সাবেক প্রধান এস কে সিনহার বিরুদ্ধে মামলার অনুমোদন

প্রকাশ: ১০ জুলাই ২০১৯     আপডেট: ১০ জুলাই ২০১৯ |

নিজস্ব প্রতিনিধি ■ বাংলাদেশ প্রেস

মানি লন্ডারিং ও অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহাসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন- দুদক। আজ বুধবার বিকেল তিনটার দিকে মামলা দায়ের করে দুদক।

দুর্নীতি দমন কমিশনের করা মামলায় এস কে সিনহাসহ মোট ১১ জনকে আসামি করা হয়েছে।

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, আসামিরা প্রতারণার মাধ্যমে সাবেক ফারমার্স ব্যাংকের গুলশান শাখা থেকে ৪ কোটি টাকার ভুয়া ঋণপত্র তৈরি করেছে। একই দিনে পে অর্ডারের মাধ্যমে এস কে সিনহার ব্যক্তিগত ব্যাংক হিসাবে ঐ অর্থ স্থানান্তর করা হয়।

পরে, এস কে সিনহা নগদ, চেক এবং পে-অর্ডারের মাধ্যমে অন্য অ্যাকাউন্টে টাকা সরিয়ে নিয়ে অর্থ আত্মসাৎ করেছেন। যা দুর্নীতি প্রতিরোধ আইন এবং মানি লন্ডারিং অপরাধ আইন অনুযায়ী শাস্তিযোগ্য অপরাধ।

এর আগে, ২০১৭ সালের ১৩ই অক্টোবর রাত ১১টা ৫৫ মিনিটে দেশত্যাগ করেন সাবেক প্রধান এই বিচারপতি। এরপর সেখান থেকে যুক্তরাষ্ট্রে রাজনৈতিক আশ্রয় নেন সিনহা। এমনকি যুক্তরাষ্ট্র সরকার তাকে ইচ্ছেমতো বসবাস ও কাজের অনুমতিও দেয়।

প্রসঙ্গত, সাবেক প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহার বিরুদ্ধে ৩ কোটি ২৫ লাখ টাকা ঘুষ দাবি করার অভিযোগে রাজধানীর শাহবাগ থানায় একটি মামলা করেন বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট অ্যালায়েন্সের (বিএনএ) সভাপতি ব্যারিস্টার নাজমুল হুদা।

মামলার এজহারে বলা হয়, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে নাজমুল হুদার বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া একটি মামলা উচ্চ আদালতে নিষ্পত্তি করার পরও প্ররোচিত হয়ে মামলাটির রায় পরিবর্তন করা। মামলাটি নিষ্পত্তি করতে দুই কোটি টাকা এবং অন্য একটি ব্যাংক গ্যারান্টির আড়াই কোটি টাকার অর্ধেক এক কোটি পচিশ লাখ টাকা ঘুষ চান সিনহা।