রোহিঙ্গাদের নিয়ে কাজ করা এনজিওগুলোর তৎপরতা খতিয়ে দেখা হচ্ছেঃ কাদের

প্রকাশ: ০৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯

নিজস্ব প্রতিনিধি ■ বাংলাদেশ প্রেস

বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের নিয়ে কাজ করা এনজিওগুলোর তৎপরতা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

আজ (রোববার) দুপুরে সচিবালয়ে তিনি সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন। এর আগে ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত রবার্ট মিলারের সঙ্গে বৈঠক করেন ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, রোহিঙ্গাদের কেউ উসকানি দিচ্ছে কিনা, সেটি পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। এ ক্ষেত্রে এনজিও’র তৎপরতা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। আমেরিকার রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে এ বিষয়ে আলোচনা করেছি, তিনি জানিয়েছেন- এনজিওর ব্যাপারে সরকার সিদ্ধান্ত নিলে তাদের কোন আপত্তি নেই। যেসব এনজিও রোহিঙ্গাদের মিয়ানমার ফেরত না যেতে উৎসাহ দিচ্ছে, তাদের ব্যাপারে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, রোহিঙ্গারা দোয়া মাহফিল করার নামে জমায়েত হয়েছিল। এরই মধ্যে পাকিস্তানপন্থী কয়েকটি এনজিও চিহ্নিত করা হয়েছে; যারা দোয়া মাহফিলকে সমাবেশে রূপ দিয়েছে। এ বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

রোহিঙ্গা প্রত্যাবর্তনে মিয়ানমারের উপর চাপ অব্যাহত রাখতে আমেরিকার কাছে আবারো সহায়তা চান তিনি। ওবায়দুল কাদের বলেন, রোহিঙ্গা ইস্যুতে আমেরিকা বাংলাদেশের পাশে রয়েছে। তবে রোহিঙ্গাদের কারণে দেশের অর্থনীতি, পরিবেশ, টুরিজম এবং নিরাপত্তা হুমকিতে পড়ছে।

এ সময়, ছাত্রলীগের কমিটি ভেঙে দেয়ার বিষয়ে গণমাধ্যমের খবর প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ছাত্রলীগের কিছু কিছু বিষয় নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর ক্ষোভ থাকতে পারে, তবে কমিটি ভেঙে দেয়ার বিষয়ে কোন সিদ্ধান্ত দেননি। মনোনয়নে বোর্ডের সভায় কথা প্রসঙ্গে হয়তো কথা আসে। ইনসাইডে অনেক কথাই বলতে পারি, অনেক বিষয়েই আলোচনা করতে পারি। সেখানে ক্ষোভের প্রকাশও হতে পারে বা রিঅ্যাকশনও আসতে পারে। কিন্তু, এখানে কোন স্পেসিফিক সিদ্ধান্তের বিষয়ে আমি জানি না। কারণ, ওই ফোরামে কোন সিদ্ধান্ত নিয়ে আলোচনার বিষয় আসেনি।