সম্পাদকীয়

  • মানুষের মাঝে বদলানোর মানসিকতা নেই

    মানুষের মাঝে বদলানোর মানসিকতা নেই

  • জিয়া পরিবার ধ্বংসে উল্লেখযোগ্য ১১টি আলৌকিক প্রভাব৷

    জিয়া পরিবার ধ্বংসে উল্লেখযোগ্য ১১টি আলৌকিক প্রভাব৷

  • "নীলকুঠি প্রসাদ ষড়যন্ত্র" মুক্তির আগে ফ্লপ--আওয়ামী জোটে খুশীর বন্যা

    "নীলকুঠি প্রসাদ ষড়যন্ত্র" মুক্তির আগে ফ্লপ--আওয়ামী জোটে খুশীর বন্যা

  • বুবু তুমি কেঁদো না

    বুবু তুমি কেঁদো না

  • বঙ্গবন্ধুর ভাষণ ও একটি ২৮ ইঞ্চি সাদাকালো টেলিভিশন

    বঙ্গবন্ধুর ভাষণ ও একটি ২৮ ইঞ্চি সাদাকালো টেলিভিশন

সোহেল তাজের ৮ বৈশিষ্ট্য ও স্বৈরাচার নির্ণয়

প্রকাশ: ০৯ আগস্ট ২০১৮     আপডেট: ০৯ আগস্ট ২০১৮

অজয় দাশগুপ্ত

খবরের কাগজে ও দেখলাম সোহেল তাজের দেয়া স্বৈরাচারের ৮ বৈশিষ্ট্য। যার মানে তিনি এগুলো লিখেছেন। সামাজিক মিডিয়ায় আজকাল যা আসে তার বেশীরভাগ ই এখন আর বিশ্বাস করা যায়না। বিশেষত এবারের আন্দোলন বা উত্তাপ বারবার বলে দিয়েছে সামাজিক মিডিয়ার সবকিছু নেয়া যাবেনা। সেখানে অসম্পাদিত নিউজ বা ভিউজ এতটাই প্রচন্ড আর বেপরোয়া মাঝে মাঝে তালগোল পাকিয়ে যায়। যার যা খুশী লেখার জায়গা সোশ্যাল মিডিয়া। দেশে দেশে এর সুফল ও কুফলের দিকটা এখন প্রকাশ্য। বহুবার বলেছি আমরা প্রস্তুত জাতি হবার আগেই খুলে গেছে এর দু্য়ার। একজন মেধাবী মানুষ যা দেখেন বা যা লেখেন লেখাপড়া নাজানা মানুষ ও তাই দেখেন তা শুনতে পান। এর প্রভাব কি হতে পারে? দুজনের কাছে দু রকম অর্থ নিয়ে আসা এক নিউজ কতটা ভয়ংকর আর কতটা আগ্রহের জন্ম দিতে পারে সেটা নির্ণয় করা তখন কঠিন বৈকি। এতদিন পর যখন সরকারের জন্য তা হুমকি মনে হয়েছে তখন ই তাঁরা কঠিন হয়ে উঠতে চাইছেন। এমনও শুনছি প্রয়োজনে ফেইস বুক নাকি বন্ধ করে দেয়া হবে। সেটাকি আসলেই সমাধান? সমাধান যে না সেটা যাঁরা করতে চান তাঁরাও জানেন। তবু নিজেদের স্বার্থে করার কথা বলছেন। আমরা যারা সাধারণ মানুষ সামাজিক মিডিয়ার যাবতীয় নোংরামী উস্কানীর পরও এর কাছ থেকে সরতে পারিনা। বিশেষত বিদেশের বাঙালির খোরাক এই মাধ্যম। এর মাধ্যমে মুক্ত মতামত  আর নানা ধরণের প্রতিক্রিয়া পাই আমরা। মুশকিল হলো ন্যায় অন্যায় বা শুভ অশুভ বিচারে আমাদের অন্ধত্ব। আমরা  এমন এক জাতি যার পরিচয় দুই দলের ভেতর আটকা পড়ে আছে। সে কারণে সোহেল তাজের মত সাহসী মানুষের এই বক্তব্য ও আমাদের চোখে দু ভাবে বিবেচিত হবে। 


