সম্পাদকীয়

  • ভীতি ছড়িয়ে নয়--'লুটেরা, হাইব্রিড, কাওয়া' নিধনই হতে পারে আওয়ামীলীগের তৃতীয়বার সরকার গঠনে'র সোপান

    ভীতি ছড়িয়ে নয়--'লুটেরা, হাইব্রিড, কাওয়া' নিধনই হতে পারে আওয়ামীলীগের তৃতীয়বার সরকার গঠনে'র সোপান

  • আত্মস্বীকৃত খুনি ও সাজা ভোগ করা  ভাই

    আত্মস্বীকৃত খুনি ও সাজা ভোগ করা ভাই

  • বাংলাদেশের বিদ্যমান রাজনৈতিক দল সমূহের উৎপত্তি, তাঁদের বিশ্বাস--'চলমান গনতন্ত্র পূণ:দ্ধারের আন্দোলন'

    বাংলাদেশের বিদ্যমান রাজনৈতিক দল সমূহের উৎপত্তি, তাঁদের বিশ্বাস--'চলমান গনতন্ত্র পূণ:দ্ধারের আন্দোলন'

  • ভারতের বিএনপি ও আওয়ামীলীগ

    ভারতের বিএনপি ও আওয়ামীলীগ

  • এক ভাই লোকান্তরে, লক্ষ ভাই ঘরে ঘরে" - ইহা একখানা মিথ্যা শ্লোগান

    এক ভাই লোকান্তরে, লক্ষ ভাই ঘরে ঘরে" - ইহা একখানা মিথ্যা শ্লোগান

সরকারের উন্নয়ন চিত্র প্রচারে কার্পন্য কেন?

প্রকাশ: ০২ মার্চ ২০১৮

আবদুল মালেক, উপ-সম্পাদক, বাংলাদেশ প্রেস

রাষ্ট্র পরিচালনার সুযোগ পেলে আওয়ামী লীগ দেশ ও মানুষের কল্যানে যে পরিমান কাজ করে, দুর্ভাগ্য এর সিকিভাগও প্রচারের আলোয় আসে না। সরকারের প্রভাবশালী মন্ত্রী ও নেতারা অনেকেই ব্যস্ত থাকেন ব্যাক্তিগত প্রচার-প্রচারনায়। আরো সুনির্দিষ্ট করে বললে, তাদের ব্যস্ততার সিংহভাগ ব্যয় করেন রাস্তার বিরোধী দল বিএনপিকে নিয়ে। যে সকল মন্ত্রী-এমপি প্রতিদিন মিডিয়ায় আসেন তাঁরা যদি একদিন, একটি করে যে কোন উন্নয়ন কর্মকান্ডের উল্লেখ করতেন তবে বছরে ৩৬৫ টি উন্নয়নের চিত্র বা তথ্য দেশবাসীর গোচরে আসতো। কিন্তু সেটি কি হচ্ছে? না।

-

২০০৮ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর যে খাতের অবস্থা সবচেয়ে বেহাল ছিল সেটি বিদ্যৎ। বর্তমানে যেখানে এক মিনিটও বিদ্যৎ ছাড়া চলা সম্ভব নয়, সেখানে এমনও এলাকা ছিল যেখানে দিনের পর দিন বিদ্যৎ বিহীন কাটাতে হয়েছে। সেই অসহনীয় অবস্থার উত্তরন ঘটিয়েছে শেখ হাসিনার সরকার। এটি তো প্রতিদিন শতমুখে প্রচার হবার কথা ছিল। কেননা যে কোন দেশের উন্নয়নের লাইফ-লাইন হচ্ছে বিদ্যৎ। 

-

সারাদেশে অবকাঠামো নির্মাণে যুগান্তকারী উন্নয়ন করেছে শেখ হাসিনার সরকার। রাস্তা-ঘাট, পুল-কালভার্ট-ব্রীজ, হাট-বাজারে রাস্তা ও সেড নির্মান করেছে এই সরকার। উপকুলীয় এলাকায় সাইক্লোন সেল্টার নির্মান করেছে সরকার। ব্যবসা-বাণিজ্য সম্প্রসারণ ঘটাতে যুগোপযোগী উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। কৃষিতে নানা রকমের ভর্তুকি প্রদান করে কৃষকের জীবনযাত্রা উন্নত করেছে বর্তমান সরকার। এসব খাতওয়ারী খতিয়ান দেশবাসী কতটা জানে? মনে হয় খুব বেশি না।

-

ভারত ও মিয়ানমারের সাথে সমুদ্রসীমা নিয়ে যে বিরোধ ছিল তা অতি দক্ষতা ও নিপুনতার সঙ্গে সমাধান করেছে বর্তমান সরকার। ফলে স্থলভাগের সমান আরো একটি বাংলাদেশের মালিক এখন এ দেশের মানুষ। এতে করে বঙ্গোপসাগরের নির্ধারিত অংশে আমাদের নিরঙ্কুশ মালিকানা প্রতিষ্ঠিত হলো। এখন সমুদ্রের এই বিশাল সম্পদ কাজে লাগিয়ে দেশ ও মানুষের জীবন-মান উন্নয়ন করা সম্ভব হবে। বিনা ঝুট-ঝামেলায় সমুদ্র ও স্থলসীমা চুক্তি কিংবা পাহাড়ে শান্তি চুক্তি এই সরকারের অসামান্য অর্জন। এগুলো কি জনগনের মাঝে সঠিকভাবে প্রচার পেয়েছে? মনে হয় না।

