হিসাব

    সৃজনশীল আইডিয়ার লাভ-ক্ষতির হিসাব

  • ঐক্যফ্রন্ট কতৃক নির্বাচনী ফলাফল প্রকাশ - কৌশলে পরাজিত

    ঐক্যফ্রন্ট কতৃক নির্বাচনী ফলাফল প্রকাশ - কৌশলে পরাজিত

  • পুঁজিবাদী প্রেমের নামে অশ্লীল প্রেমের বিপক্ষে দাঁড়িয়েছে ঢাবি ছাত্ররা

    পুঁজিবাদী প্রেমের নামে অশ্লীল প্রেমের বিপক্ষে দাঁড়িয়েছে ঢাবি ছাত্ররা

  • ফাগুন হোক বাঙ্গালীর ভালোবাসা দিবস। আসুন ভালোবেসে ফুলদি শহীদ চরণে।

    ফাগুন হোক বাঙ্গালীর ভালোবাসা দিবস। আসুন ভালোবেসে ফুলদি শহীদ চরণে।

  • নিরাপদ খাদ্যের জন্য ক্রুসেড!

    নিরাপদ খাদ্যের জন্য ক্রুসেড!

আ লীগ নিজেই খামচে ধরে উন্নয়ন....

প্রকাশ: ০৪ অক্টোবর ২০১৮

আবদুল মালেক, উপ-সম্পাদক, বাংলাদেশ প্রেস

জামায়াত নেতাকে পুলিশের কাছে থেকে যে আওয়ামী লীগ নেতা ছিনিয়ে নিয়েছে তার ব্লাড টেস্ট করুন। সে কখনোই আওয়ামী পরিবারের সদস্য হতে পারেনা। শেখ হাসিনার শত কষ্টের অর্জনকে যারা প্রশ্নবিদ্ধ করে এরা বাঙ্গালী হতে পারেনা। শেখ হাসিনার ৩৭ বছরের প্রাণান্ত পরিশ্রমের ফসল, অগ্রসরমান বাংলাদেশ। দুনিয়ার বিপরীতে দাঁড়িয়ে যুদ্ধাপরাধীর বিচার, তাঁর অন্যতম সাফল্য। কিন্তু চমকে উঠি, কর্মী সংগ্রহের নামে কিছু স্বার্থান্বেষী নেতা যখন রাজাকারের গলায় মালা দেয়। কর্মীর অাকাল পড়েছে? যারা দেশই স্বীকার করেনা, তারা অা. লীগ করবে কোনোকালে?  দিনশেষে এদের গন্তব্য কি অজানা?  তবে এসব কিসের অালামত?


অতীতের বিপর্যয়গুলো পর্যালোচনা করলে এটি স্পষ্ট, অাওয়ামী লীগের দুঃসময়ের জন্য দলটি নিজেই বহুলাংশে দায়াী। অর্জনের সমৃদ্ধ ইতিহাস সত্বেও নিজের পায়ে নিজেই কুড়াল মেরেছে স্বাধীনতার সাড়ে তিন বছরের মাথায়। ক্ষমতার বৃত্তেই লুকানো ছিল সেই ঘাতক মীরজাফর। ৭৫'র বেদনাবিধুর ও দুনিয়া কাঁপানো কালো অধ্যায়ই এর প্রকৃষ্ট উদাহরণ। সেই ঘটনা কল্পনায়ও অানতে চাই না। তবে চাইলেই কি সব ভুলা যায়?


একটি সময় (১৯৭৫-৯০) ছিল যখন অাওয়ামী লীগের, বঙ্গবন্ধুর, মুক্তিযুদ্ধের, স্বাধীনতার কথা  উচ্চারন করা ছিল বিপজ্জনক। জেল-জুলুম, খুন ছিল প্রাত্যহিক বিষয়। সেই দুরবস্থার মধ্যে ১৯৮১ সালে দলের সভাপতি নির্বাচিত হয়ে দেশে ফিরেন শেখ হাসিনা।  একদিকে সব হারানো বেদনা, অন্যদিকে সেনাশাসকের রক্তচক্ষু। সব মিলিয়ে ভয়ানক পরিস্থিতি। তবু হাল ছাড়েননি তিনি। 


ভাঙ্গা-গড়া, সে তো পৃথিবীর অমোঘ নিয়ম। দলের নেতৃত্ব বিভক্ত, বিভক্ত দলও। শেখ হাসিনা দল পুনর্গঠন করেন ব্যাক্তিগত শোক ভুলে, অাজ যার সুফল পাচ্ছে ১৬ কোটি নাগরিক। কিন্তু শেখ হাসিনার এই ঔদার্য্যের মর্যাদা কি দিতে পারছে তার দলের কতিপয় মন্ত্রী, এমপি, প্রভাবশালী? অাওয়ামী লীগের নাম ভাঙ্গিয়ে কতিপয় লোভী নেতা অাজ শেখ হাসিনার অর্জনে কালিমা লেপনে সচেষ্ট, কেন? 