একদল বলবে আওয়ামী লীগের রাজনীতি থেকে হয়তো ছিটকে পড়বেন তিনি। কেউ বলবে বোধোদয় হয়েছে। তাঁর পিতার মতো তিনি ও আজ সরকারী দলের চোখের দুশমন হবেন। আর একদল বলবে এর নাম ভ্রান্তি। সোহেল তাজ আবারো সে ভুল করলেন যে ভুলের মাশুল দিয়েছিলেন তাঁর পিতা তাজউদ্দিন আহমেদ। কিন্তু যেভাবে বা যে কারণেই হোক সোহেল তাজের এই ৮ বৈশিষ্ট্য  সরকারী দলের জন্য প্রীতিকর কিছু না। কারণ এইসব বৈশিষ্ট্যের অনেকগুলো  বর্তমান সরকারের আচরণের সাথে মিলে যাচ্ছে। মিলে গেলেও বুঝতে হবে তিনি সত্য বলতে চেয়েছেন। যদি কিছু মিলে যায় তার প্রতিকার করা প্রয়োজন। কে না জানে আমাদের দেশে কোন দল চাইলেই নির্বিঘ্নে দেশ শাসন করতে পারেনা। আওয়ামী লীগ জনগণ নির্ভর একটি বড় দল। যাদের দেশের ধুলিকণায় অধিকার আছে। যিনি না হলে এদেশ স্বাধীন হতোনা সে বঙ্গবন্ধু আর তাঁর যোগ্য নেতাদের কারণেই দেশ মুক্ত হয়েছিল। পরপর  দু দু বারের গদী লাভ আর দেশ শাসনে তারা আমাদের দেশকে অনেক দিয়েছে। এখন বাংলাদেশ একটি অগ্রসর দেশ। আমাদের দেশের গায়ে লেগেছে নতুন হাওয়া। কিন্তু দেশ আর অর্থনীতিতে হাওয়া লাগলেও সমাজ আর রাষ্ট্র ভালো নেই। এই ভালো নেই থেকে মুক্ত হতে হলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সোহেল তাজের বক্তব্যগুলো মিলিয়ে প্রতিকার প্রয়োজন।


কারণ আমরা দেখেছি এদেশ কোনদিন কোন স্বৈরাচারকে বরদাশত করেনি। কোন একনায়ক বন্দুক বা ক্যাডারের জোরে বেশীদিন টিকতে পারেনি। শুধু তা নয় দেশে তারা ঘৃণিত এবং নিন্দিত হয়েছে। আমরা আওয়ামী বান্ধবদের বলবো এ বিবেচনা মাথায় রাখা দরকার। সোহলে তাজের পিতার কথা না শোনার কারণে এদেশের ইতিহাস রক্তাক্ত হয়েছিল । তিনি নিজেও জান দিয়ে প্রমাণ করেছিলেন কতটা আনুগত্য আর দেশপ্রেম ছিলো তাঁর। সোহেল তাজের সাথে কি হয়েছিল কি হবে সে আলোচনায় না গিয়েই বলা যায় তিনি সাহসী। তাঁর এই সাহস কিভাবে মূল্যায়ন করা হয় বা কি এর পরিণতি তা দেখার আশায় থাকলাম।




লেখক: সিডনি প্রবাসী, কলামিস্ট ও বিশ্ববিদ্যালয় পরীক্ষক

আরও পড়ুন

দেশে তত্ত্বাবধায়ক সরকার আর কোনো দিন আসবে না

দেশে তত্ত্বাবধায়ক সরকার আর কোনো দিন আসবে না

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ উপদেষ্টা পরিষদের নেতা এবং বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ ...

দুঃশাসনের যাঁতাকলে পিষ্ট হয়ে মানুষের ঈদের আনন্দ মলিন: রিজভী

দুঃশাসনের যাঁতাকলে পিষ্ট হয়ে মানুষের ঈদের আনন্দ মলিন: রিজভী

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, দেশে যে ...

জামিন মেলেনি অভিনেত্রী কাজী নওশাবা আহমেদের

জামিন মেলেনি অভিনেত্রী কাজী নওশাবা আহমেদের

‘নিরাপদ সড়ক’র দাবিতে আন্দোলন ঘিরে তথ্যপ্রযুক্তি আইনে একটি মামলায় অভিনেত্রী ...

সিএনজি ফিলিং স্টেশন ২৪ ঘণ্টা খোলা

সিএনজি ফিলিং স্টেশন ২৪ ঘণ্টা খোলা

পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে সারা দেশে ঈদের আগে ও পরে ...

সরকারি কর্মীদের গ্রেপ্তারে অনুমতি লাগবে

সরকারি কর্মীদের গ্রেপ্তারে অনুমতি লাগবে

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভার বৈঠকে ফৌজদারি মামলায় কোনো সরকারি ...

রক্তাক্ত পাহাড়; সড়ক অবরোধ, তদন্ত কমিটি গঠন

রক্তাক্ত পাহাড়; সড়ক অবরোধ, তদন্ত কমিটি গঠন

নানিয়ারচরে ব্রাশ ফায়ারে ৬জন নিহত হওয়ার ক্ষত এখনো শুকায়নি। আর ...

প্রধানমন্ত্রী রোহিঙ্গাদের ঈদের কথা ভুলেনি , কেনা হচ্ছে ১০ হাজার কোরবানির পশু

প্রধানমন্ত্রী রোহিঙ্গাদের ঈদের কথা ভুলেনি , কেনা হচ্ছে ১০ হাজার কোরবানির পশু

কক্সবাজারের উখিয়া ও টেকনাফের ৩০টি আশ্রয়শিবিরের রোহিঙ্গাদের জন্য ১০ হাজার ...

কোরবানির পশুবাহী ট্রাকে বাধা দিলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি :পুলিশের মহাপরিদর্শক

কোরবানির পশুবাহী ট্রাকে বাধা দিলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি :পুলিশের মহাপরিদর্শক

ঈদুল আযহার বাকী আর মাত্র কদিন। এরই মধ্যে রাজধানীর হাটগুলোতে ...