-

প্রান্তিক মানুষের জীবন-মান রক্ষায় 'সামাজিক সুরক্ষা বেস্টনী' গড়ে তোলা হয়েছে। ২০১৭ সাল থেকে শুরু হয়েছে ৫০ লক্ষ পরিবারের জন্য ১০ টাকা কেজির চাল বিতরন। কিছু অনিয়ম হলেও এই প্রকল্পের আওতায় সরাসরি লাভবান হয়েছে এবং এই কার্যক্রমের আওতায় আবারো অতিদরিদ্র মানুষের জন্য ১০ টাকা কেজির চাল বিতরন শুরু হচ্ছে।

-

মন্ত্রী-এমপিদের কাজ যেমন আইন প্রনয়ন তেমনি সরকারের গৃহীত উন্নয়ন প্রকল্পের কথা মানুষের সামনে তুলে ধরাও তাদের কাজ। সবসময় বিএনপির বিরুদ্ধাচারন করতে তাদের কে বলছে? সরকারের কতিপর এমপি-মন্ত্রীর অতিকথন অনেক সময় ক্ষতির কারন হচ্ছে। যে মামলায় বেগম জিয়ার সাজা হয়েছে সেটি করেছে দুদক এবং বিচারকার্য সম্পন্ন করেছে আদালত। বিএনপি রাগে, অভিমানে নানা কথা বলতে পারে, এগুলোর রি-একশন দেয়া সবসময় জরুরী নয়। আইনকে নিজস্ব গতিতে চলতে দিয়ে শাসক দলের নেতাদের উচিত সরকারের উন্নয়নের যথাযথ চিত্র জনগনের সামনে তুলে ধরা এবং ভবিষ্যত কর্মপন্থা প্রনয়ন ও তার বাস্তবায়নের চিত্রও তুলে ধরা। সামনে জাতীয় নির্বাচন, সরকারের এমপি-মন্ত্রীদের আরো বেশি জনসংশ্লিষ্ট কর্মসূচীতে মনোযোগী হওয়া।


লেখকঃ উপ-সম্পাদক, বাংলাদেশ প্রেস।

পরবর্তী খবর পড়ুন : ‘নির্বাচন হবে সংবিধান অনুযায়ী’


আরও পড়ুন

ঝিনাইদহে ভুমি দস্যুরা বেপরোয়া জাল পরচা তৈরী করে কোটি টাকার জমি রেজিষ্ট্রি খুনোখুনির আশংকা

ঝিনাইদহে ভুমি দস্যুরা বেপরোয়া জাল পরচা তৈরী করে কোটি টাকার জমি রেজিষ্ট্রি খুনোখুনির আশংকা

অসৎ উদ্দেশ্যে সরকার নির্ধারিত হারের চেয়ে উচ্চ মুল্যে জমি রেজিষ্ট্রির ...

যশোরে সন্ত্রাসীদের বোমা হামলায়  যুবলীগ নেতা  আরাফাত রহমান লিটন নিহত

যশোরে সন্ত্রাসীদের বোমা হামলায় যুবলীগ নেতা আরাফাত রহমান লিটন নিহত

যশোরে সন্ত্রাসীদের বোমা হামলায় ও ছুরিকাঘাতে আরাফাত রহমান লিটন (৩২) ...

কক্সবাজার সৈকতে আরাফাত'র অকাল মৃত্যু : একটি দূর্ঘটনা সারা জীবনের কান্না

কক্সবাজার সৈকতে আরাফাত'র অকাল মৃত্যু : একটি দূর্ঘটনা সারা জীবনের কান্না

আমেরিকান প্রবাসী মোহাম্মদ আলী আরাফাত সদ্য স্কলারশীপ শেষ করে মা ...

চুক্তি হওয়ার পরও উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ বাড়াল আমেরিকা

চুক্তি হওয়ার পরও উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ বাড়াল আমেরিকা

উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং-উনের সঙ্গে সাক্ষাৎ ও চুক্তি সই ...

বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে রাজধানীর ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে জাতির জনক ...

পার্কে শিক্ষার্থী গণধর্ষণের ঘটনায় ৩জনের স্বীকারোক্তি; ৭দিনের রিমান্ড আবেদন

পার্কে শিক্ষার্থী গণধর্ষণের ঘটনায় ৩জনের স্বীকারোক্তি; ৭দিনের রিমান্ড আবেদন

খাগড়াছড়িতে জেলা হর্টিকালচার পার্কে স্কুল শিক্ষার্থীকে গণধর্ষণের ঘটনায় আটক ৫জনের ...

সড়ক দুর্ঘটনায় ৩৫ জন নিহত-আট জেলায়

সড়ক দুর্ঘটনায় ৩৫ জন নিহত-আট জেলায়

দেশের বিভিন্ন স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় ৩৫ জন নিহত হয়েছেন। এতে আহত হয়েছেন ...

সেলফি তুলতে গিয়ে হাতিয়ার চেয়ারম্যান ঘাটের পন্টুন থেকে পড়ে এক কলেজ শিক্ষার্থীর মৃত্যু

সেলফি তুলতে গিয়ে হাতিয়ার চেয়ারম্যান ঘাটের পন্টুন থেকে পড়ে এক কলেজ শিক্ষার্থীর মৃত্যু

নোয়াখালীর হাতিয়ায় বেড়াতে গিয়ে পন্টুনে দাঁড়িয়ে সেলফি তোলার সময় মেঘনা নদীতে ...