সম্পাদকীয়

  • দায়িত্বহীনতায় একি মৃত্যু নাকি হত্যা?

    দায়িত্বহীনতায় একি মৃত্যু নাকি হত্যা?

  • নতুন রুপে একুশে ফেব্রুয়ারি ও প্রধানমন্ত্রীর নিকট প্রস্তাব

    নতুন রুপে একুশে ফেব্রুয়ারি ও প্রধানমন্ত্রীর নিকট প্রস্তাব

  • আগুন যখন দুর্নীতিতে দগ্ধ - মানুষ পুড়বেই, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী!

    আগুন যখন দুর্নীতিতে দগ্ধ - মানুষ পুড়বেই, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী!

  • সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে স্বাধীনতার ইতিহাস ফিরবে আবার

    সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে স্বাধীনতার ইতিহাস ফিরবে আবার

  • আধুনিক বাংলাদেশের রূপকার শেখ হাসিনা

    আধুনিক বাংলাদেশের রূপকার শেখ হাসিনা

সোহেল তাজের ৮ বৈশিষ্ট্য ও স্বৈরাচার নির্ণয়

প্রকাশ: ০৯ আগস্ট ২০১৮     আপডেট: ০৯ আগস্ট ২০১৮

অজয় দাশগুপ্ত

খবরের কাগজে ও দেখলাম সোহেল তাজের দেয়া স্বৈরাচারের ৮ বৈশিষ্ট্য। যার মানে তিনি এগুলো লিখেছেন। সামাজিক মিডিয়ায় আজকাল যা আসে তার বেশীরভাগ ই এখন আর বিশ্বাস করা যায়না। বিশেষত এবারের আন্দোলন বা উত্তাপ বারবার বলে দিয়েছে সামাজিক মিডিয়ার সবকিছু নেয়া যাবেনা। সেখানে অসম্পাদিত নিউজ বা ভিউজ এতটাই প্রচন্ড আর বেপরোয়া মাঝে মাঝে তালগোল পাকিয়ে যায়। যার যা খুশী লেখার জায়গা সোশ্যাল মিডিয়া। দেশে দেশে এর সুফল ও কুফলের দিকটা এখন প্রকাশ্য। বহুবার বলেছি আমরা প্রস্তুত জাতি হবার আগেই খুলে গেছে এর দু্য়ার। একজন মেধাবী মানুষ যা দেখেন বা যা লেখেন লেখাপড়া নাজানা মানুষ ও তাই দেখেন তা শুনতে পান। এর প্রভাব কি হতে পারে? দুজনের কাছে দু রকম অর্থ নিয়ে আসা এক নিউজ কতটা ভয়ংকর আর কতটা আগ্রহের জন্ম দিতে পারে সেটা নির্ণয় করা তখন কঠিন বৈকি। এতদিন পর যখন সরকারের জন্য তা হুমকি মনে হয়েছে তখন ই তাঁরা কঠিন হয়ে উঠতে চাইছেন। এমনও শুনছি প্রয়োজনে ফেইস বুক নাকি বন্ধ করে দেয়া হবে। সেটাকি আসলেই সমাধান? সমাধান যে না সেটা যাঁরা করতে চান তাঁরাও জানেন। তবু নিজেদের স্বার্থে করার কথা বলছেন। আমরা যারা সাধারণ মানুষ সামাজিক মিডিয়ার যাবতীয় নোংরামী উস্কানীর পরও এর কাছ থেকে সরতে পারিনা। বিশেষত বিদেশের বাঙালির খোরাক এই মাধ্যম। এর মাধ্যমে মুক্ত মতামত  আর নানা ধরণের প্রতিক্রিয়া পাই আমরা। মুশকিল হলো ন্যায় অন্যায় বা শুভ অশুভ বিচারে আমাদের অন্ধত্ব। আমরা  এমন এক জাতি যার পরিচয় দুই দলের ভেতর আটকা পড়ে আছে। সে কারণে সোহেল তাজের মত সাহসী মানুষের এই বক্তব্য ও আমাদের চোখে দু ভাবে বিবেচিত হবে। 


