‘যেখানে রাস্তা সেখানেই রিকশা চালাতে দিতে হবে’

প্রকাশ: ০৯ জুলাই ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক ■ বাংলাদেশ প্রেস

সড়কে রিকশা চলাচল বন্ধের প্রতিবাদে রাজধানীর মুগদা বিশ্বরোডে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করছেন রিকশাচালকরা।


মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে এ মানববন্ধন শুরু হয়।


মানববন্ধনে সম্প্রতি রাজধানীর পৃথক তিনটি গুরুত্বপূর্ণ সড়কে রিকশা চলাচলে যে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে তা তুলে নিতে আহ্বান জানান রিকশাচালকরা।


তাদের দাবি, ঢাকা শহরের যেখানে রাস্তা আছে, সেখানেই রিকশা চালাতে দিতে হবে। একই সঙ্গে অবৈধ রিকশা ও ব্যাটারিচালিত রিকশা উচ্ছেদ করতে হবে। এ ছাড়া বৈধ রিকশা সব সড়কে চলাচল করতে দিতে হবে।


এসব দাবি আদায়ে আগামী ১১ জুলাই জাতীয় প্রেসক্লাবে সমবেত হয়ে প্রধানমন্ত্রী বরাবর একটি স্মারকলিপিও দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মো. হানিফ।


মানববন্ধনে বাংলাদেশ রিকশা ও ভ্যান মালিক ফেডারেশন, ঢাকা রিকশা মিস্ত্রি শ্রমিক লীগ, জাতীয় রিকশা ভ্যান শ্রমিক লীগ, ঢাকা সিটি রিকশা মালিক সমিতি, ঢাকা অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়ন, জাতীয় রিকশা ভ্যান শ্রমিক লীগ, রাজধানী রিকশা ও ভ্যান মালিক সমিতি অংশ নেয়।


এদিন মুগদা ছাড়াও রাজধানীর মালিবাগ, রামপুরা, বাড্ডাসহ বেশ কয়েকটি পয়েন্টে সড়ক অবরোধ করে রেখেছেন রিকশাচালকরা।


সড়কে রিকশা চলাচল বন্ধের প্রতিবাদে গতকাল সোমবারও রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেন তারা।


প্রসঙ্গত রাজধানীর যানজট নিরসনে পৃথক তিনটি গুরুত্বপূর্ণ সড়কে রিকশা চলাচল বন্ধের ঘোষণা দেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন।


গত ৩ জুলাই ডিএসসিসির নগর ভবনে ঢাকা ট্রান্সপোর্ট কন্ট্রোল অথরিটি (ডিটিসিএ) গঠিত কমিটির এক বৈঠকে তিনি এ ঘোষণা দেন।


এর পর রোববার থেকে রাজধানীর গাবতলী থেকে মিরপুর রোড হয়ে আজিমপুর ও সায়েন্সল্যাব থেকে শাহবাগ পর্যন্ত এবং কুড়িল থেকে বাড্ডা, রামপুরা, খিলগাঁও হয়ে সায়েদাবাদ পর্যন্ত প্রধান সড়কে রিকশা চলতে দেয়া হচ্ছে না।


তবে এসব সড়কের সঙ্গে সংযোগকারী রাস্তাগুলোতে শুধু সিটি কর্পোরেশনের অনুমোদন পাওয়া রিকশা চলাচল করছে।