• ঢাবি সাংবাদিক সমিতির কার্যালয়ে চুরি

    ঢাবি সাংবাদিক সমিতির কার্যালয়ে চুরি

  • প্রকল্প বাস্তবায়ন শেষে সরকারি গাড়ি ও সরঞ্জাম যায় কোথায়?

    প্রকল্প বাস্তবায়ন শেষে সরকারি গাড়ি ও সরঞ্জাম যায় কোথায়?

  • শিশু-কিশোর মাফিয়া গ্যাংয়ের তৎপরতা চরম তুঙ্গে,  আট দিনের ব্যবধানে খুন দুই কিশোর

    শিশু-কিশোর মাফিয়া গ্যাংয়ের তৎপরতা চরম তুঙ্গে, আট দিনের ব্যবধানে খুন দুই কিশোর

  • লালবাগের আগুন নিয়ন্ত্রণে

    লালবাগের আগুন নিয়ন্ত্রণে

  • লালবাগে কাগজের গুদামে ভয়াবহ আগুন

    লালবাগে কাগজের গুদামে ভয়াবহ আগুন

চাকরিতে কোটা পদ্ধতি পুনর্মূল্যায়ন চেয়ে রিট খারিজ

প্রকাশ: ০৬ মার্চ ২০১৮

বাংলাদেশ প্রেস ডেস্ক

সরকারি চাকরিতে নিয়োগে কোটাকে সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক দাবি করে উচ্চ আদালতে করা আবেদন খারিজ হয়ে গেছে। কোটা সংস্কারের দাবিতে ছাত্রদের একাংশের আন্দোলন চলার সময় এই রিট আবেদন করা হয়েছিল হাইকোর্টে।


সোমবার বিচারাপতি সৈয়দ মোহাম্মদ দস্তগীর হোসেন ও বিচারপতি মো.আতাউর রহমান খানের হাইকোর্ট বেঞ্চ এই আবেদনটি খারিজ করে দেন।


গত ৩১ জানুয়ারি রিট আবেদনটি করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র আনিসুর রহমান মির, ঢাকাস্থ কুমিল্লা সাংবাদিক সমিতির সদস্য সচিব দিদারুল আলম ও দৈনিক আমাদের অর্থনীতির সিনিয়র সাব এডিটর আব্দুল ওদুদ।


সরকারি চাকরিতে নিয়োগে পশ্চাদপদ বিভিন্ন গোষ্ঠী এবং মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের জন্য কোটার পাশাপাশি নারী ও জেলা কোটা রয়েছে। সব মিলিয়ে কোটার সংখ্যা ৫৬ শতাংশ। নানা সময় দেখা গেছে সরকারের শেষ বছরে কোটা পদ্ধতি বাতিল বা সংস্কার চেয়ে আন্দোলনে নামে শিক্ষার্থীদের একাংশ। গত ফেব্রুয়ারিতেও এই আন্দোলন শুরু হয়েছে।


সবশেষ ৪ মার্চ রাজধানীর শাহবাগে কর্মসূচি পালন করা হয়েছে ‘বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার পরিষদ’এর ব্যানারে। তারা সরকারি চাকরিতে কোটা ৫৬ শতাংশ থেকে কমিয়ে ১০ শতাংশে নামিয়ে আনা, কোটায় যোগ্য প্রার্থী না পেলে সাধারণ প্রার্থীদের থেকে নিয়োগ দেয়া, কোটায় কোনো বিশেষ নিয়োগ পরীক্ষা না নেয়া, নিয়োগ পরীক্ষায় কোনো একাধিক কোটার ব্যবহার না করা এবং সরকারি চাকরির ক্ষেত্রে অভিন্ন বয়সসীমা নির্ধারণের দাবি জানাচ্ছে।


নানা সময় দেখা গেছে আন্দোলনকারীরা মূলত মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের কোটার বিষয়টি মানতে চাইছে না। তাদের দাবি, এই ৩০ শতাংশ কোটার জন্য তারা বৈষম্যের শিকার হচ্ছেন। আবার মুক্তিযোদ্ধা কোটা নিয়ে আপত্তি উঠায় এরও বিরূপ প্রতিক্রিয়া আছে দেশে।