একদল বলবে আওয়ামী লীগের রাজনীতি থেকে হয়তো ছিটকে পড়বেন তিনি। কেউ বলবে বোধোদয় হয়েছে। তাঁর পিতার মতো তিনি ও আজ সরকারী দলের চোখের দুশমন হবেন। আর একদল বলবে এর নাম ভ্রান্তি। সোহেল তাজ আবারো সে ভুল করলেন যে ভুলের মাশুল দিয়েছিলেন তাঁর পিতা তাজউদ্দিন আহমেদ। কিন্তু যেভাবে বা যে কারণেই হোক সোহেল তাজের এই ৮ বৈশিষ্ট্য  সরকারী দলের জন্য প্রীতিকর কিছু না। কারণ এইসব বৈশিষ্ট্যের অনেকগুলো  বর্তমান সরকারের আচরণের সাথে মিলে যাচ্ছে। মিলে গেলেও বুঝতে হবে তিনি সত্য বলতে চেয়েছেন। যদি কিছু মিলে যায় তার প্রতিকার করা প্রয়োজন। কে না জানে আমাদের দেশে কোন দল চাইলেই নির্বিঘ্নে দেশ শাসন করতে পারেনা। আওয়ামী লীগ জনগণ নির্ভর একটি বড় দল। যাদের দেশের ধুলিকণায় অধিকার আছে। যিনি না হলে এদেশ স্বাধীন হতোনা সে বঙ্গবন্ধু আর তাঁর যোগ্য নেতাদের কারণেই দেশ মুক্ত হয়েছিল। পরপর  দু দু বারের গদী লাভ আর দেশ শাসনে তারা আমাদের দেশকে অনেক দিয়েছে। এখন বাংলাদেশ একটি অগ্রসর দেশ। আমাদের দেশের গায়ে লেগেছে নতুন হাওয়া। কিন্তু দেশ আর অর্থনীতিতে হাওয়া লাগলেও সমাজ আর রাষ্ট্র ভালো নেই। এই ভালো নেই থেকে মুক্ত হতে হলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সোহেল তাজের বক্তব্যগুলো মিলিয়ে প্রতিকার প্রয়োজন।


কারণ আমরা দেখেছি এদেশ কোনদিন কোন স্বৈরাচারকে বরদাশত করেনি। কোন একনায়ক বন্দুক বা ক্যাডারের জোরে বেশীদিন টিকতে পারেনি। শুধু তা নয় দেশে তারা ঘৃণিত এবং নিন্দিত হয়েছে। আমরা আওয়ামী বান্ধবদের বলবো এ বিবেচনা মাথায় রাখা দরকার। সোহলে তাজের পিতার কথা না শোনার কারণে এদেশের ইতিহাস রক্তাক্ত হয়েছিল । তিনি নিজেও জান দিয়ে প্রমাণ করেছিলেন কতটা আনুগত্য আর দেশপ্রেম ছিলো তাঁর। সোহেল তাজের সাথে কি হয়েছিল কি হবে সে আলোচনায় না গিয়েই বলা যায় তিনি সাহসী। তাঁর এই সাহস কিভাবে মূল্যায়ন করা হয় বা কি এর পরিণতি তা দেখার আশায় থাকলাম।




লেখক: সিডনি প্রবাসী, কলামিস্ট ও বিশ্ববিদ্যালয় পরীক্ষক

আরও পড়ুন

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের গণশুনানি আজ

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের গণশুনানি আজ

সদ্যসমাপ্ত একাদশ জাতীয় নির্বাচনে ভোটের অনিয়ম নিয়ে আজ গণশুনানি করবে ...

ধসে পড়ার ঝুঁকিতে ওয়াহিদ ম্যানশন: বুয়েটের বিশেষজ্ঞ দল

ধসে পড়ার ঝুঁকিতে ওয়াহিদ ম্যানশন: বুয়েটের বিশেষজ্ঞ দল

বুধবার রাত সাড়ে ১০টা। চকবাজারের চুড়িহাট্টা মোড়ের সামনে ভয়াবহ যানজট। ...

ময়মনসিংহে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ১, অস্ত্র-হেরোইন উদ্ধার

ময়মনসিংহে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ১, অস্ত্র-হেরোইন উদ্ধার

ময়মনসিংহে জেলা গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ এক মাদকবিক্রেতা ...

দগ্ধদের চিকিৎসার সব খরচ বহন করবে সরকার: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

দগ্ধদের চিকিৎসার সব খরচ বহন করবে সরকার: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, পুরান ঢাকা খুবই ঘনবসতিপূর্ণ। এখান থেকে ...

অগ্নিকাণ্ডে নিহতদের শেষ ঠিকানা আজিমপুর কবরস্থান

অগ্নিকাণ্ডে নিহতদের শেষ ঠিকানা আজিমপুর কবরস্থান

২৪ ঘণ্টা আগেও যারা জীবিত ছিলেন; তাদের পুড়ে ঝলসে যাওয়া ...

'দুই বাংলার মধ্যে কোনো কাটাতারের বেড়া চাই না'

'দুই বাংলার মধ্যে কোনো কাটাতারের বেড়া চাই না'

‘একই আকাশ একই বাতাস, দুই বাংলার মানুষের ভাষা এক। একই ...

টনক কি নড়েছে রাষ্ট্রের? ফেসবুক থেকে !

টনক কি নড়েছে রাষ্ট্রের? ফেসবুক থেকে !

Nizam Masumএ দায় আমাদের। মরার আগে তাঁদের আর্তচিৎকার আর হাহাকারের ...

চকবাজারের চুড়িহাট্টায় গিয়ে যে চিত্র দেখা গেল

চকবাজারের চুড়িহাট্টায় গিয়ে যে চিত্র দেখা গেল

রাজধানীর চকবাজারের চুড়িহাট্টায় একটি আবাসিক ভবনে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের মর্মান্তিক বিবরণ ...