• দেশে ফিরে আসার শর্তে শিক্ষাবৃত্তি দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

    দেশে ফিরে আসার শর্তে শিক্ষাবৃত্তি দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

  • শিক্ষা ও মেধাকে প্রাধান্য দিয়ে আমাদের এগোতে হবে : মোস্তাফা জব্বার

    শিক্ষা ও মেধাকে প্রাধান্য দিয়ে আমাদের এগোতে হবে : মোস্তাফা জব্বার

  • কৃষকের ২১ বিঘা জামির ফসল এক রাতে নষ্ট করলো দুর্বৃত্তরা

    কৃষকের ২১ বিঘা জামির ফসল এক রাতে নষ্ট করলো দুর্বৃত্তরা

  • অভিন্ন পদ্ধতিতে হবে শিক্ষক-কর্মচারী নিয়োগ

    অভিন্ন পদ্ধতিতে হবে শিক্ষক-কর্মচারী নিয়োগ

  • ইতালিতে অর্থমন্ত্রীর সাথে আরবিএ,এফএও,ডাব্লুএফপির প্রধানদের বৈঠক

    ইতালিতে অর্থমন্ত্রীর সাথে আরবিএ,এফএও,ডাব্লুএফপির প্রধানদের বৈঠক

উন্নত চিকিৎসার জন্য খালেদা জিয়া বিদেশ যাচ্ছেন

প্রকাশ: ০৯ অক্টোবর ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক, বাংলাদেশ প্রেস

 উন্নত চিকিৎসার জন্য কি বিদেশ যাচ্ছেন বেগম খালেদা জিয়া। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসক এবং সরকারের একাধিক দায়িত্বশীল সূত্রে এ কথা জানা গেছে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, ‘হাইকোর্টের নির্দেশ অনুযায়ী আমরা বেগম জিয়ার সবচেয়ে ভালো চিকিৎসার ব্যবস্থা করেছি। মেডিকেল বোর্ড এবং হাইকোর্টের নির্দেশনা অনুযায়ী সরকার এ ব্যাপারে পরবর্তী পদক্ষেপ নেবে।’ বেগম খালেদা জিয়ার চিকিৎসার জন্য গঠিত পাঁচ সদস্যের মেডিকেল বোর্ড নিয়মিত তাঁর স্বাস্থ্য পরীক্ষা করছেন। যদিও চিকিৎসক বোর্ডের প্রধান আবদুল জলিল চৌধুরী মনে করছেন, বাংলাদেশেই এবং বিএসএমএমইউতেই তাঁর দীর্ঘমেয়াদী চিকিৎসা দেওয়া সম্ভব। কিন্তু বেগম খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত চিকিৎসক এবং তাঁর আত্মীয় ডা. মামুন মনে করছেন, বেগম জিয়ার যে স্বাস্থ্যগত অবস্থা, তাতে বাংলাদেশে তাঁর সুচিকিৎসা সম্ভব নয়। তাঁর মতে, বেগম জিয়ার বা হাত অনেকটা বাঁকা হয়ে গেছে। বা কাঁধ নাড়তে পারছেন না। শরীরের বাম দিক ক্রমশ অবশ হয়ে যাচ্ছে। এটা প্যারালাইসিসের পূর্ব লক্ষণ। ডা. মামুন আজ বিএনপির নেতাদের জানিয়েছেন, ‘এ ধরনের অবস্থায় দীর্ঘমেয়াদী ফিজিও ও রিহ্যাব (পুনর্বাসন) প্রয়োজন হয়।’ বিএনপি নেতাদের তিনি বলেছেন, ‘এ ধরনের ফিজিও থেরাপির জন্য যে আধুনিক উপকরণ দরকার, তা বঙ্গবন্ধু মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে বা পিজি হাসপাতাল তো নয়ই, বাংলাদেশেও নেই। তিনি মনে করে, বেগম জিয়াকে অনতি বিলম্বে দেশের বাইরে চিকিৎসার জন্য না নিলে তাঁর পঙ্গু হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।


বিএনপির শীর্ষস্থানীয় নেতারা, এই মুহূর্তে বেগম খালেদা জিয়াকে বিদেশে পাঠালে রাজনীতির লাভ-ক্ষতির হিসাব কষছেন। এই নিয়েও বিএনপিতে মত-দ্বৈততার খবর পাওয়া গেছে। বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর খালেদার চিকিৎসার সঙ্গে রাজনীতিকে না জড়ানোর পক্ষে। সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো জানায়, আগামী কয়েকদিন চিকিৎসকদের কার্যক্রমের পর যদি মনে হয় বেগম খালেদা জিয়ার বিদেশে উন্নত চিকিৎসা প্রয়োজন, তাহলে মির্জা ফখরুল সে ব্যাপারে সরকারের সঙ্গে দেন দরবার করবেন বলে জানা গেছে। অবশ্য বিএনপির কয়েকজন সিনিয়র নেতা এই মুহূর্তে বেগম খালেদা জিয়াকে বিদেশে নেওয়ার বিপক্ষে। দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ মনে করেন, এখন সরকারের অপসারণে চূড়ান্ত আন্দোলনের প্রস্তুতি চলছে। বৃহত্তর ঐক্য গড়ে উঠেছে। এই সময় বেগম খালেদা জিয়া বিদেশে গেলে কর্মী ও জনগণের কাছে ভুল বার্তা যেতে পারে। তাঁর মতো অনেকেই বেগম জিয়াকে এখন দেশেই রাখার পক্ষে।


