• ছয় মাসেও ফেরেনি রোহিঙ্গারা

    ছয় মাসেও ফেরেনি রোহিঙ্গারা

  • চাকরি স্থায়ী চান এনআইডির ৩২ কর্মকর্তা

    চাকরি স্থায়ী চান এনআইডির ৩২ কর্মকর্তা

  • অবহেলিত ভাষা সৈনিক বসাক

    অবহেলিত ভাষা সৈনিক বসাক

  • ইংরেজি সাইনবোর্ড অপসারণ অভিযানে ডেইজি সারোয়ার; লাখ টাকা জরিমানা

    ইংরেজি সাইনবোর্ড অপসারণ অভিযানে ডেইজি সারোয়ার; লাখ টাকা জরিমানা

  • “বৈশ্বিক উষ্ণায়নের ঝুঁকিরোধে পুরকৌশলীদের এগিয়ে আসতে হবে”-চুয়েট ভিসি

    “বৈশ্বিক উষ্ণায়নের ঝুঁকিরোধে পুরকৌশলীদের এগিয়ে আসতে হবে”-চুয়েট ভিসি

আরও দুই মামলায় খালেদাকে 'হাজিরার পরোয়ানা'

প্রকাশ: ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৮

বাংলাদেশ প্রেস ডেস্ক

দুর্নীতির মামলায় পাঁচ বছরের সাজাপ্রাপ্ত বেগম খালেদা জিয়ার পক্ষে আপিল ও জামিন আবেদনে আইনজীবীদের প্রস্তুতির মধ্যে আরও দুটি মামলায় বিএনপি নেত্রীকে আদালতে হাজির হতে হচ্ছে।


রাজধানীর শাহবাগ ও তেজগাঁও থানার করা দুই মামলায় এই ‘হাজিরা পরোয়ানা’ কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ। কারা অধিদপ্তরের ঢাকা বিভাগের ডিআইজি (প্রিজন্স) তৌহিদুল ইসলাম এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

যে দুটি মামলায় এই পরোয়ানা জারি করা হয়েছে সেই মামলা দুটি করা হয়েছে যথাক্রমে ২০০৭ ও ২০০৮ সালে।


২০০৭ ও ২০০৮ সালে সেনা-সমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় থেকে বর্তমান সরকারের সময় পর্যন্ত বিভিন্ন সময়ে দুর্নীতি ও নাশকতাসহ বিভিন্ন অভিযোগে ৩৬টি মামলা আছে খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে।


তবে ২০০৭ এবং ২০০৮ সালে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে মোট চারটি মামলা হয় খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে। এর মধ্যে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় গত ৮ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়ার পাঁচ বছরের কারাদণ্ডের আদেশ হয়েছে।


অপর তিনটি মামলার মধ্যে খালেদা জিয়া, তার ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকোসহ ১৩ জনের বিরুদ্ধে ২০০৭ সালের ২ সেপ্টেম্বর তেজগাঁও থানায় গ্যাটকো দুর্নীতি মামলা হয়। এর পরদিনই সাবেক প্রধানমন্ত্রীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল।


এই মামলায় অভিযোগ গঠনের শুনানি চলছে। আগামী ৪ মার্চ শুনানির দিন নির্ধারণ করা আছে।


২০০৭ সালের ৯ ডিসেম্বর তেজগাঁও থানায় করা হয় নাইকো দুর্নীতির মামলা। এই মামলায় আসামিদের অভিযোগ থেকে অব্যাহতির আবেদনের শুনানি চলছে। ১১ মার্চ পরবর্তী শুনানির দিন ঠিক রয়েছে।


২০০৮ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়া ও তার মন্ত্রিসভার বেশ কয়েকজন সদস্যের বিরুদ্ধে করা হয় বড় পুকুরিয়া কয়লা খনি দুর্নীতি মামলা। এই মামলাটিতেও অভিযোগ গঠনের শুনানি চলছে।


