সম্পাদকীয়

  • বিএনপি ধ্বংস করে এখন আওয়ামী লীগ বিধ্বস্ত্বের চেষ্টায় জামায়াত, পাশে মোসাদ-সিআইএ!

    বিএনপি ধ্বংস করে এখন আওয়ামী লীগ বিধ্বস্ত্বের চেষ্টায় জামায়াত, পাশে মোসাদ-সিআইএ!

  • চরিত্রহীনের 'স্বপ্নভঙ্গ' (Broken Dream)

    চরিত্রহীনের 'স্বপ্নভঙ্গ' (Broken Dream)

  • জামায়াতঃ বিএনপির জন্য বিষের বটিকা

    জামায়াতঃ বিএনপির জন্য বিষের বটিকা

  • সিনহা বাবুর লেখা ‘ব্রোকেন ড্রিম’ উপন্যাস

    সিনহা বাবুর লেখা ‘ব্রোকেন ড্রিম’ উপন্যাস

  • নির্বাচন নিয়ে কাউকে সাধাসাধি নয়

    নির্বাচন নিয়ে কাউকে সাধাসাধি নয়

টানা তৃতীয় মেয়াদে আ. লীগ, মেরামত করতে হবে ত্রুটি-বিচ্যুতি

প্রকাশ: ১২ মার্চ ২০১৮

আবদুল মালেক, উপ-সম্পাদক, বাংলাদেশ প্রেস

বাংলাদেশের ইতিহাসে টানা দ্বিতীয় মেয়াদে ক্ষমতায় থাকা রাজনৈতিক দল আওয়ামী লীগ। কিছু ত্রুটি-বিচ্যুতি মেরামত করে নিলে তৃতীয়বারও এ দলের ক্ষমতায় আসা প্রায় নিশ্চিত। এজন্য প্রয়োজন কিছু অতি-উৎসাহী নেতার লাগামহীন কথা-বার্তা পরিহার করা। গনমানুষের স্বপ্ন পূরনে এ দলটি কতটা ত্যাগ স্বীকার করতে পারে তা বঙ্গবন্ধু তাঁর আজীবন লড়াই-সংগ্রামের মাধ্যমে প্রতিষ্ঠিত করে গেছেন। আর মহান বাঙালী জাতিও জানে আওয়ামী লীগ ছাড়া অপরাপর দলগুলো গনমানুষের প্রতিনিধিত্ব করেনা। তবে টানা ক্ষমতায় থাকার ফলে কতিপয় নেতারা যে ত্রুটি-বিচ্যুতি ঘটাচ্ছেন নির্বাচনের আগে সেগুলো ক্ষতিয়ে দেখে মলম লাগাতে হবে।


মহান মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে অর্জিত আমাদের দেশ। সে যুদ্ধের নেতৃত্বদানকারী দল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। স্বভাবতই এই দলের দেশ পরিচালনার কথা। কিন্তু স্বাধীনতার অবব্যহিত পরেই রাষ্ট্রক্ষমতার পালাবদল ঘটে, সপরিবারে নিহত হোন হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালী, মহান বাঙালী জাতির অবিসংবাদী নেতা ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। আর এর সাথেই চরম জনপ্রিয় এই দল রাষ্ট্রক্ষমতা থেকে ছিটকে পড়ে। শুধু তা-ই নয়, পরবর্তীতে জেনারেলদের শাসনামলে কোনঠাসা হয়ে পড়ে অখন্ড পাকিস্তান কাঁপানো এই দলটি। রাষ্ট্রক্ষমতা হারানোর ব্যাপারে যেমন আন্তর্জাতিক চক্রান্ত ছিল তেমনি আওয়ামী লীগের অাভ্যন্তরীন দায়ও কম ছিল না। মহান নেতা বঙ্গবন্ধুর উদারতার সুযোগে কিছু মতলববাজ নেতা-কর্মী ক্ষুদ্র ব্যক্তিস্বার্থে প্রশ্নবিদ্ধ করেছিল দলকে। যে দায় সেদিনও আওয়ামী লীগ এড়াতে পারেনি, আজও কিছু কর্মকান্ড হচ্ছে যা এড়ানো বর্তমানেও অসম্ভব। এসব ত্রুটি আওয়ামী লীগকে নিজ দায়িত্বেই মেরামত করতে হবে।


পুরনো কাসুন্দি না-ই বা ঘাটলাম, বর্তমানও আওয়ামী লীগে নানা ত্রুটি-বিচ্যুতি ঘটছে যা সাধারন মানুষের কাছে তো বটেই খোদ শাসকদলেও প্রশ্নের উদ্রেক করছে। একুশ শতকে দাঁড়িয়ে বিশ্বের আধুনিকতার সাথে তাল মিলিয়ে অনেকদূর এগিয়েছে প্রিয় বাংলাদেশ। এ কারনে অতি অবশ্যই সাধুবাদ পাবে আওয়ামী লীগ। এই দলটি যে দেশ ও মানুষের কল্যানে কাজ করে এ বিষয়ে দুর্মূখ সমালোচকও নিঃসন্দেহ। তবে দলের নিবেদিতপ্রাণ নেতা-কর্মীর পাশাপাশি দলে কিছু আগাছা-পরগাছা ঢুকে পড়েছে সেগুলোও অস্বীকার করার যো নাই। ২০০৮ সালে নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে ক্ষমতায় এসে সবচেয়ে বার্নিং ইস্যুটি আমলে নেয় সরকার যা দুনিয়াব্যাপী সমস্যা সেই জঙ্গিবাদ। সীমিত সামর্থ্য সত্বেও এ বিষয়ে ম্যাজিক সাফল্য অর্জন করে সরকার। সারা পৃথিবী যেখানে জঙ্গি আতঙ্কে শংকিত সেখানে বাংলাদেশ এর বাইরে ছিল না এবং সুখের বিষয় সরকার বিষয়টি যথাযথ অনুধাবন করেছিল। কিন্তু সরকারের ব্যর্থতাও কম নয়। টানা দুই মেয়াদে ক্ষমতায় থাকায় অনেক প্রভাবশালী মন্ত্রী-এমপির ও নেতৃবৃন্দের আচরনে ঔধ্যত্ব এসেছে। নির্দিষ্টতা করে কারো নাম না বললেও এটি দিবালোকের মতো সত্য।