তবে, সরকার বেগম খালেদা জিয়ার চিকিৎসার ব্যাপারে অত্যন্ত উদার নীতি গ্রহণ করেছে। সরকারের দায়িত্বশীল একাধিক সূত্র বলছে, অসুস্থতার কোনো দায় সরকার নিতে চায় না। চিকিৎসকদেরকেও বলা হয়েছে, বেগম খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসার জন্য যা করা দরকার সেটাই করতে। সরকারের কেউ কেউ মনে করছে, বেগম খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটলে, তার দায়িত্ব ক্ষমতাসীন সরকারের ওপরই বর্তাতে পারে। নির্বাচনের আগে, এ নিয়ে নতুন বিতর্কে যেতে চায় না ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। আওয়ামী লীগের একজন নেতা বলেছেন, ‘চিকিৎসকরা যদি তাঁকে দেশের বাইরে চিকিৎসার পরামর্শ দেয় এবং হাইকোর্ট যদি তাতে সম্মতি দেয়, সেক্ষেত্রে সরকার আপত্তি করবে না।’

এতে করে বিএনপি নির্বাচনে আসবে বলে লক্ষণ সুস্পস্ট হচ্ছে বলে অভিজ্ঞরা মনে করছেন।

আরও পড়ুন

দেশে ফিরে আসার শর্তে শিক্ষাবৃত্তি দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

দেশে ফিরে আসার শর্তে শিক্ষাবৃত্তি দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার “প্রধানমন্ত্রী ফেলোশিপ ২০১৯” ঘোষণা করেছে যার আওতায় ...

শিক্ষা ও মেধাকে প্রাধান্য দিয়ে আমাদের এগোতে হবে : মোস্তাফা জব্বার

শিক্ষা ও মেধাকে প্রাধান্য দিয়ে আমাদের এগোতে হবে : মোস্তাফা জব্বার

ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, অস্ত্র আর ...

নির্বাচনে কারচুপি হলে কেন প্রতিহত করলেন না : বিএনপিকে নাসিম

নির্বাচনে কারচুপি হলে কেন প্রতিহত করলেন না : বিএনপিকে নাসিম

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে চ্যালেঞ্জ করে বিএনপির প্রার্থীদের মামলা প্রসঙ্গে ...

অভিন্ন পদ্ধতিতে হবে শিক্ষক-কর্মচারী নিয়োগ

অভিন্ন পদ্ধতিতে হবে শিক্ষক-কর্মচারী নিয়োগ

বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সরকারি শিক্ষকের আদলে অভিন্ন পদ্ধতিতে উপাধ্যক্ষ, অধ্যক্ষ ...

‘ভালোবাসা দিবসের ঠিক ৯ মাস পর কেন শিশু দিবস?’

‘ভালোবাসা দিবসের ঠিক ৯ মাস পর কেন শিশু দিবস?’

বিশ্ব ভালোবাসা দিবসের ঠিক ৯ মাস তিন দিন পর কেন ...

সবচেয়ে দ্রুত গতিসম্পন্ন ট্রেন এসে পৌঁছেছে দেশে

সবচেয়ে দ্রুত গতিসম্পন্ন ট্রেন এসে পৌঁছেছে দেশে

দেশের বৃহত্তম রেলওয়ে কারখানা সৈয়দপুরে পৌঁছেছে ইন্দোনেশিয়া থেকে আমদানি করা ...

তিন দিনে ৪ মুসল্লির মৃত্যু বিশ্ব ইজতেমার মাঠে

তিন দিনে ৪ মুসল্লির মৃত্যু বিশ্ব ইজতেমার মাঠে

গেল তিন দিনে চার মুসল্লির মৃত্যু হয়েছে টঙ্গীর তুরাগতীরে বিশ্ব ...

জামায়াত বিলুপ্তির পরামর্শ দিয়ে ব্যারিস্টার রাজ্জাকের পদত্যাগ

জামায়াত বিলুপ্তির পরামর্শ দিয়ে ব্যারিস্টার রাজ্জাকের পদত্যাগ

জামায়াত ইসলামিকে বিলুপ্ত ঘোষণা ও ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের বিপক্ষে অবস্থান ...