• ছয় মাসেও ফেরেনি রোহিঙ্গারা

    ছয় মাসেও ফেরেনি রোহিঙ্গারা

  • চাকরি স্থায়ী চান এনআইডির ৩২ কর্মকর্তা

    চাকরি স্থায়ী চান এনআইডির ৩২ কর্মকর্তা

  • অবহেলিত ভাষা সৈনিক বসাক

    অবহেলিত ভাষা সৈনিক বসাক

  • ইংরেজি সাইনবোর্ড অপসারণ অভিযানে ডেইজি সারোয়ার; লাখ টাকা জরিমানা

    ইংরেজি সাইনবোর্ড অপসারণ অভিযানে ডেইজি সারোয়ার; লাখ টাকা জরিমানা

  • “বৈশ্বিক উষ্ণায়নের ঝুঁকিরোধে পুরকৌশলীদের এগিয়ে আসতে হবে”-চুয়েট ভিসি

    “বৈশ্বিক উষ্ণায়নের ঝুঁকিরোধে পুরকৌশলীদের এগিয়ে আসতে হবে”-চুয়েট ভিসি

প্রশ্নফাঁস: পরীক্ষা বাতিলের সিদ্ধান্ত আগামী রোববার

প্রকাশ: ১২ ফেব্রুয়ারী ২০১৮     আপডেট: ১২ ফেব্রুয়ারী ২০১৮

বাংলাদেশ প্রেস ডেস্ক

প্রশ্নফাঁস মূল্যায়ন কমিটির আহ্বায়ক কারিগরি ও মাদরাসা বিভাগের সচিব মো. আলমগীর বলেছেন, প্রশ্নফাঁসের তথ্য পাওয়া গেছে। এখন পরীক্ষা বাতিল করা হবে কি না সেই সিদ্ধান্ত নেবেন শিক্ষামন্ত্রী। কমিটির কাজ সবকিছু তথ্য-উপাত্ত যাচাই-বাছাই করে সুপারিশ করা। আমরা সেটিই করবো।


রোববার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে প্রশ্নফাঁস মূল্যায়ন কমিটির জরুরি সভা শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি। সভায় পুলিশ, র‌্যাবের সদস্যসহ কমিটির ১১ সদস্য উপস্থিত ছিলেন।


সচিব মো. আলমগীর বলেন, প্রশ্নপত্র ফাঁসের বিষয়ে মিডিয়ায় ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে যেসব তথ্য এসেছে সেগুলো নিয়ে কাজ করা হচ্ছে। এ বিষয়ে আগামী রোববার আবারও সভায় বসবে প্রশ্নফাঁস মূল্যায়ন কমিটি। এরপর চূড়ান্ত সুপারিশ করবে কমিটি।


তিনি আরও বলেন, আজ কমিটির প্রথম সভায় প্রশ্ন ফাঁসের তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহের দায়িত্ব ভাগাভাগি করে নেয়া হয়েছে। আসলেই ফাঁস হয়েছে কিনা, কতক্ষণ আগে ফাঁস হয়েছে, তার প্রভাবটা কী, কতজন ছাত্র-ছাত্রী এটির মধ্য দিয়ে প্রভাবিত হয়েছে, পরীক্ষা বাতিল করা হবে কি না, বাতিল করা হলে কতজন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে সেসব বিষয় খতিয়ে দেখা হবে।


সচিব বলেন, অনেকে পরীক্ষার ৫-১০ মিনিট আগে প্রশ্ন পেয়েছে। ওই প্রশ্ন পেয়ে তো বেশি প্রভাবের সুযোগ নেই। আবার দেখা গেছে, বেশ আগে ফাঁস হলেও ৫ বা ১০ হাজার ছেলে মেয়ে পেয়েছে। কিন্তু পরীক্ষা দিয়েছে ২০ লাখ। এমন বিষয়গুলো হিসাব-নিকাশ করে প্রতিবেদন দেয়া হবে। আমাদের দায়িত্ব ফাঁস হওয়ার যে অভিযোগ এসেছে সেগুলো নিয়ে কাজ করা।


তিনি জানান, এখন পর্যন্ত ৩০০ টেলিফোন নম্বর চিহ্নিত করে কমিটির সদস্যদের বণ্টন করে দেয়া হয়েছে। এই নম্বরধারীর অধিকাংশ ছাত্র-ছাত্রী, যারা মেডিকেল, ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে, কম্পিউটার সায়েন্সে পড়েন এবং এদের অভিভাবকরাও আছেন। তাদের বিরুদ্ধে বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।


মো. আলমগীর বলেন, পরীক্ষা আইন ও সাইবার অপরাধের আইনে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। এমনও হতে পারে তারা যে বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করেছেন সেখানে থেকে তাদের বহিষ্কার করাও হতে পারে। যেসব ফেসবুক লিঙ্ক, টেলিফোন নম্বরসহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রশ্ন আদান-প্রদান হয়েছে সেগুলো আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর আওতায় চলে এসেছে। দ্রুত সবাইকে শনাক্ত করে আইনের আওতায় আনা হবে।

আরও পড়ুন

দিনাজপুরে বেড়েছে চালের দাম

দিনাজপুরে বেড়েছে চালের দাম

পর্যাপ্ত সরবরাহ থাকার পরও ধানের জেলা দিনাজপুরে চালের দাম বাড়ছে।দিনাজপুরের ...

শেষ ষোলতে বরুশিয়া, আর্সেনাল

শেষ ষোলতে বরুশিয়া, আর্সেনাল

ইউরোপা লিগের শেষ ষোলতে জায়গা করে নিয়েছে বরুশিয়া ডর্টমুন্ড, আর্সেনাল; ...

চাকরি স্থায়ী চান এনআইডির ৩২ কর্মকর্তা

চাকরি স্থায়ী চান এনআইডির ৩২ কর্মকর্তা

২০০৭ সালে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে বিশ্বব্যাংকের সহায়তায় 'ছবিসহ ভোটার তালিকা ...

অবহেলিত ভাষা সৈনিক বসাক

অবহেলিত ভাষা সৈনিক বসাক

ভাষা আন্দোলনের ৬৫ বছর পেরিয়ে গেলেও জয়পুরহাটের ভাষা সৈনিক সুমন্ত ...

রুটি কারিগর যখন ট্রুডো পরিবার!

রুটি কারিগর যখন ট্রুডো পরিবার!

কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো বরাবরই মজার সব কাণ্ডকারখানা ঘটিয়ে খবরের ...

ইউনিসেফের উপপ্রধানের পদত্যাগ

ইউনিসেফের উপপ্রধানের পদত্যাগ

জাতিসংঘের শিশু বিষয়ক সংস্থা ইউনিসেফের উপপ্রধান জাস্টিন ফরসিথ পদত্যাগ করেছেন। ...

আর কত দিন ভাঙা রেকর্ড || মুহম্মদ জাফর ইকবাল

আর কত দিন ভাঙা রেকর্ড || মুহম্মদ জাফর ইকবাল

আজকে আমার একজন সহকর্মী তার স্মার্টফোনে আমাকে একটা ভিডিও দেখিয়েছে। ...

শাকিব-অপুর তালাক কার্যকরে সিদ্ধান্ত ১২ মার্চ

শাকিব-অপুর তালাক কার্যকরে সিদ্ধান্ত ১২ মার্চ

চলচ্চিত্র তারকা দম্পতি শাকিব খান ও অপু বিশ্বাসের বিচ্ছেদ কার্যকর ...