অর্থাৎ এর মধ্যে বড়পুকুরিয়া এবং অন্য দুটি দুর্ণীতির মামলার যে কোনো একটিতে বিএনপি চেয়ারপারসনকে আদালতে হাজির করার নির্দেশ গেছে। এ ছাড়া জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় তাকে আগামী ২৫ ও ২৬ এপ্রিল যুক্তি উপস্থাপনের দিন হাজির হতে হবে।


গত ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে কারাগারে বন্দী খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে আরও চারটি মামলায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা আছে। এগুলো ২০১৩ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি কুমিল্লায় বাসে বোমা হামলার ঘটনায় করা দুই মামলা, ১৫ আগস্ট ভুয়া জন্মদিন পালনের অভিযোগে ২০১৬ সালের ৩ নভেম্বর ঢাকায় করা মামলা এবং মুক্তিযুদ্ধের সংখ্যা নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যের পর ২০১৫ সালের ২৪ ডিসেম্বর নড়াইলে করা মামলা।


কুমিল্লা আদালতে গত ২ জানুয়ারি জারি করা গ্রেপ্তারি পরোয়ানা ঢাকায় পাঠানোর কথা জানিয়েছে পুলিশ। আর ভুয়া জন্মদিনের মামলায় খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে জারি করা গ্রেপ্তারি পরোয়ানা তামিলের বিষয়ে আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি পুলিশকে প্রতিবেদন দিতে হবে আদালতে।

আরও পড়ুন

দিনাজপুরে বেড়েছে চালের দাম

দিনাজপুরে বেড়েছে চালের দাম

পর্যাপ্ত সরবরাহ থাকার পরও ধানের জেলা দিনাজপুরে চালের দাম বাড়ছে।দিনাজপুরের ...

শেষ ষোলতে বরুশিয়া, আর্সেনাল

শেষ ষোলতে বরুশিয়া, আর্সেনাল

ইউরোপা লিগের শেষ ষোলতে জায়গা করে নিয়েছে বরুশিয়া ডর্টমুন্ড, আর্সেনাল; ...

চাকরি স্থায়ী চান এনআইডির ৩২ কর্মকর্তা

চাকরি স্থায়ী চান এনআইডির ৩২ কর্মকর্তা

২০০৭ সালে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে বিশ্বব্যাংকের সহায়তায় 'ছবিসহ ভোটার তালিকা ...

অবহেলিত ভাষা সৈনিক বসাক

অবহেলিত ভাষা সৈনিক বসাক

ভাষা আন্দোলনের ৬৫ বছর পেরিয়ে গেলেও জয়পুরহাটের ভাষা সৈনিক সুমন্ত ...

রুটি কারিগর যখন ট্রুডো পরিবার!

রুটি কারিগর যখন ট্রুডো পরিবার!

কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো বরাবরই মজার সব কাণ্ডকারখানা ঘটিয়ে খবরের ...

ইউনিসেফের উপপ্রধানের পদত্যাগ

ইউনিসেফের উপপ্রধানের পদত্যাগ

জাতিসংঘের শিশু বিষয়ক সংস্থা ইউনিসেফের উপপ্রধান জাস্টিন ফরসিথ পদত্যাগ করেছেন। ...

আর কত দিন ভাঙা রেকর্ড || মুহম্মদ জাফর ইকবাল

আর কত দিন ভাঙা রেকর্ড || মুহম্মদ জাফর ইকবাল

আজকে আমার একজন সহকর্মী তার স্মার্টফোনে আমাকে একটা ভিডিও দেখিয়েছে। ...

শাকিব-অপুর তালাক কার্যকরে সিদ্ধান্ত ১২ মার্চ

শাকিব-অপুর তালাক কার্যকরে সিদ্ধান্ত ১২ মার্চ

চলচ্চিত্র তারকা দম্পতি শাকিব খান ও অপু বিশ্বাসের বিচ্ছেদ কার্যকর ...