করোনায় একনজরে বিশ্ব অর্থনীতির ক্ষতি

প্রকাশ: ২৯ মার্চ ২০২০ |

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ■ বাংলাদেশ প্রেস

করোনাভাইরাসের গ্রাসে এখন পর্যন্ত সারাবিশ্বে সাড়ে ৬ লাখের বেশি মানুষ আক্রান্ত। মারা গেছে ৩০ হাজারের বেশি মানুষ। ঝুঁকির মুখে পুরো বিশ্ব অর্থনীতি। করোনাভাইরাসের কারণে বিশ্ব অর্থনীতি কী কী ক্ষতির মুখে পড়ছে, দেখে নেয়া যাক একনজরে।

 করোনাভাইরাসের কারণে যুক্তরাষ্ট্রের শেয়ারবাজারের শীর্ষস্থানে থাকা সূচকগুলো ডিসেম্বর থেকে নিম্নমুখী। ডও জনস তো ১৯৮৭ সালের পর সর্বনিম্ন পর্যায়ে এসেছে ২০২০ সালে। বিপর্যস্ত এশিয়া, ইউরোপের শেয়ারবাজারও। পর্যটন খাতে নেমে এসেছে বিপর্যয়। ফ্লাইট বাতিল করে ধস নেমেছে এয়ারলাইন্স ব্যবসায়। বন্ধ হোটেল রেস্টুরেন্টগুলো। তবে ব্যবসা সফল সময় পার করছে সুপার মার্কেট আর অনলাইন ডেলিভারি সার্ভিস।

উহান থেকে ছড়িয়ে পড়া ভাইরাসে চীনের উৎপাদন খাত পুরো বিপর্যস্ত। বিশ্বের শীর্ষ রফতানিকারক এ দেশের আমদানি রফতানি বাণিজ্যে ধস নেমেছে। এ সঙ্কটে বিনিয়োগের নির্ভরযোগ্য মাধ্যম স্বর্ণের দাম কমতে শুরু করলেও এখন কিছুটা স্থিতিশীল হয়েছে। তবে জ্বালানি তেলের দর কোনোভাবেই বাড়ছে না। বর্তমানে ব্যারেল প্রতি জ্বালানি তেলের দর ৩০ ডলারের নিচে নেমেছে, এ অবস্থা চলতে থাকলে ২০ ডলারে নামতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

অর্থনীতির নিম্নমুখী প্রবণতা রুখতে নানা পদক্ষেপ নিচ্ছে বিভিন্ন দেশ। তবে অর্থনৈতিক উন্নয়ন ও সহযোগী সংস্থা ওইসিডি বলছে, এ অবস্থা চলতে থাকলে ২০২০ সালে বিশ্ব প্রবৃদ্ধি হতে পারে ২ দশমিক ৪ শতাংশ। এ হার ২০০৯ সালরে পর সর্বনিম্ন। এ সংস্থার নভেম্বরের পূর্বাভাস ছিল ২ দশমিক ৯ শতাংশ।