বঙ্গবন্ধুর সেই সত্যভাষণটি বড় মনে পড়ে, পীড়িত করে। চাটার দল সত্যিই খামচে ধরে অা. লীগের অগ্রগতি, অার এদের কারনে নেতৃত্বকে করে প্রশ্নবিদ্ধ। চাটাদের জন্যই প্রাণ দিয়েছেন সর্বকালের শ্রেষ্ঠ বাঙালী। মাননীয়া প্রধানমন্ত্রী, অাপনার কাছে সবিনয় নিবেদন, যারা দলের বদনাম করছে, এদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিন। অাওয়ামী লীগে জামায়াত থেকে অাসা কর্মীর কখনোই প্রয়োজন ছিলনা, হবেও না। জামায়াত নেতাকে পুলিশের কাছে থেকে যে  ছিনিয়ে নেয় তার ব্লাড টেস্ট করুন, সে কষ্মিনকালেও আওয়ামী পরিবারের সদস্য হতে পারেনা।

জয়বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু।


লেখকঃ উপ-সম্পাদক, বাংলাদেশ প্রেস।

আরও পড়ুন

দেশে ফিরে আসার শর্তে শিক্ষাবৃত্তি দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

দেশে ফিরে আসার শর্তে শিক্ষাবৃত্তি দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার “প্রধানমন্ত্রী ফেলোশিপ ২০১৯” ঘোষণা করেছে যার আওতায় ...

শিক্ষা ও মেধাকে প্রাধান্য দিয়ে আমাদের এগোতে হবে : মোস্তাফা জব্বার

শিক্ষা ও মেধাকে প্রাধান্য দিয়ে আমাদের এগোতে হবে : মোস্তাফা জব্বার

ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, অস্ত্র আর ...

নির্বাচনে কারচুপি হলে কেন প্রতিহত করলেন না : বিএনপিকে নাসিম

নির্বাচনে কারচুপি হলে কেন প্রতিহত করলেন না : বিএনপিকে নাসিম

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে চ্যালেঞ্জ করে বিএনপির প্রার্থীদের মামলা প্রসঙ্গে ...

অভিন্ন পদ্ধতিতে হবে শিক্ষক-কর্মচারী নিয়োগ

অভিন্ন পদ্ধতিতে হবে শিক্ষক-কর্মচারী নিয়োগ

বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সরকারি শিক্ষকের আদলে অভিন্ন পদ্ধতিতে উপাধ্যক্ষ, অধ্যক্ষ ...

‘ভালোবাসা দিবসের ঠিক ৯ মাস পর কেন শিশু দিবস?’

‘ভালোবাসা দিবসের ঠিক ৯ মাস পর কেন শিশু দিবস?’

বিশ্ব ভালোবাসা দিবসের ঠিক ৯ মাস তিন দিন পর কেন ...

সবচেয়ে দ্রুত গতিসম্পন্ন ট্রেন এসে পৌঁছেছে দেশে

সবচেয়ে দ্রুত গতিসম্পন্ন ট্রেন এসে পৌঁছেছে দেশে

দেশের বৃহত্তম রেলওয়ে কারখানা সৈয়দপুরে পৌঁছেছে ইন্দোনেশিয়া থেকে আমদানি করা ...

তিন দিনে ৪ মুসল্লির মৃত্যু বিশ্ব ইজতেমার মাঠে

তিন দিনে ৪ মুসল্লির মৃত্যু বিশ্ব ইজতেমার মাঠে

গেল তিন দিনে চার মুসল্লির মৃত্যু হয়েছে টঙ্গীর তুরাগতীরে বিশ্ব ...

জামায়াত বিলুপ্তির পরামর্শ দিয়ে ব্যারিস্টার রাজ্জাকের পদত্যাগ

জামায়াত বিলুপ্তির পরামর্শ দিয়ে ব্যারিস্টার রাজ্জাকের পদত্যাগ

জামায়াত ইসলামিকে বিলুপ্ত ঘোষণা ও ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের বিপক্ষে অবস্থান ...