আওয়ামী লীগ গনমানুষের ভিতর থেকে উঠে আসা রাজনৈতিক প্রতিষ্ঠান। এর শিকরের গভীরতা অনেকদূর বিস্তৃত, তেমনই ছাত্রলীগও। সেই পাকিস্তান আমল থেকে শুরু করে প্রতিটি আন্দোলন-সংগ্রামে ছাত্রলীগের রয়েছে গৌরবজনক ভূমিকা। তৎকালীন সময়ে জাতীয় রাজনীতির অনেক কিছুই নির্ধারন করে দিত ছাত্রলীগ। বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ জাতীয় সিদ্ধান্ত গ্রহনে আওয়ামী লীগের নেতারা ছাত্রলীগের মনোভাব বুঝে নেবার চেষ্টা করতেন এবং সে মোতাবেক সিদ্ধান্ত নিতেন। একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধ পর্যন্ত ছাত্রলীগের কোন সিদ্ধান্ত কোন কর্মকান্ড বিতর্কিত হয়নি। কিন্তু অধুনা ছাত্রলীগের কর্মকান্ড প্রায়শই বিতর্কের জন্ম দিচ্ছ। সামনে জাতীয় নির্বাচন, আওয়ামী লীগের এ বিষয়টি গভীর ভাবে বিচার-বিবেচনা করতে হবে। ছাত্রলীগা কিংবা আওয়ামী লীগের কোন কর্মকান্ডের জন্য নৌকার ভোটে বিপর্যয় ঘটুক তা মুক্তিযুদ্ধের সপক্ষ শক্তির মানুষ হিসাবে মানতে নারাজ। জাতীয় নেতৃত্বকে চরম কঠোর হতে হবে। যারা আওয়ামী লীগ ও দেশকে ভালোবাসেন সেরকম মানুষের ভরসার কেন্দ্রবিন্দু বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা। তাঁর নিকট মানুষের প্রত্যাশা সীমাহীন, আশা করি তিনি দলীয় ত্রুটি-বিচ্যুতি মেরামত করে আওয়ামী লীগকে টানা তৃতীয়বার ক্ষমতায় যেতে সাহায্য করবেন।।

লেখকঃ উপ-সম্পাদক, বাংলাদেশ প্রেস।।

আরও পড়ুন

খালেদা জিয়ার চিকিৎসার নির্দেশনা নিয়ে রিট শুনানি মঙ্গলবার

খালেদা জিয়ার চিকিৎসার নির্দেশনা নিয়ে রিট শুনানি মঙ্গলবার

বিষেশায়িত বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসার নির্দেশনা চেয়ে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার ...

'বৃহত্তর জাতীয় ঐক্য' টিকবে না : ওবায়দুল কাদের

'বৃহত্তর জাতীয় ঐক্য' টিকবে না : ওবায়দুল কাদের

ড. কামাল হোসেন ও ডা. এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরীর ...

সরকার উৎখাতে দুর্নীতিবাজরা জোট বেঁধেছে: প্রধানমন্ত্রী

সরকার উৎখাতে দুর্নীতিবাজরা জোট বেঁধেছে: প্রধানমন্ত্রী

আওয়ামী লীগ সরকারকে উৎখাতের জন্য দুর্নীতিবাজরা জোট বেঁধেছে বলে মন্তব্য ...

মাগুরায় সড়ক দুর্ঘটনায় ২ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

মাগুরায় সড়ক দুর্ঘটনায় ২ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

মাগুরায় সড়ক দুর্ঘটনায় দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। নিহতদের নাম ...

মালদ্বীপের রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে বিরোধী প্রার্থীর জয়

মালদ্বীপের রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে বিরোধী প্রার্থীর জয়

মালদ্বীপের রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে আবদুল্লাহ ইয়েমেনকে হারিয়ে বিরোধী দলীয় প্রার্থী ইব্রাহিম ...

মিরপুরে র‍্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে মাদক ব্যবসায়ী নিহত

মিরপুরে র‍্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে মাদক ব্যবসায়ী নিহত

মিরপুরে র‍্যাবের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে আসাদুল নামে এক যুবক নিহত ...

নিউ ইয়র্কে পৌঁছালেন প্রধানমন্ত্রী

নিউ ইয়র্কে পৌঁছালেন প্রধানমন্ত্রী

জাতিসংঘের ৭৩তম সাধারণ অধিবেশনে যোগ দিতে লন্ডন হয়ে যুক্তরাষ্ট্র পৌঁছেছেন ...

মুস্তাফিজ নৈপুণ্যে বাংলাদেশের শ্বাসরুদ্ধকর জয়

মুস্তাফিজ নৈপুণ্যে বাংলাদেশের শ্বাসরুদ্ধকর জয়

মুস্তাফিজ নৈপুণ্যে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ৩ রানের শ্বাসরুদ্ধকর জয় পেয়েছে বাংলাদেশ।বিস্তারিত ...