• আজ শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস

    আজ শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস

  • মোবাইল গ্রাহকদের অধিকার রক্ষায় হাইকোর্টে রিট

    মোবাইল গ্রাহকদের অধিকার রক্ষায় হাইকোর্টে রিট

  • খালেদার প্রার্থিতা নিয়ে দুপুরে একক বেঞ্চে শুনানি

    খালেদার প্রার্থিতা নিয়ে দুপুরে একক বেঞ্চে শুনানি

  • মোশাররফ-আইএসআই কর্মকর্তার ফোনালাপ ফাঁস: রাষ্ট্রদোহিতার অভিযোগ

    মোশাররফ-আইএসআই কর্মকর্তার ফোনালাপ ফাঁস: রাষ্ট্রদোহিতার অভিযোগ

  • ‘কোল্ড আর্মস’ নিয়ে কক্সবাজারে হামলার জঙ্গী পরিকল্পনা ভণ্ডুল

    ‘কোল্ড আর্মস’ নিয়ে কক্সবাজারে হামলার জঙ্গী পরিকল্পনা ভণ্ডুল

খালেজা জিয়ার জামিনের বিষয়ে আদেশ আজ

প্রকাশ: ১২ মার্চ ২০১৮

বাংলাদেশ প্রেস ডেস্ক

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় পাঁচ বছরের দণ্ড পাওয়া বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জামিনের বিষয়ে আদেশ হতে পারে আজ সোমবার। রবিবার বিষয়টি নিয়ে শুনানির সময় আদালতে নথি এসে না পৌঁছানোয় আদেশের জন্য আজকের দিন ধার্য করা হয়।


বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি সহিদুল করিম সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দিয়েছিলেন।


আদেশের সময় খালেদা জিয়ার আইনজীবী জয়নুল আবেদীন আদালতকে বলেন, আদালতের নির্ধারিত ১৫ দিন সময় শেষ হলেও এখন পর্যন্ত নথি (বিচারিক আদালতের) আসেনি। কিন্তু জামিন দেওয়ার বিষয়ে আপনাদের ক্ষমতা রয়েছে।


তখন আদালত বলেন, ‘আমরা ২২ ফেব্রুয়ারি আদেশ (নথি পাঠানোর) দিয়েছিলাম। আমাদের আদেশ তারা (বিচারিক আদালত) কবে পেয়েছিলেন? জবাবে জয়নুল আবেদীন বলেন, ওই একই দিনে (২২ ফেব্রুয়ারি) তারা নথি পাঠানোর আদেশ গ্রহণ করেছেন।’ শুনানি শেষে আদালত আদেশের জন্য সোমবার দুইটায় দিন নির্ধারণ করেন। পরে বেলা তিনটার দিকে খালেদা জিয়ার মামলার নথি বিচারিক আদালত থেকে হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় পৌঁছে।


গত ২৫ ফেব্রুয়ারি বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি সহিদুল করিমের হাইকোর্ট বেঞ্চ বিএনপি নেত্রীর জামির আবেদনের ওপর শুনানি হয়। সেদিন আদেশ না দিয়ে নথি দেখে সিদ্ধান্ত জানানোর কথা বলেন দুই বিচারপতি।


এর আগে ২২ ফেব্রুয়ারি হাইকোর্টের একই বেঞ্চ খালেদা জিয়ার করা আপিল গ্রহণ করে ১৫ দিনের মধ্যে মামলার নথি পাঠানোর আদেশ দেন। সেই অনুযায়ী ৭ মার্চ সেই সময় শেষ হয়। তবে হাইকোর্টের আদেশের কপি বিচারিক আদালতে পৌঁছেছে ২৫ ফেব্রুয়ারি। সেই অনুযায়ী গতকাল ১১ মার্চ ১৫ দিন পূর্ণ হয়।


জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় গত ৮ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেয় আদালত। রায়ের পর খালেদা জিয়াকে নাজিমউদ্দিন রোডের পুরনো কারাগারে নেয়া হয়। তিনি এখনো সেখানেই আছেন।


একই মামলায় খালেদা জিয়ার ছেলে তারেক রহমানসহ মামলার অন্য পাঁচ আসামিকে ১০ বছর করে কারাদণ্ড এবং দুই কোটি ১০ লাখ টাকা অর্থদণ্ড করা হয়। এদের মধ্যে সাবেক সংসদ সদস্য কাজী সালিমুল হক কামাল এবং ব্যবসায়ী শরফুদ্দিন কারাগারে আছেন। বাকি তিন জন তারেক রহমান, জিয়াউর রহমানের ভাগ্নে মমিনুর রহমান এবং সাবেক মন্ত্রিপরিষদ সচিব কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী পলাতক।


বিচারিক আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে খালেদা জিয়া উচ্চ আদালতে আপিল করতে ১১ দিন লেগে যায় রায়ের অনুলিপি না পেতে বিলম্বের কারণে। ১৯ ফেব্রুয়ারি রায়ের অনুলিপি পাওয়ার পরদিন উচ্চ আদালতে আপিল করা হয় সাবেক প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে।

পরবর্তী খবর পড়ুন : কম দামে আইফোন কিনবেন?


আরও পড়ুন

টেলিভিশন পর্দায় দেখতে পাবেন ‘হাসিনা: অ্যা ডটারটস টেল’

টেলিভিশন পর্দায় দেখতে পাবেন ‘হাসিনা: অ্যা ডটারটস টেল’

পিতা নেই, কিন্তু পাহাড় সমান পিতার স্বপ্ন আগলে রেখেছেন পরম ...

নির্বাচনী দায়িত্বে থাকবেন ১২৯২ ম্যাজিস্ট্রেট

নির্বাচনী দায়িত্বে থাকবেন ১২৯২ ম্যাজিস্ট্রেট

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সুষ্ঠু ও অবাধ-নিরপেক্ষ করতে নির্বাচন সংশ্লিষ্ট ...

আধুনিক বাংলাদেশের ‘জনক’ শেখ হাসিনা

আধুনিক বাংলাদেশের ‘জনক’ শেখ হাসিনা

গর্বের সাথে এমন একটি লাইন আমাকে লিখতেই হলো। আমি জানি ...

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ জিতবে ১১ কারণে

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ জিতবে ১১ কারণে

বাংলাদেশের একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন আগামী ৩০ ডিসেম্বর ২০১৮ তারিখে। ...

নৌকার গণজোয়ার আছড়ে পড়ছে : কাদের

নৌকার গণজোয়ার আছড়ে পড়ছে : কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক পরিবহন সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের ...

বিএনপির আড়াই লাখ নেতাকর্মী গ্রেফতারের শঙ্কা রিজভীর

বিএনপির আড়াই লাখ নেতাকর্মী গ্রেফতারের শঙ্কা রিজভীর

বিএনপির আড়াই লাখ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা হতে পারে বলে শঙ্কা ...

অবৈধ স্বর্ণ বৈধ করার সুযোগ

অবৈধ স্বর্ণ বৈধ করার সুযোগ

ট্যাক্স দিয়ে তারা অবৈধ স্বর্ণ বৈধ করতে পারবেন  দেশের স্বর্ণ ব্যবসায়ীরা। একাদশ ...

নির্বাচনী প্রচারণায় অসুস্থ ডা. জাফরুল্লাহ

নির্বাচনী প্রচারণায় অসুস্থ ডা. জাফরুল্লাহ

সিলেটে নির্বাচনী প্রচারণায় গিয়ে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েছেন গণস্বাস্থ্যের প্রতিষ্ঠাতা ...