১৯৭২ সালে এক নির্বাহী আদেশে সরকারি, বেসরকারি, প্রতিরক্ষা, আধা সরকারি এবং জাতীয়করণ করা প্রতিষ্ঠানে ৩০ শতাংশ মুক্তিযোদ্ধা ও ১০ শতাংশ ক্ষতিগ্রস্ত নারীদের জন্য কোটা প্রবর্তন করা হয়।


পরে বিভিন্ন সময়ে কোটায় সংস্কার ও পরিবর্তন করা হয়। বর্তমানে সরকারি চাকরিতে প্রতিবন্ধীদের জন্য এক শতাংশ, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও নাতি-নাতনিদের জন্য ৩০ শতাংশ, নারীদের জন্য ১০ শতাংশ, পশ্চাদপদ জেলাগুলোর জন্য ১০ শতাংশ এবং ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর জন্য পাঁচ শতাংশ চাকরি সংরক্ষিত রয়েছে।


রিট আবেদনে এই কোটাকে প্রথা সংবিধানের ১৯,২৮ ও ২৯ অনুচ্ছেদের সঙ্গে সাংঘর্ষিক দাবি করা হয়েছিল বলে দাবি করা হয়েছিল বলে রিটকারীদের আইনজীবী একলাছ উদ্দিন ভূইয়া সাংবাদিকদেরকে জানান।

পরবর্তী খবর পড়ুন : জাতীয় স্মৃতিসৌধে ভিয়েতনামের প্রেসিডেন্টের শ্রদ্ধা


আরও পড়ুন

প্রকল্প বাস্তবায়ন শেষে সরকারি গাড়ি ও সরঞ্জাম যায় কোথায়?

প্রকল্প বাস্তবায়ন শেষে সরকারি গাড়ি ও সরঞ্জাম যায় কোথায়?

সরকারি যে কোনও প্রকল্প শেষে ওই প্রকল্পের কাজে ব্যবহৃত কম্পিউটার, ...

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, সড়কে মৃত্যু এবং অন্যান্য ঝুঁকির দিক পরিবর্তন করছে!

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, সড়কে মৃত্যু এবং অন্যান্য ঝুঁকির দিক পরিবর্তন করছে!

সড়ক দুর্ঘটনা বাংলাদেশের জন্য একটি বিষফোঁড়া হিসাবে চিহ্নিত ছিলো এতোদিন। ...

লালবাগে কাগজের গুদামে ভয়াবহ আগুন

লালবাগে কাগজের গুদামে ভয়াবহ আগুন

রাজধানীর পুরান ঢাকার শহীদ নগর এলাকার ৬ নাম্বার গলিতে আগুন ...

'৭১-এর ২৩ মার্চ : ফিরে দেখা

'৭১-এর ২৩ মার্চ : ফিরে দেখা

এটা ছিল আমাদের জীবনের এক স্মরণীয় দিন, রাজনীতির বিবেচনায় ঐতিহাসিক। ...

বাংলাদেশে সড়ক নিরাপদ করতে কমিটির শতাধিক সুপারিশ

বাংলাদেশে সড়ক নিরাপদ করতে কমিটির শতাধিক সুপারিশ

বাংলাদেশে সড়কপথে বিশৃঙ্খলা বা নৈরাজ্য বন্ধের জন্য সুপারিশ আর প্রতিশ্রুতির ...

জয়পুরহাটে জামাতার লাঠির আঘাতে শাশুড়ির মৃত্যু!

জয়পুরহাটে জামাতার লাঠির আঘাতে শাশুড়ির মৃত্যু!

জয়পুরহাট সদর উপজেলার পশ্চিম পারুলিয়া গ্রামে মেয়ে জামাইয়ের লাঠির আঘাতে ...

সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে ১৪ দফা দাবি দিলো গণফোরাম

সড়কে শৃঙ্খলা ফেরাতে ১৪ দফা দাবি দিলো গণফোরাম

বাংলাদেশের সড়কে নিরাপত্তা ও শৃঙ্খলা ফেরাতে ১৪ দফা দাবি জানিয়েছে ...

যে কারণে জি এম কাদেরকে সরালেন এরশাদ

যে কারণে জি এম কাদেরকে সরালেন এরশাদ

গত ২০ মার্চ ছিল জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও সাবেক রাষ্ট্রপতি ...